নারুহিতো (徳仁) জাপানের বর্তমান সম্রাট। তিনি ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৬০ এ জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা আকিহিতোর সিংহাসন ত্যাগের পর তিনি ১ মে ২০১৯ থেকে সম্রাট হিসেবে অধিষ্ঠিত হন।[১] জাপানের ঐতিহাসিক রাজ্য অভিষেক এর ক্রম অনুসারে তিনি জাপানের ১২৬তম শাসক।

নারুহিতো
Emperor Naruhito at TICAD7 (cropped) (2).jpg
জাপানের সম্রাট
রাজত্ব১ মে ২০১৯ - বর্তমান
জাপান২২ অক্টোবর ২০১৯
পূর্বসূরিআকিহিতো
আপাত উত্তরাধিকারীফুমিহিতো
প্রধানমন্ত্রীশিনজো আবে
জন্মনারুহিতো (徳仁)
(1960-02-23) ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৬০ (বয়স ৬১)
ইম্পেরিয়াল হাউজহোল্ড এজেন্সি হাসপাতাল, টোকিও রাজপ্রাসাদ, টোকিও, জাপান
দাম্পত্য সঙ্গীমাসাকো ওয়াদা (বি. ১৯৯৩)
বংশধরআকিও, যুবরাজ্ঞী তোশি
যুগ নাম and তারিখ
রেইওয়া: ১ মে ২০১৯ - বর্তমান
রাজবংশইয়ামাতো
পিতাআকিহিতো
মাতামিচিকো শোদা
ধর্মশিনতো

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

 
১৯৬১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে নারুহিতো

নারুহিতো ১৯৬০ সালের ২৩শে ফেব্রুয়ারি টোকিও রাজপ্রাসাদের ইম্পেরিয়াল হাউজহোল্ড এজেন্সি হাসপাতালে বিকাল ৪ টা ১৫ মিনিটে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার মাতা মিচিকো শোদা রোমান ক্যাথলিকবাদ থেকে শিনতো ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়েছিলেন। মিচিকোর রোমান ক্যাথলিক পরিবারে জন্মের কারণে ঐতিহ্যবাহী দলগুলোর যুবরাজ আকিহিতোর সাথে মিচিকোর বাগদানের বিরোধিতা করেছিলেন।[৩] মিচিকোর অভিসিঞ্চন না হলেও তিনি ক্যাথলিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন এবং তার পিতামাতার বিশ্বাসে বিশ্বাসী বলে মনে করা হয়। এছাড়া গুজব রটে যে সম্রাজ্ঞী কোজুনও এই বাগদানের বিরোধিতা করেছিলেন। ২০০০ সালে নারুহিতোর পিতামহী কোজুনের মৃত্যুর পর রয়টার্স-এর প্রতিবেদনে বলা হয় তিনি তার পুত্র আকিহিতোর বিয়ের অন্যতম বিরোধী ছিলেন এবং ১৯৬০-এর দশকে তিনি তার পুত্রবধূকে তার সন্তানের জন্য উপযুক্ত নয় বলে তার পুত্রবধূ ও নাতী-নাতনীদেরকে বিষাদগ্রস্থ করে তুলেন।[৪]

রাষ্ট্রপ্রধানসম্পাদনা

 
সম্রাট হিসেবে রাজ্যাভিষেকের আয়োজনে নারুহিতো

২০১৭ সালের ১লা ডিসেম্বর জাপান সরকার ঘোষণা দেয় নারুহিতোর পিতা সম্রাট আকিহিতো ২০১৯ সালের ৩০শে এপ্রিল সিংহাসন ত্যাগ করবেন এবং নারুহিতো ২০১৯ সালের ১লা মে থেকে সম্রাট পদে অধিষ্ঠিত হবেন।[৫][৬]

নারুহিতোর রাজ্যাভিষেকের আয়োজন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৯ সালের ২২শে অক্টোবর।[৭] সেখানে প্রাচীন রীতি অনুসারে তার রাজ্যাভিষেক হয়।[৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Japan's new Emperor Naruhito pledges unity"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ১ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  2. "浩宮徳仁親王(現皇太子)誕生"মাইনিচি শিমবুন (জাপানি ভাষায়)। ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৬০। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  3. বিক্স, হার্বার্ট পি. (২০০০)। Hirohito and the Making of Modern Japan (ইংরেজি ভাষায়)। নিউ ইয়র্ক: হার্পারকলিন্স। পৃষ্ঠা ৬৬১আইএসবিএন 978-0-06-019314-0 
  4. "Japan's Dowager Empress Dead At 97" (ইংরেজি ভাষায়)। সিবিসি নিউজ। ১৬ জুন ২০০০। ৬ এপ্রিল ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  5. "Emperor Akihito to abdicate on April 30, 2019"জাপান টুডে (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  6. ওসাকি, তোমোহিরো (১ ডিসেম্বর ২০১৭)। "Japan sets date for Emperor Akihito's abdication as April 30, 2019"দ্য জাপান টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  7. "Enthronement ceremony for new emperor mulled for Oct. 2019" (ইংরেজি ভাষায়)। মাইনিচি শিমবুন। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 
  8. "Japan emperor proclaims enthromement in ancient-style ceremony"মাইনিচি শিমবুন (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

পূর্বসূরী
আকিহিতো
জাপানের সম্রাট
২০১৯ -
উত্তরসূরী
None