নওবাহার-ই-মুর্শিদকুলী খানি

নওবাহার-ই-মুর্শিদকুলী খানি আজাদ-আল হোসায়নি রচিত একটি ইতিহাস গ্রন্থ। ইরান থেকে আগত এই পন্ডিত সম্ভবত ১৭২৯ খ্রিষ্টাব্দে এ গ্রন্থটি রচনা করেন। মূলত এ গ্রন্থটি একটি পুস্তিকা যা স্যার যদুনাথ সরকার ইংরেজিতে অনুদিত করে মাত্র ৮ পৃষ্ঠায় মুদ্রণ করেছিলেন।

এই পুস্তিকায় রয়েছে বাংলার সুবাদার মীর জুমলা (১৭৬০-১৭৬৩), বাংলার সুবাদার আজম শাহ (১৬৭৮-১৬৭৯) ও ঢাকার নায়েব নাজিম দ্বিতীয় মুর্শিদকুলী খান রুস্তম জঙ (১৭১২ - ১৭৩৪) সম্পর্কে একটি করে ছোট কাহিনী রয়েছে। এছাড়া রয়েছে নায়েব নাজিমের সেনাপতি মীর হাবিব ও আগা সাদেক কর্তৃক ১৭২৯ খ্রিষ্টাব্দে ত্রিপুরা রাজ্যে অভিযান, সেই রাজ্য অধিকার ও এর রওশনাবাদ নামকরণের ইতিহাস। শেষের ঘটনার জন্যই এ গ্রন্থটির বেশি গুরুত্বপূর্ণ কারণ এ গ্রন্থেই এ ঘটনার প্রথম এবং এতো বিস্তারিত বর্ণনা রয়েছে।