দমদম জংশন রেলওয়ে স্টেশন

পশ্চিমবঙ্গের জংশন রেলওয়ে স্টেশন

দমদম জংশন রেলওয়ে স্টেশন হল কলকাতা শহরতলি রেল এর একটি জংশন স্টেশন। স্টেশনটি শিয়ালদহ-রানাঘাট-গেদে লাইনএ অবস্থিত। এই স্টেশনটি শিয়ালদহ-কৃষ্ণনগর সিটি, শিয়ালদহ-বনগাঁ-হাসনাবাদ-রানাঘাট লাইনশিয়ালদহ-ডানকুনি লাইন এর সঙ্গে যুক্ত। দমদম স্টেশন ভারতীয় রেল এর পূর্ব রেল অংশের একটি স্টেশন। এটি পূর্ব রেল এর একটি গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন।


দমদম জংশন
কলকাতা শহরতলি রেলওয়ে জংশন স্টেশন
দমদম রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফরমবোর্ড
স্থানাঙ্ক২২°৩৭′১৫″ উত্তর ৮৮°২৩′৩৬″ পূর্ব / ২২.৬২০৯° উত্তর ৮৮.৩৯৩৩° পূর্ব / 22.6209; 88.3933
উচ্চতা১০ মিটার (৩৩ ফু)
পরিচালিতপূর্ব রেল
লাইন
প্ল্যাটফর্ম
নির্মাণ
গঠনের ধরনআদর্শ
পার্কিংনা
সাইকেলের সুবিধানা
অন্য তথ্য
অবস্থাসক্রিয়
ভাড়ার স্থানপূর্ব রেল
ইতিহাস
চালু১৮৬২
বৈদ্যুতীকরণ১৯৬৩-১৯৬৪
পরিষেবা
পূর্ববর্তী স্টেশন   কলকাতা শহরতলি রেল   পরবর্তী স্টেশন
অভিমুখে শিয়ালদহ
পূর্ব লাইন
অভিমুখে রানাঘাট জংশন
অভিমুখে বনগাঁ জংশন
অভিমুখে শিয়ালদহ
কর্ড লিংক লাইন
অভিমুখে ডানকুনি জংশন
অভিমুখে দমদম জংশন
চক্ররেল লাইন
অভিমুখে দমদম জংশন
অবস্থান
মানচিত্র

ইতিহাস

সম্পাদনা

স্টেশনটি ১৮৬২ সালে তৈরি করা হয়।এই স্টেশন নির্মাণ করে ইস্টার্ন বেঙ্গল রেলওয়ে[১]।স্টেশনটি কলকাতা-কুষ্টিয়া ও দমদম-খুলনা রেলপথ এর সংযোগ ঘটিয়ে ছিল।

বৈদুতীকরণ

সম্পাদনা

১৯৬৩-১৯৬৪ সালে দমদম-রানাঘাট ও দমদম-বনগাঁ লাইন এর বৈদুতীকরণ ঘটানো হয়। এরপর ১৯৬৪-১৯৬৫ সালে দমদম-ডানকুনি লাইন এর বৈদুতীকরণ করা হয়।

যাত্রি পরিবহন

সম্পাদনা

দমদম স্টেশন দিয়ে প্রতিদিন ৫,৭৬,০০০ জন যাত্রী চলাচল করে। এই স্টেশন দিয়ে দিনে উভয় দিকে ৩৫০ এর মত ট্রেন চলাচল করে।[২]

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Eastern Bengal Railway"। IAFCA। সংগ্রহের তারিখ ১০-০৯-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. junction "Dumdum" |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)। Railenquiry.in। সংগ্রহের তারিখ ১০-০৯-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)