ডক্টর জেকিল অ্যান্ড মিস্টার হাইড

ডক্টর জেকিল অ্যান্ড মিস্টার হাইড রবার্ট লুইস স্টিভেন্সন রচিত বিখ্যাত রহস্য উপন্যাস। পুরো নাম দ্য স্ট্রেঞ্জ কেস্‌ অব ডক্টর জেকিল অ্যান্ড মিস্টার হাইড (The Strange Case of Dr. Jekyll and Mr. Hyde)।

ডক্টর জেকিল অ্যান্ড মিস্টার হাইড
Jekyll and Hyde Title.jpg
প্রথম লন্ডন সংস্করণের প্রচ্ছদ (১৮৮৬)
লেখকরবার্ট লুইস স্টিভেন্সন
দেশযুক্তরাজ্য
ভাষাইংরেজি
ধরননাটক
ভৌতিক
Thriller
Gothic
কল্পকাহিনী
প্রকাশকLongmans, Green & co.
প্রকাশনার তারিখ
৫ জানুয়ারী, ১৮৮৬
আইএসবিএন0-553-21277-X

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

ডাক্তার জেকিল নিজের ব্যবহারের জন্য একটি ঔষধ আবিষ্কার করতে সক্ষম হন যেটি ব্যবহার করলে তিনি বিপরীত চরিত্রের একজন মানুষে পরিণত হয়ে যাবেন অর্থাৎ তার মনের যেসব খারাপ দোষ রয়েছে সেগুলো মুখ্য হয়ে উঠবে এবং তিনি সেভাবেই ইচ্ছা অনুযায়ী কিয়াজ করবেন। আবার আর একটি ঔষধ প্রয়োগ করে তিনি স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরত আসতে পারবেন। এভাবেই ডাক্তার তার মধ্যকার ভালো এবং মন্দ এই দুটো স্বভাবকে নিয়ে একই দেহের ভিতর দুটি মানুষকে লালন পালন করতে শুরু করলেন। তিনি খারাপ মানুষটির নাম দিলেন মিস্টার হাইড। এই রকম ভাবে তিনি দিনের বেলায় ডক্টর জেকিল এবং রাতে মিস্টার হাইড হয়ে জীবন যাপন করতে থাকেন। এক সময় এমন পরিস্থিতি হলো যে তিনি না চাইলেও মিস্টার হাইডে রূপান্তরিত হতে লাগলেন। দেখা গেলো যে তার দ্বিতীয় ঔষধ যা প্রয়োগ করে তিনি মিস্টার হাইড থেকে ডক্টর জেকিল হতেন তা আর কাজ করছে না। ফলে তার মনুষ্যত্বের বদলে পশুত্ব স্থায়ী হতে লাগল। এরই মধ্যে মিস্টার হাইড খুন করে বসলেন এক লোককে। তার মধ্যেকার আত্মগ্লানি থেকে রক্ষা পেতে আত্মহত্যা করলেন ডক্টর জেকিল।