টাটা গোষ্ঠী

(টাটা গ্রুপ থেকে পুনর্নির্দেশিত)

টাটা গোষ্ঠী ভারতীয় বহুজাতিক গোষ্ঠি, যার সদর দপ্তর মহারাষ্ট্রের মুম্বই শহরে অবস্থিত। জামশেদজি টাটা দ্বারা ১৮৬৮ সালে প্রতিষ্ঠিত, সংস্থাটি বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংস্থা ক্রয়ের পরে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জন করে। এটি ভারতের অন্যতম বৃহত্তম ও প্রাচীন শিল্প গোষ্ঠী। প্রতিটি টাটা কোম্পানি তার নিজস্ব পরিচালনা পর্ষদ ও শেয়ারহোল্ডারদের পরিচালনায় ও তদারকিতে স্বাধীনভাবে কাজ করে। উল্লেখযোগ্য টাটা সম্পর্কিত সংস্থাগুলির মধ্যে রয়েছে টাটা কেমিক্যালস, টাটা কমিউনিকেশনস, টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিসেস, টাটা গ্রাহক পণ্য, টাটা এলক্সি, টাটা মোটরস, টাটা পাওয়ার, টাটা স্টিল, জামশেদপুর এফসি, তানিশক, ভোল্টাস, টাটা ক্লিক, টাটা প্রজেক্টস লিমিটেড, টাটা ক্যাপিটাল, টাইটান, ট্রেন্ট, ইন্ডিয়ান হোটেল কোম্পানি লিমিটেড, তাজএয়ার, ভিস্টারা, ক্রোম ও টাটা স্টারবাকস।

টাটা গোষ্ঠী
ধরনবেসরকারি
শিল্পসমষ্টিগত
প্রতিষ্ঠাকাল১৮৬৮; ১৫৬ বছর আগে (1868)
প্রতিষ্ঠাতাজামশেদতজি টাটা
সদরদপ্তরবোম্বাই হাউস, মুম্বই, মহারাষ্ট্র, ভারত
বাণিজ্য অঞ্চল
বিশ্বব্যাপী
প্রধান ব্যক্তি
নটারাজন চন্দ্রশেকরন (চেয়ারম্যান)[১]
পণ্যসমূহ
আয়মার্কিন$১০৬ বিলিয়ন[২] (২০২০)
কর্মীসংখ্যা
৭,৫০০,০০০[২] (২০২০)
মাতৃ-প্রতিষ্ঠানটাটা সনস
অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানটাটা গোষ্ঠীর সাথে সম্পর্কিত সত্ত্বার তালিকা
ওয়েবসাইটwww.tata.com

ইতিহাস

সম্পাদনা

১৮৬৮–১৯০৪

সম্পাদনা

২৯ বছর বয়সে জামশেতজি টাটা তার বাবার সংস্থায় চাকরি করেন। ১৮৭০ সালে ২২,০০০ রুপি মূলধন নিয়ে তিনি একটি ট্রেডিং সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। এর পরে তিনি চিনপোকলিতে দেউলিয়ার তেল কল কিনে আলেকজান্দ্রা মিল নামে একটি সুতির মিলে রূপান্তর করেন, যা তিনি ২ বছর পরে লাভের জন্য বিক্রি করেন। ১৮৭৪ সালে, তিনি নাগপুরে এম্প্রেস মিল নামে আরও একটি সুতি কল স্থাপন করেন। তিনি ৪ টি লক্ষ্য অর্জনের স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেগুলি হল একটি লোহা ও ইস্পাত সংস্থা স্থাপন, একটি অনন্য হোটেল স্থাপন, একটি বিশ্বমানের শিক্ষার প্রতিষ্ঠান ও একটি জল-বৈদ্যুতিক কেন্দ্র স্থাপন। তাঁর জীবদ্দশায়, ১৯০৩ সালে, কুলাবা ওয়াটারফ্রন্টের তাজমহল হোটেলটি ভারতের বিদ্যুত সহ প্রথম হোটেল হিসাবে চালু করা হয়।

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Supreme Court stays NCLAT order restoring Cyrus Mistry as Tata Sons Executive Chairman"। ET News। ১১ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "Tata Group Business Overview"Tata Group 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা