দীপন ফ্লাক্স

ফটোমিতিক রাশি

ফটোমিতিতে দীপন ফ্লাক্স বা দীপন ক্ষমতা হল আলোর ইন্দ্রিয়গ্রাহ্য (perceived) ক্ষমতার পরিমাণ। এটি অবলোহিত, অতিবেগুনী এবং দৃশ্যমান আলোসহ যাবতীয় তড়িচ্চুম্বকীয় বিকিরণের মোট ক্ষমতা বিকিরণ ফ্লাক্স থেকে ভিন্ন। দীপন ফ্লাক্স আলোর বিভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্যে মানুষের চোখের স্পর্শকাতরতার পরিবর্তনের ফলাফলের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

দীপন ফ্লাক্স
সাধারণ প্রতীক
Φv
এসআই এককলুমেন
অন্যান্য একক
ওয়াট, ক্যান্ডেলা-স্টেরেডিয়ান, স্ফেরিক্যাল ক্যান্ডেলা
এসআই মৌলিক এককেcdsr
মাত্রাJ
আলোক উৎসের দীপন ফ্লাক্স পরিমাপের জন্য একীভূতকরণ গোলক ব্যবহার করা হয়।
আপেক্ষিক উজ্জ্বলতার ফটোটপিক (কালো রেখা) এবং স্কোটপিক (সবুজ রেখা)[১] ফাংশন। এই ফটোটপিকে সিআইই ১৯৩১ আদর্শ মান[২] (নিখুঁত কালো রেখা), জাড-ভসের ১৯৭৮ সনের পরিমার্জনকৃত উপাত্ত[৩] (ড্যাশ রেখা) সেই সাথে শার্প, স্টোকম্যান, জাগলা ও জেগলের ২০০৫ সনের উপাত্ত[৪] (ডট রেখা) অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অনভূমিক অক্ষ দ্বারা ন্যানোমিটারে তরঙ্গ দৈর্ঘ্য নির্দেশ করা হয়েছে।

সংজ্ঞাসম্পাদনা

দীপন ফ্লাক্স হল নির্গত শক্তির ভিত্তিতে কোন আলোক উৎসের উজ্জ্বলতার পরিমাণ। একটি আলোর উৎস থেকে চতুর্দিকে প্রতি একক সময়ে যে পরিমাণ দৃশ্যমান আলো নিঃসৃত হয় সেই আলোর মোট শক্তির পরিমাণই ঐ উৎসের দীপন ফ্লাক্স বা ক্ষমতা।

এককসম্পাদনা

দীপন ফ্লাক্সের এসআই একক লুমেন (lm)। এক সেকেন্ডে এক স্টেরেডিয়ান ঘনকোণে এক ক্যান্ডেলা দীপন তীব্রতার কোন আলোক উৎসের যে আলোক ফ্লাক্স উৎপন্ন হয় বা উৎসটি থেকে যে পরিমাণ আলোক ফ্লাক্স নির্গত হয় তাকে এক লুমেন হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়।

ওয়েটিংসম্পাদনা

অনুষঙ্গসম্পাদনা

দীপন তীব্রতার সাথে সম্পর্কসম্পাদনা

উদাহরণসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা