জাপানি পুরা-প্রস্তর যুগ

প্রত্নতাত্ত্বিক সংস্কৃতি

জাপানি পুরা-প্রস্তর যুগ (旧石器時代, কিউসেইরেকিজিদাই) বলতে জাপানে মানুষের বসতিস্থাপনের সেই যুগটিকে বোঝায় যা আনুমানিক ৪০, ০০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে শুরু হয়ে[১] আনুমানিক ১৪,০০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে স্থানীয় মধ্য-প্রস্তর যুগ বা জোমোন যুগের আরম্ভ পর্যন্ত[২] স্থায়ী ছিল। অবশ্য ৩৫,০০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দের আগে জাপান দ্বীপপুঞ্জে মানুষের উপস্থিতির নিশ্চয়তা একটি বিতর্কিত বিষয়।[৩]

অন্ত্য প্লাইস্টোসিন হিমযুগে তুষার আচ্ছাদনের অন্তিম সর্বাধিক ব্যাপ্তির সময় জাপান; আনুমানিক ২০,০০০ বছর আগে
- সমুদ্রতলের অধিক উঁচু অঞ্চল
- সাদা অংশ - উদ্ভিদবিহীন
- সমুদ্র
সূক্ষ্ম কালো রেখা বর্তমান জাপানের তটভূমি নির্দেশ করে।

অঞ্চলের প্রাচীনতম মানুষের হাড় পাওয়া গেছে শিযুওকার হামামাৎসু থেকে। তেজস্ক্রিয় তারিখ গণনার মাধ্যমে জানা গেছে জীবাশ্মগুলির বয়স ১৪,০০০ থেকে ১৮,০০০ বছরের মধ্যে।

ঘষা পাথর ও পালিশ করা যন্ত্রসম্পাদনা

 
পালিশ করা পাথরের যন্ত্র তথা কোদালের ফলা। হিনাতাবায়াশি বি ক্ষেত্র, শিনানোমাচি, নাগানো। প্রাক্‌-জোমোন (পুরা-প্রস্তর) যুগ, ৩০,০০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ। টোকিও জাতীয় জাদুঘর

জাপানি পুরা-প্রস্তর যুগের একটি স্বাতন্ত্র্য হল এই যে, এই যুগেই (৩০,০০০ খ্রিঃ পূঃ নাগাদ) জাপানের অধিবাসীরা ঘষা পাথরপালিশ করা পাথরের যন্ত্রপাতি নির্মাণ করতে পারত, যা অবশিষ্ট পৃথিবীতে নব্য প্রস্তর যুগের আগে (১০,০০০ খ্রিঃ পূঃ নাগাদ) কোথাও পাওয়া যায় না।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Hoshino Iseki Museum, Tochigi Pref.
  2. [১]"Ancient Jomon of Japan", Habu Jinko, Cambridge Press, 2004 ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৭ আগস্ট ২০০৭ তারিখে
  3. Prehistoric Archaeological Periods in Japan, Charles T. Keally
  4. "Prehistoric Japan, New perspectives on insular East Asia", Keiji Imamura, University of Hawaii Press, Honolulu, আইএসবিএন ০-৮২৪৮-১৮৫৩-৯