জুলিঅ্যানা মার্গিউলিস

মার্কিন অভিনেত্রী

জুলিঅ্যানা লুইজা মার্গিউলিস (/ˈmɑːrɡjʊls/; জন্ম ৮ জুন ১৯৬৬)[১] হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী ও প্রযোজক। টেলিভিশনে কয়েকটি ছোট চরিত্রে অভিনয়ের পর তিনি এনবিসির দীর্ঘ সময় প্রচারিত চিকিৎসা নাট্যধর্মী ধারাবাহিক ইআর (১৯৯৪-২০০৯)-এ ক্যারল হ্যাথাওয়ে চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেন। এই কাজের জন্য তিনি একটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার অর্জন করেন। এই সময়ে তিনি ডায়নোসর (২০০০) চলচ্চিত্রে নীরা চরিত্রের জন্য কণ্ঠ দেন এবং দ্য মিস্টস অভ অ্যাভালন (২০০১) মিনি ধারাবাহিকে অভিনয় করেন।

জুলিঅ্যানা মার্গিউলিস
Julianna Margulies
Julianna Margulies at 2015 PaleyFest.jpg
২০১৫ সালে প্যালিফেস্টে মার্গিউলিস
জন্ম (1966-06-08) জুন ৮, ১৯৬৬ (বয়স ৫৪)
শিক্ষাসারা লরেন্স কলেজ
পেশাঅভিনেত্রী, প্রযোজক
কর্মজীবন১৯৯১-বর্তমান
বার্ষিক সম্পত্তি$২২ মিলিয়ন
দাম্পত্য সঙ্গীকিথ লাইবার্থাল (বি. ২০০৭)
সন্তান

২০০৯ সালে তিনি সিবিএসের আইনি নাট্যধর্মী ধারাবাহিক দ্য গুড ওয়াইফ (২০০৯-২০১৬)-এ প্রধান চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এই ধারাবাহিকে তার কাজ প্রশংসিত হয় এবং তিনি দুটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার, একটি করে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার ও টেলিভিশন ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার অর্জন করেন।

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

মার্গিউলিস ১৯৬৬ সালের ৮ই জুন নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের স্প্রিং ভ্যালিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতা ফ্রান্সেস্কা (বিবাহপূর্ব গোল্ডবার্গ, বিবাহউত্তর গার্ডনার) ছিলেন একজন ব্যালে নৃত্যশিল্পী ও ইউরিথমি শিক্ষক। তার পিতা পল মার্গিউলিস ছিলেন একজন লেখক, দার্শনিক ও ম্যাডিসন অ্যাভিনিউয়ের বিজ্ঞাপন নির্বাহী।[২][৩][৪] তার পিতামাতা দুজনেই ইহুদি ছিলেন। তাদের পূর্বপুরুষগণ অস্ট্রিয়া, রোমানিয়া, হাঙ্গেরি ও রাশিয়া থেকে অভিবাসিত হয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন।[৪][৫] তার মাতা তার সন্তানদের শৈশবে খ্রিষ্টধর্মে দীক্ষিত করেন, কিন্তু মার্গিউলিস নিজেকে এখনো ইহুদি বলেই স্বীকার করেন।[৬][৭]

কর্মজীবনসম্পাদনা

মার্গিউলিস ১৯৯১ সালে স্টিভেন সিগালের আউট ফর জাস্টিস চলচ্চিত্রে একজন যৌনকর্মী চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন। ১৯৯৪ সাল থেকে তিনি এনবিসির চিকিৎসা নাট্যধর্মী ধারাবাহিক ইআর (১৯৯৪-২০০৯)-এ ক্যারল হ্যাথাওয়ে চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। হ্যাথাওয়ে একজন জরুরি সেবা প্রদানকারী সেবিকা, যে শিশুরোগচিকিৎসক ডগ রসের (জর্জ ক্লুনি) সাথে তার সম্পর্কের হতাশায় আত্মহত্যার চেষ্টা করে। তার চরিত্রটিকে মৃত্যুর মধ্য দিয়ে সমাপ্ত করে দেওয়ার চিন্তা ছিল, কিন্তু প্রযোজকগণ গল্পে পরিবর্তন আনেন এবং ক্যারল হ্যাথাওয়েকে মূল কুশীলবের অংশ করেন। একই সময়ে মার্গিউলিস এনবিসির হোমিসাইড: লাইফ অন দ্য স্ট্রিটস-এ দুটি পর্বে অভিনয়ের পর তার অভিনীত চরিত্রটির বিস্তৃতির প্রস্তাব পান।[৮] কিন্তু মার্গিউলিস ইআর ধারাবাহিকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং ২০০০ সাল পর্যন্ত এই ধারাবাহিকটির পরবর্তী ছয়টি মৌসুমে কাজ করেন। এই কাজের জন্য তিনি ১৯৯৫ সালে নাট্যধর্মী ধারাবাহিকে সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার অর্জন করেন। এরপর ১৯৯৬-২০০০ পর্যন্ত টানা পাঁচবার তিনি নাট্যধর্মী ধারাবাহিকে সেরা অভিনেত্রী বিভাগে প্রাইমটাইম এমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[৯] তিনি এই ধারাবাহিকে অভিনয়ের জন্য এমি পুরস্কার অর্জন করা একমাত্র নিয়মিত কুশীলব। এছাড়া তিনি এই ধারাবাহিকের জন্য ১৯৯৭ ও ১৯৯৮ সালে দুইবার নাট্যধর্মী ধারাবাহিকে সেরা অভিনেত্রী বিভাগে স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার অর্জন করেন।

