প্রধান মেনু খুলুন

ডরোথি ম্যাকগুইয়ার

ডরোথি হ্যাকেট ম্যাকগুইয়ার (ইংরেজি: Dorothy Hackett McGuire; ১৪ই জুন ১৯১৬ - ১৩ই সেপ্টেম্বর ২০০১) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তিনি জেন্টলম্যান্‌স অ্যাগ্রিমেন্ট (১৯৪৭) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য সুপরিচিত। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এছাড়া তিনি ফ্রেন্ডলি পারসুয়েশন (১৯৫৬) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ন্যাশনাল বোর্ড অব রিভিউ পুরস্কার অর্জন করেন।

ডরোথি ম্যাকগুইয়ার
Studio publicity Dorothy McGuire.jpg
প্রচরণামূলক ছবিতে ম্যাকগুইয়ার
স্থানীয় নাম
Dorothy McGuire
জন্ম
ডরোথি হ্যাকেট ম্যাকগুইয়ার

(১৯১৬-০৬-১৪)১৪ জুন ১৯১৬
ওহামা, নেব্রাস্কা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যু১৩ সেপ্টেম্বর ২০০১(2001-09-13) (বয়স ৮৫)
সান্তা মনিকা, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণহৃদরোগ
অন্য নামডরোথি ম্যাকগুইয়ার সোপ
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৪৩-১৯৯০
দাম্পত্য সঙ্গীজন সোপ (বি. ১৯৪৩; মৃ. ১৯৭৯)
সন্তানটপো সোপ (কন্যা)
মার্ক সোপ (পুত্র)

জীবনীসম্পাদনা

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

ম্যাকগুইয়ার ১৯১৬ সালের ১৪ই জুন নেব্রাস্কা অঙ্গরাজ্যের ওহামা শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তার পিতা টমাস জনসন ম্যাকগুইয়ার ও মাতা ইসাবেল ফ্লাহার্টি ম্যাকগুইয়ারের একমাত্র সন্তান। তিনি ওহামা কমিউনিটি প্লেহাউজে তার মঞ্চ কর্মজীবন শুরু করেন।[১]

পিতার মৃত্যুর পর ম্যাকগুইয়ার ইন্ডিয়ানার ইন্ডিয়ানাপোলিসের কনভেন্ট স্কুলে পড়াশুনা করেন। তিনি পরবর্তীতে ম্যাসাচুসেট্‌সের চেস্টনাট হিলের পাইন ম্যানর জুনিয়র কলেজে ভর্তি হন। সেখানে তিনি নাট্য দলের সভাপতি ছিলেন। ১৯ বছর বয়সে তিনি পাইন ম্যানর থেকে পাস করেন।[২]

চলচ্চিত্র কর্মজীবনসম্পাদনা

প্রযোজক ডেভিড ও. সেলৎসনিক তার মঞ্চে অভিনয়ের দক্ষতা দেখে তাকে হলিউডে নিয়ে আসেন। ম্যাকগুইয়ারের প্রথম চলচ্চিত্র ছিল ক্লদিয়া। এটি তার নিজের অভিনীত ব্রডওয়ে মঞ্চে করা একটি সফল মঞ্চনাটকের চলচ্চিত্রায়ন।[১] এতে তিনি অল্পবয়সী বিয়ের কনে চরিত্রে অভিনয় করেন। তার অভিনয় দর্শক ও সমালোচকদের দৃষ্টিতে সমাদৃত হয় এবং এই সফলতার কারণে চলচ্চিত্রটির একটি অনুবর্তী পর্ব ক্লদিয়া অ্যান্ড ডেভিড নির্মাণে অনুঘটক হিসেবে কাজ করে। তার অভিনয় দেখে সেলৎসনিক তাকে "স্বভাবগত অভিনেত্রী" বলে উল্লেখ করেন, অন্যদিকে প্রযোজক উইলিয়াম পার্লবার্গ তাকে "বিগত কয়েক বছরে দেখা সেরা অভিনেত্রী" বলে অভিহিত করেন।[৩]

ম্যাকগুইয়ার ১৯৪৭ সালে গ্রেগরি পেকের বিপরীতে জেন্টলম্যান্‌স অ্যাগ্রিমেন্ট চলচ্চিত্রে অভিনয়ের করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এছাড়া তিনি ফ্রেন্ডলি পারসুয়েশন (১৯৫৬) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ন্যাশনাল বোর্ড অব রিভিউ পুরস্কার অর্জন করেন।

ব্যক্তিজীবন ও মৃত্যুসম্পাদনা

ম্যাকগুইয়ার লাইফ ম্যাগাজিনের আলোকচিত্রী জন সোপকে (১৯০৮-১৯৭৯) বিয়ে করেন। তাদের এক পুত্র মার্ক সোপ একজন আলোকচিত্রী এবং এক কন্যা টপো সোপ (জন্ম: ১৯৪৮) একজন অভিনেত্রী।

ম্যাকগুইয়ার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ২০০১ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. কাৎজ, এফ্রাইম (১৯৭৯)। The Film Encyclopedia: The Most Comprehensive Encyclopedia of World Cinema in a Single Volume। পেরিজি বুকস। পৃষ্ঠা ৭৫৫–৭৫৬। আইএসবিএন 0-399-50601-2 
  2. সেভেরো, রিচার্ড (১৫ সেপ্টেম্বর ২০০১)। "Dorothy McGuire, Steadfast Heroine of Film, Dies at 83"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুন ২০১৮ 
  3. জনসন, আর্সকিন (১৮ মে ১৯৪৩)। "Hollywood Column"দি এস্কাবানা ডেইলি প্রেস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুন ২০১৮ – নিউজপেপার্স.কম-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা