দেবানন্দ কোঁয়র

ভারতীয় রাজনীতিবিদ

দেবানন্দ কোঁয়র (ইংরেজি: Devanand Konwar; জন্ম: ১৯৩২, মৃত্যু: ২৫ এপ্রিল ২০২০) হচ্ছেন একজন অসমীয়া রাজনীতিবিদ। ১৯৫৫ সালে তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে যোগদান করেছিলেন। ২০০৯ সালে তিনি বিহার-এর রাজ্যপাল হিসাবে নির্বাচিত হন। এছাড়া ত্রিপুরা এবং পশ্চিমবঙ্গের (অতিরিক্ত দায়িত্ব) তিনি রাজ্যপাল হিসাবে পরিষেবা দেন৷[১] তিনি হিতেশ্বর শইকীয়া এবং তরুণ গগৈ নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকার দুটির অধীনে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিভাগের মন্ত্রীত্ব লাভ করেছিলেন। ২০১৫ সালে তিনি এআইইউডিএফ দলে যোগদান করে। উল্লেখযোগ্য যে, রাজনীতিক্ষেত্রে আসার আগে তিনি গুয়াহাটি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ হিসাবে কিছুদিন কার্যনির্বাহ করেছিলেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-এর একটি তেল-কোম্পানীতে তিনি সাতটা বছর কাজ করেছিলেন। উচ্চতম ন্যায়ালয়তেও তিনি কিছুদিন ওকালতি করেছিলেন।[২][৩]

দেবানন্দ কোঁয়র
Pranab Mukherjee attending the Launching Ceremony of Agriculture Road Map of Bihar (2012-2017), at Patna, in Bihar. The Governor of Bihar, Shri Devanand Konwar and the Chief Minister of Bihar, Shri Nitish Kumar are also seen (cropped).jpg
দেবানন্দ কোঁয়র
বিহারর রাজ্যপাল
কাজের মেয়াদ
জুলাই ২৪,২০০৯ – মার্চ ৮,২০১৩
পূর্বসূরীআর. এল. ভাটিয়া
উত্তরসূরীডি.বাই. পাটিল
ত্রিপুরার রাজ্যপাল
কাজের মেয়াদ
২৫ মার্চ ২০১৩ – ২৯ জুন ২০১৪
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল (অতিরিক্ত দায়িত্ব)
কাজের মেয়াদ
ডিসেম্বর ২০০৯ – জানুয়ারি ২০১০
পূর্বসূরীগোপালকৃষ্ণ গান্ধী
উত্তরসূরীএম কে নারায়ণন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মদেবানন্দ কোঁয়র
১৯৩২
নিতাইপুখুরী, শিবসাগর
মৃত্যু২৫ এপ্রিল ২০২০
রুক্মিনীগাঁও, কামরূপ মহানগর
জাতীয়তাভারতীয়
প্রাক্তন শিক্ষার্থীকটন কলেজ, গুয়াহাটি আইন মহাবিদ্যালয়, দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়

প্রারম্ভিক জীবন এবং শিক্ষাসম্পাদনা

দেবানন্দ কোঁয়রের জন্ম হয়েছিল ১৯৩২ সালে, শিবসাগর জেলার নিতাইপুখুরী মৌজার নিতাই কোঁয়র গাঁওতে। পিতার নাম ছিল পদ্মকান্ত কোঁয়র এবং মায়ের নাম ছিল কুসুম কোঁয়র। পিতা চাকরিসূত্রে বিভিন্ন স্থানে বদলি হয়েছিলেন। তাই শিশু দেবানন্দও বিভিন্ন চা-বাগিচার মধ্যেেই শৈশব পার করেছিলেন। নিতাইপুখুরী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাজীবন আরম্ভ করে তিনি একাধিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাগ্রহণ করেছিলেন। খোবাং হাইস্কুল থেকে তিনি প্রথম বিভাগে প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে গুয়াহাটির কটন কলেজে ভর্তি হন। সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ইংরাজী সাহিত্যে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করে তিনি দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রথম শ্রেণীর স্নাতকোত্তর অর্জন করেন৷ তদুপরি গুয়াহাটি আইন মহাবিদ্যালয় থেকেও তিনি এল.এল.বি. ডিগ্রী অর্জন করেন।[২]

