ডলুরা-বালাট সীমান্ত হাট

দ্বিতীয় বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সীমান্ত হাট

ডলুরা-বালাট সীমান্ত হাট হচ্ছে দ্বিতীয় বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সীমান্ত হাট যা ২০১২ সালের ২৪ এপ্রিল বাংলাদেশের সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ডলুরা এলাকায় এবং ভারতের মেঘালয়ের বালাট সীমান্তে চালু হয়।[১][২][৩][৪]

বিনিময় ও হাট ব্যবস্থাপনা

সম্পাদনা

সপ্তাহে প্রতি মঙ্গলবার বিজিবিবিএসএফ সুরক্ষা বলয়ে হাট বসে এবং প্রতিজন ২০০ ডলার সমমূল্যের শুল্কমুক্ত সওদা করতে পারে।[৫] হাটে বাংলাদেশী টাকাভারতীয় রুপি উভয় মুদ্রায় পণ্য বেচা-কেনা হয়।[৬]

আরও দেখুন

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "চালু হলো ডলুরা সীমান্ত হাট"সমকাল। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৬ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ মে ৩০, ২০২২ 
  2. "ব্যতিক্রমী এক বাজার বর্ডার হাট"জাগোনিউজ২৪.কম। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৯ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  3. "দেখে আসুন কসবা সীমান্ত হাট"প্রথম আলো। ঢাকা, বাংলাদেশ। ৭ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  4. "সীমান্ত হাটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন"ওয়ালিউর রহমান মিরাজ, বিবিসি বাংলা। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৩ জুলাই ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২২ 
  5. "চালু হলো ডলুরা সীমান্ত হাট"সমকাল। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৬ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  6. "কুড়িগ্রামে সীমান্ত হাট বসবে সপ্তাহে দু'দিন"সময় নিউজ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০২২