প্রধান মেনু খুলুন

নগরউখড়া

পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া জেলার একটি শহর

নগরউখড়া ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদিয়া জেলায় অবস্থিত কল্যাণী মহকুমার একটি শহর [১]।নগরউখড়া ১ ও ২ নং পঞ্চায়েত নিয়ে নগরউখড়া শহর এলাকা গঠিত। নগরউখড়া থানা এই এলাকা পরিচালনা করে। যমুনা নদীর উওর ও দক্ষিণ তীর নিয়ে এই এলাকা অবস্থিত। জেলার সদর শহর কৃষ্ণনগর থেকে প্রায় ৬৫ কিলোমিটার এবং রাজ্যের রাজধানী কলকাতা থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে এই শহরটি অবস্থিত।

নগরউখড়া
উখরা
শহর
নগরউখড়া শহরের গগনপ্রান্ত
নগরউখড়া শহরের গগনপ্রান্ত
নগরউখড়া পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
নগরউখড়া
নগরউখড়া
পশ্চিমবঙ্গ, ভারতে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°৫৬′ উত্তর ৮৮°৪০′ পূর্ব / ২২.৯৪° উত্তর ৮৮.৬৬° পূর্ব / 22.94; 88.66স্থানাঙ্ক: ২২°৫৬′ উত্তর ৮৮°৪০′ পূর্ব / ২২.৯৪° উত্তর ৮৮.৬৬° পূর্ব / 22.94; 88.66
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
জেলানদিয়া
সরকার
 • ধরনআর্বান বডি
 • শাসকনগরউখরা ১ ও ২ পঞ্চায়েত
 • বিধায়কশ্রীমতি নীলিমা নাগ(মল্লিক)
 • নদিয়া জিলা পূর্ত ও পরিবহন দপ্তরশ্রী চঞ্চল দেবনাথ
আয়তন
 • মোট৩০.৬৫৪ কিমি (১১.৮৩৬ বর্গমাইল)
উচ্চতা১২ মিটার (৩৯ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৩,৫৪৮
 • জনঘনত্ব২৮৩৪/কিমি (৭৩৪০/বর্গমাইল)
ভাষা
 • অফিসিয়ালবাংলা, ইংরেজি, হিন্দি
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+৫:৩০)
পিন৭৪১২৫৭
টেলিফোন কোড+৯১ ০৩৪৭৩
সাক্ষরতা৮৩.৯১%
ওয়েবসাইটnadia.nic.in

ভৌগোলিক উপাত্তসম্পাদনা

 
যমুনা ব্রীজ, নগরউখড়া

নগরটির অবস্থানের অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ হল ২২°৫৬′ উত্তর ৮৮°৪০′ পূর্ব / ২২.৯৪° উত্তর ৮৮.৬৬° পূর্ব / 22.94; 88.66[২] সমূদ্র সমতল হতে এর গড় উচ্চতা হল ১২ মিটার (৩৯ ফুট)।

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

ভারতের ২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে নগরউখড়ার জনসংখ্যা হল ১৩,৫৪৮ জন। এর মধ্যে ৬৯৭৪ জন পুরুষ এবং ৬৫৭৪ জন মহিলা।[৩] এর মধ্যে পুরুষ ৫১%, এবং নারী ৪৯%।

এখানে সাক্ষরতার হার ৮৪% । পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৮৯%, এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৭৯%। সারা পশ্চিমবঙ্গের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে নগরউখড়া এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ৯.৬৬% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

প্রশাসনিক বিভাগসম্পাদনা

 
নগরউখড়া পুলিশ স্টেশন/নগরউখড়া থানা

নগরউখড়া থানা হল শহরের মূল প্রশাসনিক কেন্দ্র।নগরউখড়া সহ পার্শ্ববর্তী গ্রাম ও এলাকা সমূহ এই থানা প্রশাসন নিয়ন্ত্রন করে (হরিণঘাটা পৌর এলাকা বাদে)।২০১৬ সালে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশে নতুন প্রশাসনিক কেন্দ্র হিসাবে নগরউখড়া থানা প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। যমুনা নদীর তীরবর্তী নগরউখড়া শহরের মহাদেবপুর এলাকায় নবনির্মিত থানাটি অবস্থিত।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসম্পাদনা

নগরউখড়া এলাকায় তিনটি সরকার পোষিত উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় আছে-

 
নগরউখড়া উচ্চ বিদ্যালয় (উঃমাঃ)
  • নগরউখড়া উচ্চ বিদ্যালয় (উঃমাঃ)। প্রতিষ্ঠিত:১৯৫৩ সাল।
 
নগরউখড়া উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (উঃমাঃ)
  • নগরউখড়া ক্ষেত্রমোহন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (উঃমাঃ)। প্রতিষ্ঠিত:১৯৬৯ সাল।
  • দীঘলগ্রাম নেতাজী বিদ্যাপীঠ (উঃমাঃ)। প্রতিষ্ঠিত:১৯৬৬ সাল।

এই বিদ্যালয়গুলি পশ্চিমবঙ্গ উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ[৪] দ্বারা পরিচালিত হয়।

এছাড়াও, একটি সরকারি ইংরেজি মাধ্যম এলিমেন্টারি প্রাইমারি স্কুল (মাইকেল মধুসূদন ইংলিশ মিডিয়াম প্রাইমারি স্কুল) ও বহু বেসরকারি এবং আধা-সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে।

ব্যাঙ্কসমূহসম্পাদনা

  • ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক ও এটিএম
  • ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ও এটিএম
  • ফার্মারস্ কো-অপারেটিভ লিমিটেড
  • বন্ধন ব্যাঙ্ক
  • এইচ.ডি.এফ.সি ব্যাঙ্ক এটিএম
  • অ্যাক্সিস ব‍্যাঙ্ক এটিএম
  • ইউকো ব্যাঙ্ক এটিএম

যোগাযোগসম্পাদনা

 
কাঁচরাপাড়া-নগরউখড়া-বনগাঁ ইন্টারসিটি মিলিটারী রোড; পূর্ব ভাগ; নগরউখড়া,নদিয়া

কাঁচরাপাড়া-নগরউখড়া-বনগাঁ ইন্টারসিটি মিলিটারী রোড[৫] নগরউখড়া শহরের মধ্যে দিয়ে গেছে। এই সড়কটি পূর্ব দিকে গাইঘাটায় ১১২ নং জাতীয় সড়ক এবং পশ্চিম দিকে বড় জাগুলিয়ায় ১২ নং জাতীয় সড়ককাঁচড়াপাড়ার কাঁপাতে কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়েকে সরাসরি যুক্ত করেছে। ১৯৭১ এর যুদ্ধের সময় এই সড়কটি ছিল ভারতীয় সেনাবাহিনীর সবথেকে নিরাপদ ও কমসময়ে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে পৌছানোর পথ। এই সড়কপথে ভারতীয় সেনা ও বি.এস.এফ পেট্রাপোল বর্ডারে যাতায়াত করে। এই সড়কটির মোট দৈর্ঘ্য ৩৩ কিলোমিটার। সড়কটি নগরউখড়াতে তিনটি প্রধান রাস্তার সাথে সরাসরি যুক্ত, যথাক্রমে- নগরউখড়া-অশোকনগর-কল্যাণগড় রোড; নগরউখড়া-নিমতলা রোড এবং নগরউখড়া-হাবড়া রোড। বর্তমানে কল্যাণীতে এইমস্ (AIIMS - Kalyani) গড়ে ওঠার ফলে, এই ইন্টারসিটি রোডটির তিন/চার লেনে সম্প্রসারণের কাজ চলছে।

হাবড়া, অশোকনগর, কাঁচরাপাড়া এবং কল্যাণী রেলওয়ে স্টেশন হল নগরউখড়ার নিকটতম রেল স্টেশন।

এছাড়াও, নগরউখড়া বিভিন্ন প্রতিবেশী, গ্রাম ও শহরাঞ্চলের সাথে প্রচুর লোকাল বাস, অটো, ব্যাটারীচালিত ভ্যান দ্বারা ভালোভাবে সংযুক্ত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা