প্রধান মেনু খুলুন

জীবনযাত্রার মান বলতে বুঝাই কোন এলাকার সাধারণত দেশের সম্পদের পরিমান,মানুষের আয়, চাহিদা, আর্থ-সামাজিক অবস্থা । জীবনযাত্রার মানে অনেকগুলো উপাদান রয়েছে যেমন-চাকরি বাজার,কর্মক্ষমতা, শ্রেণী -বৈষম্য,মুদ্রাস্ফীতি, এক বছরে ছুটির পরিমান, ক্রয়ক্ষমতা, সেবার ব্যয়,শিক্ষার সহজলভ্যতা, রাজনৈতিক স্থিতীশিলতা,ধর্মীয় স্বাধীনতা,জলবায়ু,প্রকৃতিক অবস্তুা,জাতীয় অর্থনীতিক প্রবৃদ্ধি  ইত্যাদি ।

মাপকাঠিসম্পাদনা

জীবনযাত্রার মান সাধারনত হিসেব করা হয় মাথাপিছু আয় এবং দারিদ্রতার হার দিয়ে। অন্য কিছু উপাদান যেমন- শিক্ষার অবস্থা,আয়-বৃদ্ধি ইত্যাদি ও যোগ করা হয়। জীবনযাত্রার মান শব্দটি মূলত গুনগত জীবনের বিপরীত হিসেবে ধরা হয় যেখানে শুধু উপদানগত মান থাকবে না।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা