তেরে ঘর কে সামনে

বিজয় আনন্দ পরিচালিত চলচ্চিত্র, ১৯৬৩

তেরে ঘর কে সামনে (হিন্দি: तेरे घर के सामने, জাপানি: তোমার বাড়ির সামনে) হচ্ছে ১৯৬৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি হিন্দি চলচ্চিত্র।[৯] ১৯৬৩ সালের ১ জানুয়ারী, মঙ্গলবার, ছিলো চলচ্চিত্রটির মুক্তির দিন, ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা সহ অনেক আয় করে চলচ্চিত্রটি; ঐ বছরের সর্বোচ্চ আয়কারী চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে তেরে ঘার কে ছামনে ছিলো ষষ্ঠ অবস্থানে।[৮] চলচ্চিত্রটি প্রযোজিত হয়েছিলো অভিনেতা দেব আনন্দ দ্বারা এবং কাহিনী লিখেছিলেন আর পরিচালনা করেছিলেন তার ভাই বিজয় আনন্দ, চলচ্চিত্রটি ছিলো ভ্রাতাদ্বয়ের চতুর্থ কাজ, এর আগে তারা একসঙ্গে নাউ দো গিয়ারাহ (১৯৫৭), কালা বাজার (১৯৬০) এবং হাম দোনো (১৯৬১) বানান। বিজয় আনন্দ পরে সফল চলচ্চিত্র গাইড (১৯৬৫), তিসরি মানযিল (১৯৬৬) এবং জনী মেরা নাম (১৯৭০) পরিচালনা করেন।[১০]

তেরে ঘর কে সামনে
পোস্টার
পরিচালকবিজয় আনন্দ[১][২][৩]
প্রযোজকদেব আনন্দ
রচয়িতাবিজয় আনন্দ[৪]
শ্রেষ্ঠাংশেদেব আনন্দ
নূতন
রাজেন্দ্র নাথ
ওম প্রকাশ
সুরকারশচীন দেব বর্মণ
চিত্রগ্রাহকভি রাত্র[৫]
সম্পাদকবাবু শেখ
মুক্তি
  • ৫ এপ্রিল ১৯৬৩ (1963-04-05)
[৬]
স্থিতিকাল১৪৯ মিনিট[৭]
দেশভারত
ভাষাহিন্দি
আয়2,00,00,000[৮]

তেরে ঘর কে সামনের মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন দেব আনন্দ, নূতন, রাজেন্দ্রনাথ এবং ওম প্রকাশ।[১১] সঙ্গীত পরিচালনা করেন শচীন দেব বর্মণ এবং গীতিকার ছিলেন হাসরাত জয়পুরি। চলচ্চিত্রটি দেব আনন্দ এবং নুতন জুটির শেষ চলচ্চিত্র ছিলো, তারা দুজনে জুটি হিসেবে এর আগে পেয়িং গেস্ট (১৯৫৭), বারিশ (১৯৫৭) এবং মঞ্জিল (১৯৬০) চলচ্চিত্রে কাজ করেন।[১২]

চলচ্চিত্রটি কিছুটা রসিকতার ধাঁচের সহ একটি সামাজিক বার্তা দেয় যেঃ "সব নতুন খারাপ না, আবার সব পুরোনোও ভালো নয়"। চলচ্চিত্রটির মূল গল্প হচ্ছে বিদেশ থেকে একটা আর্কিটেক্ট ছেলে ভারতে এসেছে বিদেশী পড়াশোনা শেষ করে এবং একটা ভারতীয় আধুনিক মেয়ের প্রেমে পড়েছে যে ভারতীয় সংস্কৃতি এবং তার মাতাপিতার ইচ্ছাকে শ্রদ্ধা করে। ছেলেটার বাবা এবং মেয়েটার বাবা সবকিছুরই প্রতিদ্বন্দী, এবং কখনো ঝগড়া বন্ধ করেনা। ছেলেটাকে এবং মেয়েটাকে অবশ্যই তাদের বাবাদের মধ্যকার দ্বন্দ্ব মেটাতে হবে এবং শান্তি আনতে হবে।

অভিনয়ে সম্পাদনা

  • দেব আনন্দ - রাকেশ আনন্দ কুমার, একজন তরুণ আর্কিটেক্ট যে বাড়িও বানায়
  • নূতন - সুলেখা, একজন তরুণী যে রাকেশের প্রেমে পড়ে
  • রাজেন্দ্র নাথ - ক্যাপ্টেন রঞ্জিত 'রনি', একজন সামরিক কর্মকর্তা এবং সুলেখার ভাই
  • রশিদ খান - মদন গোপাল বাসুরীওয়ালা, রাকেশের সহকারী
  • পারভীন চৌধুরী - মতিয়া, সুলেখার বান্ধবী
  • প্রতিমা দেবী - শ্রীমতি করম চাঁদ, সুলেখার মাতা
  • হরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় - শেঠ করম চাঁদ, সুলেখার পিতা
  • মমতাজ বেগম - শ্রীমতি জগন্নাথ, রাকেশের মা
  • ওম প্রকাশ - লালা জগন্নাথ, রাকেশের বাবা
  • জনকীদাস - নিলাম বিক্রেতা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. Tere Ghar Ke Samne (1963), সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  2. Tere Ghar Ke Samne Trailer and Cast, সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  3. "Vijay Anand's family ignored at the IFFI"। Oneindia Entertainment। ৫ ডিসেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. Tere Ghar Ke Samne, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  5. Untitled Document, ২২ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  6. Tere Ghar Ke Samne (1963) Movie Review, Trailers, Music Videos, Songs, Wallpapers – Bollywood Hungama, সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  7. Tere Ghar Ke Samne movie Reviews, Trailers, Wallpapers, Songs, Hindi, ২৭ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১২ 
  8. "Box office 1963"Boxofficeindia.com। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১২ 
  9. DEEPAK MAHAAN। "Tere Ghar Ke Samne (1963)"The Hindu 
  10. Tere Ghar ke Saamne Upperstall.com, ২৫ ডিসেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা, সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১২ 
  11. Tere Ghar Ke Samne DVD, 2005 828970009195, eBay, ২০০৫, সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১২ 
  12. The unforgettable Nutan-Dev Anand chemistry, সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০১২ 

বহিঃসংযোগ সম্পাদনা