কর্মজীবনসম্পাদনা

গুয়াহাটিস্থিত কটন কলেজে ইংরাজী বিভাগের প্রবক্তা হিসাবে তিনি কর্মজীবন আরম্ভ করেন।[৪] ১৯৬১ সালে তিনি মুম্বাইস্থিত American Standard Vacuum Oil Company[৪] বিপণন পরিচালক[৩] হিসাবে যোগদান করেন এবং সেখানে সাতটা বছর কর্মনির্বাহ করেন। ১৯৬৮-৬৯ সালে কিছুদিনের জন্য তিনি গুয়াহাটি কলেজ-এর প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৯ সালে তিনি ওকালতি আরম্ভ করেন গুয়াহাটি উচ্চ ন্যায়ালয়ে। পরবর্তী সময়ে তিনি উচ্চতম ন্যায়ালয়তো কিছুদিন ওকালতি করেন।[২]

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

ছাত্রাবস্থাতেই[৪] দেবানন্দ কোঁয়র ১৯৫৫ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসতে যোগদান করেন। ১৯৮২-৯০ পর্যন্ত তিনি আসাম প্রদেশ কংগ্রেস সমিতি-এর সাধারণ সম্পাদক এবং সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৩ সাল নির্বাসালে শিবসাগর সমষ্টি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তিনি বিধানসভায় মনোনীত হন৷ ১৯৯১ সালে হিতেশ্বর শইকীয়া সরকারের অধীনে তিনি শক্তি, আইন এবং পৌর প্রশাসন মন্ত্রীর পদ পান৷ ১৯৯৬ সালে তিনি থাওরা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক হন৷ ২০০১ সালে তরুণ গগৈ নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনে তিনি বিত্ত এবং শক্তি বিভাগের দায়িত্ব লাভ করেন। ২০০৪ সালে তিনি উত্তর-পূর্বাঞ্চল-এর ত্রিপুরা, মণিপুর, নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, এবং মেঘালয় রাজ্যের রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক হিসাবে পরিষেবা দেন৷[৩]

২০০৯ সালে তিনি বিহার-এর রাজ্যপাল হিসাবে নির্বাচিত হয়। ২০০৯ সাল ২৪ জুলাই থেকে ২০১৩ সাল ৮ মার্চ পর্যন্ত তিনি সেই আসনত অধিষ্ঠিত হয়ে থাকে। সমান্তরালভাবে তিনি পশ্চিমবঙ্গ-এর রাজ্যপাল(অতিরিক্ত দায়িত্ব) হিসাবে কিছুদিন দায়িত্ব পালন করে। ২০০৯ সাল ডিসেম্বর থেকে ২০১০ সাল জানুয়ারি পর্যন্ত তিনি সেই দায়িত্বে থাকেন। ২০১৩ সালে ২৫ মার্চ থেকে ২০১৪ সাল ২৯ জুন পর্যন্ত তিনি ত্রিপুরা-এর রাজ্যপাল হিসাবে কর্মনির্বাহ করে।[১] রাজনৈতিক জীবনের বিয়লি ভাগে ২০১৫ সালে তিনি বদরুদ্দিন আজমল নেতৃত্বাধীন এ.আই.ইউ.ডি.এফ.ত যোগদান করেন এবং দলর উপ-সভাপতি হিসাবে কার্যনির্বাহ করেন।[২][৩]

মৃত্যুসম্পাদনা

২০২০ সাল ২৫ এপ্রিলত ৩ বাজি ৫০ মিনিটত গুয়াহাটির রুক্মিনীগাঁওয়ের নিজ বাসভবনে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের দেহাবসান ঘটে।[২] তিনি মধুমেহ এবং শ্বাসপ্রশ্বাসজনিত রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। মৃত্যুর সময়ে তাঁর বয়স ছিল ৮৮ বছর।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Former governor, veteran Congress leader Devanand Konwar dies at 86"। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২০ 
  2. "প্রাক্তন রাজ্যপাল দেবানন্দ কোঁয়রের দেহাবসান"। গুয়াহাটি। দৈনিক জনমভূমি। ২৬-০৪-২০২০। পৃষ্ঠা ১,৪। সংগ্রহের তারিখ 26 April 2020  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "প্রাক্তন রাজ্যপাল, মন্ত্রী দেবানন্দ কোঁয়রের দেহাবসান"। গুয়াহাটি। দৈনিক আসাম। ২৬-০৪-২০২০। পৃষ্ঠা ১,৬। সংগ্রহের তারিখ 26 April 2020  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "Veteran politician Devanand Konwar passed away at 86 in Guwahati"। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২০