তথ্য তত্ত্ব (ইংরেজি: Information theory) হচ্ছে ফলিত গণিতের একটি শাখা যেখানে উপাত্ত পরিমাপ করা হয়, যাতে করে যত বেশি সম্ভব উপাত্ত কোন মাধ্যমে সংরক্ষণ করা যায় কিংবা কোন চ্যানেলের মধ্য দিয়ে স্থানান্তর করা যায়। উপাত্তের এই পরিমাপ, যাকে তথ্য এনট্রপি বলা হয়, সাধারণত বিটের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়।

তথ্য তত্ত্বের মূলনীতি কাজে লাগিয়ে তৈরি হয়েছে জিপ ফাইল (অবচয়হীন উপাত্ত সংকোচন), এমপিথ্রি (অবচয়যুক্ত উপাত্ত সংকোচন)), এবং ডিএসএল (চ্যানেল কোডিং)।

জ্ঞানের এই শাখাটি গণিত, পরিসংখ্যান, কম্পিউটার বিজ্ঞান, পদার্থবিজ্ঞান, স্নায়ুজীববিজ্ঞান, এবং তড়িৎ প্রকৌশল-এর মিলনস্থল। গভীর মহাশূন্যে ভয়েজার মিশন, কমপ্যাক্ট ডিস্কের উদ্ভাবন, মোবাইল ফোনের বাস্তবায়ন, ইন্টারনেটোর প্রসার, ভাষাবিজ্ঞান ও মানুষের অনুভূতির অধ্যয়ন, কৃষ্ণগহ্বর বোঝা, ইত্যাদি নানান ক্ষেত্রে এই শাখার বহু অবদান আছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিসংযোগসম্পাদনা

  • Hazewinkel, Michiel, সম্পাদক (২০০১), "Information", Encyclopedia of Mathematics, Springer Science+Business Media, আইএসবিএন 978-1-55608-010-4