দুন্দার বে

সুলাইমান শাহের কনিষ্ঠ পুত্র

দুন্দার বে (১২১০ অথবা ১২১১ –১২৮০) ছিলেন সুলেইমান শাহের কনিষ্ঠ সন্তান এবং প্রথম উসমানের চাচা।

দুন্দার বে
দাম্পত্যসঙ্গীজোহরা হাতুন এব্ং হাযাল হাতুন।
সন্তানাদিবাতুর আল্প
আয়গুল হাতুন এবং বাহাদির বে।
রাজবংশওঘুজ তুর্কী কায়ি গোত্র
পিতাসুলেইমান শাহ
মাতাহায়মা হাতুন
ধর্মবিশ্বাসসুন্নি ইসলাম

তাঁর ভাই আরতুগ্রুল যখন ১২৮০–৮১ সালে মারা যান, কায়ি গোত্রের পরবর্তী নেতা হন আরতুগ্রুলের পুত্র উসমান বে,যিনি পরবর্তীকালে উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে পরিচিত হন। উসমান যখন একটি ছোট গ্রীক দ্বীপ আক্রমণ করার সিদ্ধান্ত নেয় দুন্দার বিদ্রোহ করেন কারণ তিনি ভেবেছিলেন যে এটি উপজাতিটিকে ধ্বংস করবে। তাই উসমান আদেশ অমান্যের অপরাধে তার তলোয়ার দিয়ে দুন্দারকে হত্যা করেন। উসমান বেকে হত্যা করার জন্য অনেক পরিকল্পনা হয়েছিল। দুন্দার বে তা সম্পর্কে জানতেন কিন্তু কায়ি গোত্রের নেতা হওয়ার লোভে চুপ করে থাকতেন।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা