দারাজ

একটি অনলাইন কেনাবেচার সাইট

দারাজ দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি সরবরাহ প্রতিষ্ঠান এবং অনলাইন দোকান। ২০১২ সালে পাকিস্তানে দারাজ প্রতিষ্ঠিত হয়। রকেট ইন্টারনেটের উদ্যোগে মুনীব ময়ূর (প্রতিষ্ঠাতা) এবং ফারেস শাহ্ (সহ-প্রতিষ্ঠাতা) দারাজকে অনলাইন ই-কমার্স ফ্যাশন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে। বাংলাদেশ, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান এবং নেপালে তাদের পরিষেবা প্রদান করে।[১] বুজার্কি মিক্কিলেসেন দারাজের বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা[২][৩] রকেট ইন্টারনেট ২০১৮ সালে চীনের আলিবাবা গ্রুপের কাছে ই-কমার্স কোম্পানি দারাজ গ্রুপকে বিক্রি করে দেয়।

দারাজ
শিল্পই-কমার্স
প্রতিষ্ঠাকাল২০১২; ১০ বছর আগে (2012)
প্রতিষ্ঠাতারকেট ইন্টারনেট
বাণিজ্য অঞ্চল
বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপাল, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা
প্রধান ব্যক্তি
বুজার্কি মিক্কিলেসেন (সিইও), শেখ আহমেদ
পণ্যসমূহমার্কেটপ্লেস, রিটেইলার
মাতৃ-প্রতিষ্ঠানআলিবাবা গ্রুপ
ওয়েবসাইটwww.daraz.com
(কর্পোরেট)
www.daraz.com.bd
(বাংলাদেশ)
www.shop.com.mm
(মায়ানমার)
www.daraz.com.np
(নেপাল)
www.daraz.pk
(পাকিস্তান)
www.daraz.lk
(শ্রীলঙ্কা)

ইতিহাসসম্পাদনা

২০১২ সালে মুনীব ময়ূর (প্রতিষ্ঠাতা) ও ফরিস শাহ (সহ-প্রতিষ্ঠাতা) ফ্যাশন খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে দারাজ প্রতিষ্ঠিত করেন এবং সেই সময় মুনীব রকেট ইন্টারনেটে কাজ করতেন। দারাজের প্রাথমিক অর্থায়ন এবং কাজ রকেট ইন্টারনেট করছিল। তবে পরে এটি ২০১৫ সালে বাংলাদেশ এবং মিয়ানমারে যাত্রা শুরু করলে একটি সাধারণ বাজার কৌশল এবং ব্যবসায়িক মডেলে রূপান্তরিত হয়।[৪][৫]

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে কোম্পানিটি যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ডেভেলপমেন্ট ফাইন্যান্স ইন্সটিটিউট থেকে ৫০ মিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ লাভ করে।[৬][৭][৮]

২০১৬ সালের জুলাই মাসে দারাজ কায়মুকে অধিগ্রহণ করে।[৯][১০][১১]

২০১৮ সালের মে মাসে আলিবাবা গ্রুপ দারাজকে কিনে নেয়।[১২][১৩][১৪]

দারাজ বাংলাদেশসম্পাদনা

২০১৫ সালে ‘দারাজ বাংলাদেশ’ নামে বাংলাদেশে দারাজের কার্যক্রম শুরু হয়।[১৫] কার্যক্রম শুরুর পর বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তৎকালীন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম এর শুভেচ্ছা দূত হন।[১৬][১৭]। ২০১৫ সালে তারা গ্রাহকদের জন্য অ্যান্ড্রয়েডআইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন চালু করে।[১৮] ২০১৭ সালের শুরুর দিকে বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনা করা ই-বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান ‘কেইমু’ দারাজের সাথে একীভূত হয়।[১৯] দারাজের বিরুদ্ধে প্রায়শ ভুল ও নিম্নমানের পণ্য দেওয়ার অভিযোগ হয়।[২০]

