জাতীয় শিক্ষা দিবস (ভারত)

স্বাধীন ভারতের প্রথম শিক্ষামন্ত্রী মাওলানা আবুল কালাম আজাদের জন্মবার্ষিকী স্মরণে ভারতে জাতীয় শিক্ষা দিবস পালন করা হয়। আবুল কালাম আজাদ ১৫ আগস্ট ১৯৪৭ থেকে ১৯৫৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি অবধি দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ভারতের জাতীয় শিক্ষা দিবস প্রতি বছর ১১ নভেম্বর পালিত হয় । [১][২][৩]

মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয় ১১ ই সেপ্টেম্বর ২০০৮ এ ঘোষণা করেছিল, "ভারতের এই মহান পুত্রের জন্মদিন উদযাপনের মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতে শিক্ষাব্যবস্থায় তাঁর অবদানের কথা স্মরণ করে। ২০০৮ সাল থেকে প্রতিবছর ১১ নভেম্বর থেকে এটিকে ছুটি ঘোষণা না করে জাতীয় শিক্ষা দিবস হিসাবে উদযাপিত করা হবে। " দেশের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাক্ষরতার গুরুত্ব এবং শিক্ষার সকল দিকের প্রতি দেশের অঙ্গীকারের স্লোগান, সিম্পোজিয়া, প্রবন্ধ-রচনা, শ্রুতিমধুরতা প্রতিযোগিতা, ব্যানার কার্ড সহ ওয়ার্কশপ ও সমাবেশ করে দিবসটি উদযাপন করে।

স্বাধীন ভারতে শিক্ষাব্যবস্থার ভিত্তি স্থাপন, এবং এই ক্ষেত্রে দেশের বর্তমান ভূমিকার মূল্যায়ন ও উন্নতিতে আজাদের অবদানকে স্মরণ করার জন্য এই দিনটিকে একটি উপলক্ষ হিসাবেও দেখা হয়। [৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Maulana Abul Kalam Azad remembered on National Education Day"The Indian Express। ১২ নভেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. "National Education Day celebrated"The Hindu। ১৪ নভেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৩ 
  3. "Maulana Azad's birthday to be celebrated as National Education Day by Govt. of A.P."Siasat Daily। ৭ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৩ 
  4. "Indian National Education Day : 11th November"Technospot। ১২ নভেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০১৬