প্রধান মেনু খুলুন

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ২০০৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশী চলচ্চিত্র

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার (বাংলা অর্থ তৃতীয় ব্যক্তি একবচন সংখ্যা) ২০০৯ সালের ১১ ডিসেম্বর মুক্তিপ্রাপ্ত একটি বাংলাদেশী চলচ্চিত্র[১] ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর এই চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন স্বনামধন্য নাট্যকার মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। চলচ্চিত্রের প্রধান তিনটি চরিত্র অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, মোশাররফ করিম ও তপু। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, এশা, শুভেচ্ছা, রানী সরকারসহ আরও অনেকে।

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার
থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
চলচ্চিত্রের বাণিজ্যিক পোস্টার
পরিচালকমোস্তফা সরয়ার ফারুকী
প্রযোজকফারিদুর রেজা সাগর
ইবনে হাসান খান(ইমপ্রেস টেলিফিল্ম)
রচয়িতামোস্তফা সরয়ার ফারুকী
শ্রেষ্ঠাংশেনুসরাত ইমরোজ তিশা
মোশাররফ করিম
তপু
আবুল হায়াত
এশা
শুভেচ্ছা
রানী সরকার
সুরকাররেজাউল করিম লিমন
চিত্রগ্রাহকসুব্রত রিপন
সম্পাদকতিতাস সাহা
পরিবেশকইমপ্রেস টেলিফিল্ম
মুক্তি১১ ডিসেম্বর, ২০০৯
দৈর্ঘ্য১০৯ মিনিট
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

চলচ্চিত্রটি অস্কারের বিদেশী ভাষা বিভাগে প্রতিযোগিতায় মনোনয়নের জন্য বাংলাদেশ ফেডারেশন অফ ফিল্ম সোসাইটিজ ও ৮৩তম অস্কার বাংলাদেশ কমিটি নির্বাচিত করেন, তবে প্রতিযোগিতায় চূড়ান্ত মনোনয়ন লাভ করতে পারেনি। এছাড়াও কয়েকটি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিভিন্ন বিভাগে প্রতিযোগিতা করে।

পরিচ্ছেদসমূহ

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

তার শক্তিই ছিল তার দুর্বলতা। তার দুর্বলতার মাঝেই ছিল তার শক্তির আধার। তার অতিতের গর্ভে ছিল তার ভবিষ্যতের বীজ। তার ভবিষ্যত পুরাবৃত্তি করেছিলো অতীতের স্মৃতির। তার অতীত তাকে তাড়িয়ে বেড়ায়, আর ভবিষ্যত কে নিয়ে সে আছে দ্বিধায়। সে “রুবা” (নুসরাত ইমরোজ তিশা)। সে-ই থার্ড পারসন সিঙ্গুলার।

শ্রেষ্ঠাংশেসম্পাদনা

সম্মাননাসম্পাদনা

আন্তর্জাতিক সম্মাননাসম্পাদনা

  • ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ারঃ পুজান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০০৯
  • অফিসিয়াল প্রতিযোগিতাঃ আবুধাবি (মধ্যপ্রাচ্য) আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব
  • অফিসিয়াল নির্বাচিতঃ রটার্ডাম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১০ [৩]
  • বিজয়ী শ্রেষ্ঠ পরিচালকঃ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১০
  • অফিসিয়াল প্রতিযোগিতাঃ তিবুরন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১০
  • অফিসিয়াল প্রতিযোগিতাঃ মিলান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১০[৪]
  • অফিসিয়াল প্রতিযোগিতাঃ সান ফ্রান্সিসকো দক্ষিণ এশিয়ান চলচ্চিত্র উৎসব ২০১০
  • অফিসিয়াল মনোনয়ন বিদেশি ভাষার ছবিঃ হলিউড, ক্যালিফোর্নিয়া ৮৩তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ড (অস্কার) ২০১০[৫]

সংগীতসম্পাদনা

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার
রেজাউল করিম লিমন কর্তৃক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ২০০৯
ঘরানাচলচ্চিত্রের গান
প্রযোজকফাহিম মিউজিক

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করেন রেজাউল করিম লিমন। গীত রচনা করেছেন হাবিব ওয়াহিদ ও রেজাউল করিম লিমন। ছবি মুক্তির আগেই এই ছবির গানগুলোর অডিও সিডি ও ক্যাসেট "ফাহিম মিউজিক" এর ব্যানারে বাজারে ছাড়া হয়। "দ্বিধা" গানটি অসাধারণ জনপ্রিয়তা লাভ করে। এই ছবির গানের কণ্ঠশিল্পীরা হলেন হাবিব ওয়াহিদ, ন্যান্সি, প্রিন্স মাহমুদ, লিমন, তাহসান, মিথিলা, সুমি, অনিলা ও তপু।

গানের তালিকাসম্পাদনা

ট্র্যাক গান কণ্ঠশিল্পী নোট
দ্বিধা হাবিব ওয়াহিদ ও ন্যান্সি দ্বৈতসঙ্গীত
দ্বিধা হাবিব ওয়াহিদ একক পুরুষ
দ্বিধা ন্যান্সি একক নারী
ডিভোর্স লিমন
জেলখানার চিঠি প্রিন্স মাহমুদ ও লিমন
কে যে কার ন্যান্সি
অগোচরে তাহসানমিথিলা
পরবাসী সুমি
শেষ চিঠি তপু অনিলা
১০ থিম ১ লিমন
১১ থিম ২ লিমন

ভিসিডি ও ডিভিডিসম্পাদনা

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার ছবির ভিসিডি ও ডিভিডি বাজারজাত করেছে ফাহিম মিউজিক। ছবির শেষে জুড়ে দেয়া হয়েছে ১৩ মিনিটের OK, Cut নামে একটি বিশেষ ফিচার, তাতে রয়েছে দর্শক-প্রদর্শকদের সাথে ছবির বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথোপকথন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. 'থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার' একটি হার্ট ফিল্ম ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে তথ্যসুত্রঃ দৈনিক সমকাল ১০ ডিসেম্বর ২০০৯, তথ্য সংগ্রহ, ৭ই ফেব্রুয়ারি ২০১১
  2. Alom, Zahangir (১১ এপ্রিল ২০১০)। "Meril Prothom Alo Awards"দ্য ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ২২ অক্টোবর ২০১৭ 
  3. রটারডাম উৎসবে ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ তথ্যসুত্রঃ দৈনিক প্রথম আলো ২২ ডিসেম্বর ২০০৯, তথ্য সংগ্রহ, ৭ই ফেব্রুয়ারি ২০১১
  4. মিলান যাচ্ছে 'থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার' তথ্যসুত্রঃ দৈনিক আমার দেশ, তথ্য সংগ্রহ, ৭ই ফেব্রুয়ারি ২০১১
  5. অস্কারের বিদেশী ভাষা বিভাগে 'থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার' তথ্যসুত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১০, তথ্য সংগ্রহঃ ৭ই ফেব্রুয়ারী, ২০১১

বহিঃসংযোগসম্পাদনা