অন্যান্যসম্পাদনা

৯ মে, ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক দারাজ গ্রুপকে চীনা বহুজাতিক কোম্পানি ও ই-বাণিজ্য দানব আলিবাবা গ্রুপ কিনে নেয়। আলিবাবা গ্রুপ নিয়ন্ত্রণাধীন দারাজ বর্তমানে বাংলাদেশ ছাড়াও পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, হংকং সহ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে দারাজ, শপ ও লাজাডা নামে ই-বাণিজ্য সেবা দিয়ে থাকে।[২১][২২]

পুরস্কারসম্পাদনা

  • ফাস্টেস্ট গ্রোয়িং ব্র্যান্ড, বাংলাদেশ[২৩]
  • ফাস্টেস্ট গ্রোয়িং লিডার, বাংলাদেশ[২৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Building South Asia's Leading Ecommerce Platform"Gigabit Magazine। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০২১ 
  2. "Bjarke Mikkelsen - Daraz"Business Chief Asia 
  3. "Alibaba-Owned Daraz Says E-Commerce Demand in South Asia Surging"Bloomberg News 
  4. Abudheen, Sainul। "Rocket's Daraz a hit not just in Pakistan, but in Bangladesh and Myanmar too"e27। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৫ 
  5. Asia, Digital News (২৭ জানুয়ারি ২০১৫)। "Rocket Internet's APACIG launches e-commerce site in Myanmar, Bangladesh"Digital News Asia (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৫ 
  6. Editors, RetailTech Innovation। "Online retailer Daraz raises $55 M"Enterprise Innovation। ৭ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  7. Release, Press (২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫)। "Daraz, an online retailer, has secured $55M in Funding – Tech Prolonged"Tech Prolonged। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  8. Lunden, Ingrid। "UK Gov't Leads $56M Round For Daraz, Rocket's Amazon Clone In Pakistan, Bangladesh And Myanmar"TechCrunch। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  9. S. Noda III, Tomas (২৮ জুন ২০১৬)। "Rocket Internet merges Asia e-commerce startups Daraz, Kaymu - DealStreetAsia"DealStreetAsia (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৬ 
  10. "Daraz and Kaymu set to join hands"HIP। ২৬ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০১৬ 
  11. Husain, Osman। "Tech in Asia - Connecting Asia's startup ecosystem"TechinAsia.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৬ 
  12. Russell, Jon। "Alibaba buys Rocket Internet's Daraz to expand its e-commerce empire into South Asia"TechCrunch। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৮ 
  13. Editorial, Reuters। "Alibaba buys Rocket Internet's Pakistan ecommerce platform Daraz"Reuters। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৮ 
  14. Release, Press। "Daraz Group Joins the Alibaba Ecosystem"www.daraz.com। ২ আগস্ট ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৮ 
  15. Staff, Reporter (ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৫)। "Daraz officially starts in Bangladesh"thedailystar.net। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৫ 
  16. প্রতিবেদক, নিজস্ব (আগস্ট ৫, ২০১৫)। "দারাজের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হলেন মুশফিক"ittefaq.com.bd। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৫, ২০১৫ 
  17. Staff, Reporter (আগস্ট ১৩, ২০১৫)। "দারাজ ই-কমার্স সাইটের দূত মুশফিকুর রহিম"prothomalo.com। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৩, ২০১৫ 
  18. Staff, Reporter (সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮)। "এআই অ্যাপ আনল দারাজ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮ 
  19. Staff, Reporter (ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৫)। "এক হচ্ছে কেইমু ও দারাজ"prothomalo.com। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৫ 
  20. Dhakatimes24.com। "হয়রানির দায় না নিয়ে উল্টো গ্রাহকের তথ্য চায় দারাজ"Dhakatimes News। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-০৩ 
  21. Staff, Reporter (মে ৮, ২০১৮)। "দারাজ এখন আলিবাবার"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ মে ৮, ২০১৮ 
  22. প্রথম আলো (৮ মে ২০১৮)। "চীনের আলীবাবা কিনে নিল দারাজকে"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ডিসে ২০১৮ 
  23. "আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেল দারাজ বাংলাদেশ"bdnews24.com। ৫ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৯ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা