জামিয়া রহমানিয়া তায়ীদুল ইসলাম ফতেহপুর কামিল মাদ্রাসা

জামিয়া রহমানিয়া তায়ীদুল ইসলাম ফতেহপুর কামিল মাদ্রাসা বাংলাদেশের সিলেট জেলার সদর উপজেলার একটি উল্লেখযোগ্য আলিয়া মাদ্রাসা[১] এই মাদ্রাসায় আলিয়া মাদ্রাসার সর্বোচ্চ শ্রেণী কামিল শ্রেণী পর্যন্ত পাঠদান করা হয়। এটি ফতেপুর জামিয়া রহমানিয়া কামিল মাদ্রাসা নামেও পরিচিত রয়েছে।[২] এটি সদর উপজেলার সুনামগঞ্জ রোডে লামাকাজী ব্রীজ থেকে ডানদিকে আনুমানিক ৫০০ মিটার দূরে অবস্থিত। এটি বর্তমানে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রয়েছে।[৩] মাদ্রাসাটির দাখিল ও আলিম শ্রেণী বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক পরিচিত হয়ে থাকে। ১৯৭৮ সালে মাওলানা রফিক আহমেদের উদ্যোগে মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

জামিয়া রহমানিয়া তায়ীদুল ইসলাম ফতেহপুর কামিল মাদ্রাসা
মাদ্রাসার লোগো
ধরনএমপিও ভুক্ত
স্থাপিত১৯৭৮; ৪৬ বছর আগে (1978)
প্রতিষ্ঠাতামাওলানা রফিক আহমেদ
প্রাতিষ্ঠানিক অধিভুক্তি
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া (২০০৬- ২০১৬)
ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় (২০১৬- বর্তমান)
অধ্যক্ষমুহাম্মদ শামসুজ্জোহা
মাধ্যমিক অন্তর্ভুক্তিবাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড
শিক্ষার্থীআনু. ১২০০
ঠিকানা
সুনামগঞ্জ রোডের লামাকাজী ব্রীজ
, , ,
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
EIIN সংখ্যা১৩০৪৮৭
ক্রীড়াক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, ব্যাটমিন্টন
এমপিও সংখ্যা১৫১০২০২৪০১
ওয়েবসাইটhttp://130487.ebmeb.gov.bd/

ইতিহাস সম্পাদনা

মাওলানা রফিক আহমেদের নেতৃত্বে সিলেট শহরের বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদগণ একত্রিত হয়ে একটি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। মাদ্রাসাটি প্রথমে একটি দাখিল মাদ্রাসা হিসাবে আত্নপ্রকাশ করে। প্রতিষ্ঠার পরে ১৯৯৪ সালে এটি বাংলাদেশ সরকারের বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক অনুমোদন লাভ করে। ২০০০ সালে মাদ্রাসাটি সরকারের এমপিও ভুক্ত প্রতিষ্ঠান হিসাবে অনুমোদন লাভ করে। ২০১২ সালে মাদ্রাসাটি বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা শীতকালীন খেলাধুলায় বেডমিন্টন একক ও দ্বৈত প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে ২য় স্থান দখল করে।

২০০৬ সালে মাদ্রাসাটি ফাজিল ও কামিল ডিগ্রির জন্য কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত হয়।[৪] এরফলে ফাজিল ও কামিল পরীক্ষা উভয় মিলিয়ে সাধারণ শিক্ষার পূর্ণ স্নাতক ডিগ্রির সমমান লাভ করে। ২০১৬ সালে মাদ্রাসা শিক্ষাকে আধুনিকরন করার জন্য ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলে, মাদ্রাসাটি সেখানে স্থানান্তরিত করা হয়।[৫]

শিক্ষা কার্যক্রম সম্পাদনা

মাদ্রাসাটি দাখিল ও আলিম শ্রেণীর পরীক্ষায় ফলাফলে জেলার অন্যতম ভালো ফলাফল করে থাকে। এই মাদ্রাসার দাখিল ও আলিম শ্রেণীতে মানবিক ও বিজ্ঞান উভয় শাখা বিদ্যমান রয়েছে। এবং ফাজিল ও কামিল শ্রেণীতে কিছু বিভাগে অনার্স কোর্স চালু আছে। এই মাদ্রাসার ফাজিল ও কামিল শ্রেণীতে আল-কুরআন ও আল হাদিস বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু আছে।

অবকাঠামো সম্পাদনা

মাদ্রাসাটি মূলত দক্ষিণমুখি হিসাবে ইংরেজি (ইউ) অক্ষরের আকৃতিতে নির্মাণ করা হয়েছে। মাদ্রাসার সম্পূর্ণ এলাকা চতুর্দিক থেকে পাকা দেয়াল দ্বারা বেষ্টন করা আছে। মাদ্রাসাতে দুইটি আধাপাকা ভবন রয়েছে, এদের প্রত্যেকটিতে ৯টি করে শ্রেণীকক্ষ রয়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশ শিক্ষাপ্রকৌশল অধিদপ্তরের সিলেট শাখার অর্থায়নে দুই শ্রেণীকক্ষ বিশিষ্ঠ ১টি পাকা দালান নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৩ কক্ষ বিশিষ্ট একটি পাকা দালান, একটি অফিস কক্ষ, একটি ছাত্রী মিলনায়তন রয়েছে। মাদ্রাসায় একটি নলকূপ, একটি পুকুর ও মাদ্রাসা সংলগ্ন একটি মসজিদ রয়েছে। এছাড়াও মাদ্রাসায় একটি আধুনিক বিজ্ঞান পরীক্ষাগার রয়েছে।

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি সম্পাদনা

  • মোঃ নেফুর মিয়া, সচিব
  • গোলাম মোস্তফা, অধ্যাপক প্রাণীবিদ্যা বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
  • মোঃ লুৎফুর রহমান, সাবেক গনপরিষদ সদস্য
  • মোঃ আমিনুর রহমান, জেলা প্রশাসক, কুমিল্লা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "Jamia Rahmania Tayedul Islam Fatehpur Kamil Madrasa - Sohopathi | সহপাঠী" (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৭-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১০-৩০ 
  2. "ফতেপুর জামিয়া রহমানিয়া কামিল মাদ্রাসা - বাতায়ন সরকারি"sylhetsadar.sylhet.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-১০-২৯ 
  3. "আরবি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নোটিশ" (পিডিএফ)ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়। ৩০ অক্টোবর ২০২২ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ অক্টোবর ২০২২ 
  4. "আলিয়া মাদরাসার উৎপত্তি ও ক্রমবিকাশ"lekhapora24.net। ২০২১-০৮-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-১৭ 
  5. "মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নে প্রত্যাশা"SAMAKAL (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৬-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১০ 

বহিঃসংযোগ সম্পাদনা