নিনো রোতা

ইতালীয় সঙ্গীত রচয়িতা

নিনো রোতা নামে সমধিক পরিচিত জোভান্নি রোতা রিনালদি (৩ ডিসেম্বর ১৯১১ - ১০ এপ্রিল ১৯৭৯) একজন ইতালীয় সুরকার, পিয়ানোবাদক, সঙ্গীত নির্দেশক ও শিক্ষায়তনিক ব্যক্তি ছিলেন। তিনি ফেদেরিকো ফেল্লিনিলুকিনো ভিস্‌কন্তি পরিচালিত চলচ্চিত্রের সুরারোপের জন্য সর্বাধিক পরিচিত। তিনি ফ্রাঙ্কো জেফফিরেল্লির দুটি শেকসপিয়ারীয় চলচ্চিত্র, ফ্রান্সিস ফোর্ড কোপলার গডফাদার ত্রয়ীর প্রথম দুটি চলচ্চিত্রের সুরারোপ করেন। তিনি গডফাদার ত্রয়ীর প্রথম চলচ্চিত্র দ্য গডফাদার (১৯৭২)-এর জন্য শ্রেষ্ঠ মৌলিক সুর বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারশ্রেষ্ঠ মৌলিক সঙ্গীত বিভাগে বাফটা পুরস্কার এবং দ্বিতীয় চলচ্চিত্র দ্য গডফাদার পার্ট ২ (১৯৭৪)-এর জন্য শ্রেষ্ঠ মৌলিক সুর বিভাগে একাডেমি পুরস্কার অর্জন করেন।[১]

নিনো রোতা
Nino Rota Riccardo Bacchelli e Bruno Maderna.jpg
১৯৬৩ সালে রিককার্দো বাককেল্লিব্রুনো মাদেরনার সাথে নিনো রোতা (বামে)
প্রাথমিক তথ্য
স্থানীয় নামNino Rota
জন্ম নামজোভান্নি রোতা রিনালদি
জন্ম(১৯১১-১২-০৩)৩ ডিসেম্বর ১৯১১
মিলান, ইতালি
মৃত্যু১০ এপ্রিল ১৯৭৯(1979-04-10) (বয়স ৬৭)
রোম, ইতালি
পেশা
  • সুরকার
  • পিয়ানোবাদক
  • সঙ্গীত নির্দেশক
  • শিক্ষাবিদ
ওয়েবসাইটwww.ninorota.com

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

রোতা ১৯১১ সালের ৩রা ডিসেম্বর মিলানের একটি সঙ্গীত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্মনাম জোভান্নি রোতা রিনালদি। রোতা প্রখ্যাত শিশু বিস্ময় ছিলেন। তিনি মাত্র ১১ বছর বয়সে তার প্রথম অরাটোরিও লিনফাঞ্জিয়া দি সান জোভান্নি বাততিস্তা সৃষ্টি করেন।[২] ১৯২৩ সালের শুরুর দিকে তিনি এটি মিলান ও প্যারিসে পরিবেশন করেন। তিনি মাত্র ১৩ বছর বয়সে ইল প্রিন্সিপে পোরকারো সৃষ্টি করেন, হ্যান্স ক্রিশ্চিয়ান অ্যান্ডারসনের পর এটিই প্রথম তিন-অঙ্কের গীতধর্মী হাস্যরসাত্মক সুর। তিনি মিলান কনজারভেটরিতে জিয়াকোমো ওরেফিসের নিকট পড়াশোনা করেন,[৩] এবং রোমের সান্তা সেসিলিয়া একাডেমিতে ইলদেব্রান্দো পিৎজেত্তি ও আলফ্রেদো কাসেল্লার নিকট সুর সৃষ্টি নিয়ে উচ্চতর পড়াশোনা করেন। তিনি সেখান থেকে ১৯৩০ সালে স্নাতক সম্পন্ন করেন।[২]

কর্মজীবনসম্পাদনা

রোতা ১৯৪০-এর দশকে রেনাতো কাস্তেল্লানির জাজা-সহ ৩২-এর অধিক চলচ্চিত্রের সুর করেন। ১৯৫২ সালে লো সেইককো বিয়াঙ্কো দিয়ে তিনি ফেদেরিকো ফেল্লিনির সাথে কাজ শুরু করেন। এর পর তিনি ফেল্লিনির আই ভিতেল্লোনি (১৯৫৩) ও লা স্ত্রাদা (১৯৫৪) চলচ্চিত্রের সুর করেন। ফেল্লিনির অত্তো এ মেজ্জো (১৯৬৩) চলচ্চিত্রে রোতা সুর চলচ্চিত্রটিকে আসঞ্জনশীল করে তুলতে ভূমিকা রাখে বলে প্রায়ই উল্লেখ করা হয়। ১৯৬৫ সালের জুলিয়েত্তা দেগ্লি স্পিরিতি চলচ্চিত্রে তিনি ইউজিন ওয়াল্টারের সাথে "গো মিল্ক দ্য মুন" গানে একত্রে কাজ করেন। এরপর তারা পুনরায় ফ্রাঙ্কো জাফফিরেল্লির রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট (১৯৬৮) চলচ্চিত্রের "হোয়াট ইজ আ ইয়ুথ?" গানে একত্রে কাজ করেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ওবিয়াস, রুডি (ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯)। "9 Oscar Nominations That Were Revoked"মেন্টাল ফ্লস। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০২০ 
  2. স্লোনিম্‌স্কি ১৯৯৩, পৃ. ১০৬৩।
  3. "Nino Rota Music Catalogue"www.ninorota.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০২০ 

উৎসসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:নিনো রোতা