জাপানের শিক্ষা ব্যবস্থা

জাপানে প্রাথমিক এবং নিম্ন মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা বাধ্যতামূলক।[১] জাপানে নিম্ন মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য সরকারি বিদ্যালয় জনপ্রিয়। কিন্তু বেসরকারী বিদ্যালয়সমূহ জনপ্রিয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর জাপানের পুনর্র্নির্র্মাণ ও বাণিজ্যিক সাফল্যে শিক্ষা সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছে।

জাপানের শিক্ষা ব্যবস্থা
Flag of Japan.svg
সাধারণ বিবরণ
মাতৃভাষাজাপানি
সাক্ষরতা
মোট৯৯.০% [d]
পুরুষ৯৯.৯৯%
মহিলা৯৯.৭%

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ১৯৪৭ জাপানে শিক্ষার জন্য আইন পাশ করে। সেই আইনের জন্য বর্তমানের জাপানের শিক্ষা ব্যবস্থায়ও এই আইনের প্রভাব রয়েছে। এই আইন জাপানের বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের ব্যবস্থা নির্ধারু করেছে।: ছয় বছরের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়, তিন বছরের জন্য নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, তিন বছরের জন্য উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দুই অথবা চার বছরের বিশ্ববিদ্যালয়। প্রাথমিক শিক্ষার পূর্বে শিশুদেরকে কিন্ডারগার্টেন আর ডেই কেয়ার সেন্টারে প্রধান করা হয়। পাবলিক এবং ডেই কেয়ার সেন্টার এক থেকে পাঁচ বছরের শিশুদের গ্রহণ করে। কিন্ডারগার্টেনে খেলাধুলারর মাধ্যমে শিক্ষা দেয় এবং উচ্চারণের শিক্ষা দেয়। আর তারা এমন শিক্ষা দান করে, যাতে একটি শিশু প্রাইভেট বিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। সবচেয়ে সফল এ শিক্ষা ব্যবস্থা এক অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Foreign Press Club of Japan Fact Book"। Fpcj.jp। ২০১৩-০৬-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-১৯