ইআর ধারাবাহিকটি ত্যাগ করার পর তিনি মঞ্চ ও চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। মঞ্চে তিনি এমসিসি থিয়েটারে কেট রবিনের ইন্টিগ্যু উইথ ফে, লিংকন সেন্টারে জন রবিন বেইট্‌জের টেন আননোনসদ্য ভ্যাজাইনা মনোলোগস নাটকে কাজ করেন। ২০০০ সালে তিনি ডায়নোসর চলচ্চিত্রে নীরা চরিত্রের জন্য কণ্ঠ দেন এবং ২০০১ সালে টিএনটির দ্য মিস্টস অভ অ্যাভালন মিনি ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্র ও বর্ণনাকারী (মর্গেইন) চরিত্রে অভিনয় করেন। ২০০২ সালে তিনি পিয়ার্স ব্রসনানের সাথে ইভলিন এবং গ্যাব্রিয়েল বায়ার্ন ও রন এলডার্ডের সাথে গোস্ট শিপ চলচ্চিত্রে কাজ করেন।

 
২০০৯ সালে ট্রাইবেকা চলচ্চিত্র উৎসবে মার্গিউলিস

২০০৯ সালে তিনি সিবিএসের আইনি নাট্যধর্মী ধারাবাহিক দ্য গুড ওয়াইফ (২০০৯-২০১৬)-এ প্রধান চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এই ধারাবাহিকে তিনি অ্যালিসিয়া ফ্লোরিক নামে একজন অ্যাটর্নি ভূমিকায় কাজ করেন, যিনি যৌন কেলেঙ্কারি ও দুর্নীতির দায়ে ইলিনয় রাজ্যের অ্যাটর্নি পদ থেকে তার স্বামী পিটার ফ্লোরিকের (ক্রিস নর্থ) বরখাস্তের পর আইনি অনুশীলন শুরু করেন।[১০] এই কাজের জন্য তিনি দুটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার, একটি করে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার ও টেলিভিশন ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১১ সালে তৃতীয় মৌসুম থেকে মার্গিউলিস দ্য গুড ওয়াইফ ধারাবাহিকের প্রযোজক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। ধারাবাহিকটি ২০১৬ সালের মে মাসে সমাপ্ত হয়।

২০১৯ সালে মার্গিউলিস দ্য গুড ওয়াইফ-এর স্পিন-অফ দ্য গুড ফাইট-এর তিনটি পর্বে তার পূর্বে অভিনীত অ্যালিসিয়া ফ্লোরিক চরিত্রে অভিনয় করেন। মার্গিউলিসের পারিশ্রমিক নিয়ে বিবাদ সৃষ্টি হয়, সিবিএস তাকে দ্য গুড ওয়াইফ-এর মত নিয়মিত তারকার পারিশ্রমিকের পরিবর্তে অতিথি শিল্পীর সমতুল্য পারিশ্রমিক দিতে চায়। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "আমি এই অনুষ্ঠানটি দেখি। আমি অনুষ্ঠানটি পছন্দ করি। কিন্তু আমি অতিথি শিল্পী নই। আপনারা আমাকে অতিথি শিল্পীর পারিশ্রমিক দিতে পারেন না।"[১১] এই বছরের নভেম্বরে ঘোষণা দেওয়া হয় যে মার্গিউলিস বিলিয়ন্স ধারাবাহিকে অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করবেন। মার্গিউলিস শোটাইমের এই ধারাবাহিকটিতে আইভি লিগ সমাজবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও বহুল বিক্রীত বইয়ের লেখক ক্যাথরিন ব্র্যান্ট চরিত্রে অভিনয় করেন।[১২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Monitor"এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি। ৭ জুন ২০১৩। 
  2. "Julianna Margulies profile at"। ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০২০ 
  3. ডেভিস, প্যাটি (২০০৯)। The Lives Our Mothers Leave Us: Prominent Women Discuss the Complex, Humorous, and Ultimately Loving Relationships They Have with Their Mothers । হে হাউজ। পৃষ্ঠা 173–174আইএসবিএন 1-4019-2162-0 
  4. Finding Your Roots, March 1, 2016, PBS
  5. ভিনসেন্ট, ম্যাল (এপ্রিল ৫, ১৯৯৮)। "Margulies nursing film career 'The Newton Boys' gives 'ER' star a meaty big-screen role"ভার্জিনিয়ান-পাইলট। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০২০ : "Actually, she's Eastern-European Jewish—Austrian, Hungarian and Romanian..."
  6. মেন্ডোজা, এন. এফ. (নভেম্বর ২৭, ১৯৯৪)। "Julianna Margulies, head nurse on 'ER,' enjoys the treatment she's getting"লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০২০ 
  7. ব্লুম, নেট (আগস্ট ১৭, ২০১০)। "Interfaith Emmy Nominees: Sedgwick, Margulies, Lea Michele and More"। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুন ২০২০ 
  8. The Story Behind "ER"। Pop network। নভেম্বর ১৩, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২০ 
  9. "Julianna Margulies - Television Academy"। এমিস। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২০ 
  10. টাকার, কেন (সেপ্টেম্বর ১৫, ২০০৯)। "The Good Wife"এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২০ 
  11. পর্টার, রিক (২১ মে ২০১৯)। "Julianna Margulies on 'Good Fight' Pay Dispute: "I Said Yes, They Said No"" (ইংরেজি ভাষায়)। দ্য হলিউড রিপোর্টার। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২০ 
  12. ওটারসন, জো (৫ নভেম্বর ২০১৯)। "'Billions' Season 5 Adds Julianna Margulies, Corey Stoll"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা