প্রধান মেনু খুলুন
এই নিউক্লিওটাইড-এ আছে ৫-কার্বন বিশিষ্ট শ্যুগার, ডিঅক্সি রাইবোজ, একটি নাইট্রোজেনঘটিত ক্ষারক অ্যাডেনিন এবং একটি ফসফেট গ্রুপ। ডিঅক্সি রাইবোজ ও অ্যাডেনিন একত্রে নিউক্লিওসাইড (প্রকৃতপক্ষে একটি ডিঅক্সিরাইবোনিউক্লিওসাইড) গঠন করে যাকে ডিঅক্সিঅ্যাডিনোসিন বলে। একটি ফসফেট গ্রুপ যুক্ত হলেই একে ডিঅক্সিরাইবোনিউক্লিওটাইড (ডিএনএ গঠনকারী নিউক্লিওটাইড) বলে, একটি থাকায় ডিঅক্সিঅ্যাডিনোসিন মনোফসফেট বলে।[১]

নিউক্লিওটাইড (ইংরেজি: Nucleotides) এক ধরণের জৈবিক অণু যা মনোমার এবং ডিএনএআরএনএ-এর সাব ইউনিট হিসেবে কাজ করে। ৫-কার্বন বিশিষ্ট শ্যুগার (পেন্টোজ শ্যুগার), ডিঅক্সি রাইবোজ, একটি নাইট্রোজেনঘটিত ক্ষারক অ্যাডেনিন এবং একটি ফসফেট গ্রুপ এর গাঠনিক উপাদান।

নিউক্লিওটাইড কোষে শক্তির প্যাকেট নিয়ে যায় নিউক্লিওসাইড ট্রাইফসফেটের (এটিপি, জিটিপি, সিটিপি এবং ইউটিপি) আকারে যা বিপাকীয় প্রক্রিয়াতে মূল ভূমিকা পালন করে থাকে।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Coghill, Anne M.; Garson, Lorrin R., সম্পাদক (২০০৬)। The ACS style guide: effective communication of scientific information (3rd সংস্করণ)। Washington, D.C.: American Chemical Society। পৃষ্ঠা 244। আইএসবিএন 978-0-8412-3999-9 
  2. Alberts B, Johnson A, Lewis J, Raff M, Roberts K & Wlater P (2002). Molecular Biology of the Cell (4th ed.). Garland Science. আইএসবিএন ০-৮১৫৩-৩২১৮-১. pp. 120–121.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা