জর্জিয়া

পূর্ব ইউরোপীয় দেশ
(জর্জিয়া (রাষ্ট্র) থেকে পুনর্নির্দেশিত)

জর্জিয়া (জর্জীয়: საქართველო সাকার্ত্‌ভ়েলো) পূর্ব ইউরোপপশ্চিম এশিয়ার সংযোগস্থলের একটি আন্তঃমহাদেশীয় দেশ।এটি ককেশীয় অঞ্চলের অংশ এবং এর পশ্চিমে কৃষ্ণসাগর, উত্তর ও উত্তরপূর্বাংশে রাশিয়া,দক্ষিণ পশ্চিমাংশে তুরস্ক,দক্ষিণে আর্মেনিয়া,আর দক্ষিণপূর্বাংশ আজারবাইজান দ্বারা ঘেরা।দেশটির আয়তন ৬৯,৭০০ বর্গ কিলোমিটার(২৬,৯০০ বর্গমাইল) আর জনসংখ্যা প্রায় ৩.৭ মিলিয়ন।[১]তিবিলিসি একই সাথে দেশটির রাজধানী এবং বৃহত্তম শহর, এক-তৃতীয়াংশ জর্জিয়ান জনগোষ্ঠীর বাস এই শহরটিতেই।

জর্জিয়া

საქართველო
Sakartvelo
জর্জিয়ার জাতীয় পতাকা
পতাকা
জর্জিয়ার জাতীয় মর্যাদাবাহী নকশা
জাতীয় মর্যাদাবাহী নকশা
নীতিবাক্য: 
ძალა ერთობაშია
Dzala Ertobashia
Strength is in Unity
জাতীয় সঙ্গীত: 
თავისუფლება
Tavisupleba
Freedom
Areas under Georgian government control shown in dark green; areas outside of Georgian control but claimed as part of its sovereign territory shown in light green.
Areas under Georgian government control shown in dark green; areas outside of Georgian control but claimed as part of its sovereign territory shown in light green.
রাজধানী
ও বৃহত্তম নগরী বা বসতি
তিবি‌লিসি[a]
সরকারি ভাষাজর্জীয়[২]
কথ্য languages[৩]
নৃগোষ্ঠী
(২০০২)
জাতীয়তাসূচক বিশেষণGeorgian
সরকারUnitary semi-presidential republic[৪]
• President
Giorgi Margvelashvili
Giorgi Kvirikashvili
David Usupashvili
আইন-সভাParliament
স্বাধীনতা
13th century–164 BC
12th century BC–8th century BC
302 BC–580 AD
131 BC–697 AD
580-880 AD
767-1014 AD
১০০৮
১২ সেপ্টেম্বর ১৮০১
২৬ মে ১৯১৮
২৫ February ১৯২১
• from Soviet Union
Declared
Finalized

৯ April ১৯৯১
২৫ December ১৯৯১
আয়তন
• মোট
৬৯,৪২০ কিমি (২৬,৮০০ মা) (১২০তম)
জনসংখ্যা
• 2015 আনুমানিক
3,729,500[৫] (131st)
• 2014 আদমশুমারি
3,729,635[৬]
• ঘনত্ব
৫৩.৫ /কিমি (১৩৮.৬ /বর্গমাইল) (137th)
জিডিপি (পিপিপি)২০১৫ আনুমানিক
• মোট
$37.27 billion[৩] (১১৭তম)
• মাথাপিছু
$8,223
জিডিপি (মনোনীত)২০১৫ আনুমানিক
• মোট
$16.535 billion[৭]
• মাথাপিছু
$4,719[৭]
জিনি (২০১৩)৪০.০[৮]
মাধ্যম
মানব উন্নয়ন সূচক (২০১৪)বৃদ্ধি 0.754[৯]
উচ্চ · ৭৬তম
মুদ্রাLari (Sign of Georgian Lari (5).png) (GEL)
সময় অঞ্চলইউটিসি+৪ (GET)
গাড়ী চালনার দিকright
কলিং কোড+৯৯৫
আইএসও ৩১৬৬ কোডGE
ইন্টারনেট টিএলডি.ge .გე
  1. ^ The Seat of Parliament is in Kutaisi
জর্জিয়ার সর্বাধিক পরিদর্শন করা স্কি রিসোর্ট, গুদৌরি

প্রাচীন যুগে কোলচিস,ইবেরিয়ার মতো বিভিন্ন স্বাধীন রাজ্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো জর্জিয়ায়।চতুর্থ শতাব্দীর শুরুর দিকেই জর্জীয় উপজাতিরা খ্রিস্টধর্মে ধর্মান্তরিত হয়।যা প্রাথমিক জর্জীয় রাষ্ট্রের গোড়াপত্তনের জন্য তাদের আত্মিক ও রাজনৈতিক একতাবদ্ধ করণে ভূমিকা রাখে।মধ্যযুগে ঐক্যবদ্ধ জর্জীয় রাজ্য প্রসারিত হওয়া শুরু হয় এবং দ্বাদশ ও ত্রয়োদশ শতকে রাজা চতুর্থ ডেভিড বা David IV এবং রানী তামার বা Tamar এর শাসন আমলকে তাদের স্বর্ণযুগ বলা হয়।অত:পর রাজ্যটির পতন হয় এবং বিভিন্ন আঞ্চলিক শক্তির দ্বারা শাসিত ও উপনিবেশিত হয়।রাজ্যটি বিভিন্ন সময় মঙ্গল,তুর্কি ও পারস্যের বিভিন্ন সাম্রাজ্যের অধীনে ছিলো।১৭৮৩ সালে একটি জর্জীয় রাজ্য রাশিয়ান সাম্রাজ্যের সাথে মৈত্রী স্থাপন করে।আর এটিই উনবিংশ শতাব্দীতে শান্তিপূর্ণ ভাবে অধুনিক জর্জিয়ার রাজ্য সমূকে এক করতে ভূমিকা পালন করে। ১৯১৭ সালের রুশ বিপ্লবের পর জর্জিয়া জার্মানির নিরাপত্তায় একটি স্বাধীন প্রজাতন্ত্র গঠন করে।[১০]

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের শেষ হওয়ার পর সোভিয়েত ইউনিয়ন ১৯২২ সালে জর্জিয়ায় আক্রমণ করে এবং জর্জিয়াকে নিজের সাথে যুক্ত করে।জর্জিয়া হয়ে উঠে সোভিয়েত ইউনিয়নের একটি সাংবিধানিক প্রজাতন্ত্র।১৯৮০ এর দশক জুড়ে জর্জিয়ার স্বাধীনতা সংগ্রাম শুরু হয় ও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।যা সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে জর্জিয়াকে১৯৯১ সালের এপ্রিল মাসে বিভাজিত করে আর গঠিত হয় স্বাধীন জর্জিয়া।পরবর্তী দশক গুলতো সোভিয়েত পরবর্তী জর্জিয়া অর্থনৈতিক সমস্যা,রাজনৈতিক অস্থিরতা,জাতিগত দ্বন্দ,আবখাজিয়া আর দক্ষিণ ওশেটিয়ার বিভোজিত হওয়ার লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে যায়। ২০০৩ সালের রক্তহীন গোলাপ বিপ্লবের পর জর্জিয়া দৃঢ় ভাবে পশ্চিমা বৈদেশিক নীতি অনুসরণ শুরু করে।যা জর্জিয়ার কাছে উন্মুক্ত করে ইউরোপীয় ইউনিয়নন্যাটোর বিভিন্ন গনতান্ত্রিক ও অর্থনৈতিক লক্ষ্য সমূহকে।দেশটিকে পশ্চিমা ঢঙে সাজানো নিয়ে দ্রুতই রাশিয়ার সাথে সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে।ফলে ২০০৮ সালে শুরু হয় রুশ-জর্জীয় যুদ্ধের। সেসময়ে জর্জিয়ার একাংশকে নিজেদের অন্তর্ভুক্ত করে নেয় রাশিয়া

জর্জিয়া একটা প্রতিনিধিত্বমূলক গনতন্ত্রীয় দেশ,যেটি এককেন্দ্রিক সংসদীয় প্রজাতন্ত্র হিসেবে শাসিত হয়।[১১][১২]এটি উচ্চ মানব উন্নয়ন সূচক সম্বলিত উন্নয়নশীল একটি দেশ।স্বাধীনতার পর দেশটিতে অর্থনৈতিক সংস্কার সাধিত হয়েছে,যা একদিকে মুক্ত অর্থনীতির দুয়ার উন্মুক্ত করেছে অপরদিকে দূর্নীতি,দারিদ্রতা আর বেকারত্বের হার কে হ্রাস করতে ভূমিকা রাখছে।গাঁজাকে বৈধতা দানকারী প্রথম সারির দেশ এবিং একমাত্র সাবেক সমাজতান্ত্রিক রাজ্য। দেশটি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্য যেমনঃ কাউন্সিল অফ ইউরোপ,ওএসসিই,ইউরোকন্ট্রোল, ইবিআরডি, দ্যা বিএসইসি,দ্যা জিইউএএম,দ্যা এডিবি,দ্যা ডাব্লিউটিও এবং দ্যা এনার্জি কমিউনিটি


ব্যুৎপত্তিসম্পাদনা

ইতালীয় ভাষায় ১৩২০ খ্রিস্টাব্দে পিয়েত্রো ভেস্কন্টের মাপ্পা মুন্ডিতে "জর্জিয়া" নামটির প্রথম উল্লেখ রয়েছে।[১৩] প্রথম দিককার উল্লেখে ল্যাটিন বিশ্বে জর্জিয়া সর্বদা একই ট্রান্সলিটারেশনে লেখা হয়নি এবং এর প্রথম ব্যঞ্জণবর্ণ কে জে(J) ধরে তারা "জর্গিয়া"(Jorgia) হিসাবে বানান লিখতো।[১৪]"জর্জিয়া" সম্ভবত জর্জিয়ানদের পারস্য নাম থেকে উদ্ভূত - গুরগান, যা একাদশ এবং দ্বাদশ শতাব্দীতে সিরিয়াক গুর্জআন / গুর্জইয়ান এবং আরবি জুরজান / জুরযান থেকে এসেছিলো।পরিব্রাজক জ্যাকস ডি ভিট্রি লোর ভিত্তিক তত্ত্ব দিয়েছিলেন,তিনি জর্জিয়ানদের মধ্যে সেন্ট জর্জের জনপ্রিয়তা থাকায় সেখান থেকেই নামটির উৎপত্তি বর্ণনা করেছিলেন।[১৫] পরিব্রাজক জঁ চার্ডিন ভেবেছিলেন যে "জর্জিয়া" গ্রীক শব্দ γεωργός( '"চাষের ভূমি'")। অধ্যাপক আলেকজান্ডার মিকাবেরিডজে লিখেছেন যে, জর্জিয়া /জর্জিয়ান শব্দটির উৎপত্তির জন্য এই শতাব্দীর-পুরানো ব্যাখ্যাগুলি পণ্ডিত মহল দ্বারা প্রত্যাখ্যাত হয়েছে,যারা পারস্য শব্দ গুর্গ /গুরগান ("নেকড়ে"[১৬])কে শব্দটির মূল হিসাবে উল্লেখ করে।[১৭]পারস্য শব্দ গুর্গ/গুরগান থেকে শুরু হয়ে, পরবর্তীতে এই শব্দটি স্লাভিক এবং পশ্চিম ইউরোপীয় ভাষাসহ আরও অনেক ভাষায় গৃহীত হয়।[১৮]

সম্ভবত এই শব্দটি নিকটবর্তী কাস্পিয়ান অঞ্চলের প্রাচীন ইরানি আপিলের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, যা গোর্গান ("চাষের ভূমি") হিসাবে উল্লেখ করা হত। স্থানীয় নাম সাকার্টভিলো (ইংরেজি ভাষায়) "কার্টভেলিয়ানদের ভূমি"), কার্টলির মূল কেন্দ্রীয় জর্জিয়ান অঞ্চল থেকে উদ্ভূত, যা ৯ম শতাব্দী থেকে রেকর্ড করা হয়েছে এবং ১৩ তম শতাব্দীর মধ্যে জর্জিয়ার সমগ্র মধ্যযুগীয় রাজ্যের উল্লেখ করে। জাতিগত জর্জিয়ানদের দ্বারা ব্যবহৃত স্ব-উপাধি হল কার্টভেলেবি (অর্থাৎ "কার্টভেলিয়ানস")। মধ্যযুগীয় জর্জিীয় ক্রনিকলস, ক্যাপ্টোলোস, ক্যাপ্টোলোস, জাফহেথের একজন মহান-নাতির নামধারী পূর্বপুরুষ। যাইহোক, পণ্ডিতরা একমত যে শব্দটি কার্টস থেকে প্রাপ্ত, পরেরটি প্রোটো-জর্জিয়ার গোত্রগুলির একটি যা প্রাচীনকালে প্রভাবশালী গ্রুপ হিসেবে আবির্ভূত হয়। নাম Sakartvelo (საქართველო) দুটি অংশ গঠিত। মূল রুট, কার্টেল-ই (আয়ারল্যান্ড), কার্তলির মূল কেন্দ্রীয়-পূর্বাঞ্চলীয় জর্জিয়ার অঞ্চলের বাসিন্দাকে নির্দিষ্ট করে দেয়, বা ইবেরিয়া হিসাবে এটি পূর্ব রোমান সাম্রাজ্যের উত্সগুলিতে পরিচিত। প্রাচীন গ্রিক (স্ট্রাবো, হেরোডোটাস, প্লুটার্চ, হোমার, ইত্যাদি) এবং রোমান (তিতাস লিভিয়াস, টেসিটাস ইত্যাদি) প্রাথমিক পশ্চিমগরিস্টদেরকে কলচিয়ান এবং পূর্ব জর্জিয়ানস হিসেবে ইবিরিয়ান্স (কিছু গ্রিক সূত্রের মধ্যে ইবেরাও) হিসাবে উল্লেখ করেছেন। আজ জর্জিয়ার সংবিধানের ইংরেজি সংস্করণে উল্লেখ করা হয়েছে যে, "জর্জিয়া জর্জিয়ার রাষ্ট্রের নাম হবে।" ১৯৯৫ সালের সংবিধান কার্যকর হওয়ার আগে দেশটির পূর্ণ, সরকারী নাম "জর্জিয়া" দেশের নাম জর্জিয়া প্রজাতন্ত্র ছিল।

ইতিহাসসম্পাদনা

প্রাগৈতিহাসিকসম্পাদনা

আধুনিক দিনের জর্জিয়ার অঞ্চলটি পলোলিথিক যুগের পরে হোমো ইরেক্টাস দ্বারা বাস করত। প্রোটো-জর্জিয়ার জনসাধারণ প্রাথমিকভাবে ১২ শতকের বিসি-র লিখিত ইতিহাসে আবির্ভূত হয়। জর্জিয়ায় ওয়াইনের প্রাচীনতম প্রমাণ পাওয়া গেছে, যেখানে ৮,০০০ বছরের পুরানো ওয়াইন জারগুলি আবিষ্কৃত হয়েছিল। প্রাচীন উৎসের প্রত্নতাত্ত্বিক অনুসন্ধান এবং রেফারেন্সগুলি প্রাথমিক, রাজনৈতিক এবং রাষ্ট্রীয় গঠনগুলির উপাদানগুলিও প্রকাশ করে, যা উন্নত ধাতুবিদ্যা এবং স্বর্ণকার কৌশলগুলি দ্বারা খ্রিস্টপূর্ব ৭ম শতাব্দী এবং তার পরেও চিহ্নিত করা হয়। প্রকৃতপক্ষে, খ্রিস্টপূর্ব ৬ষ্ঠ সহস্রাব্দের সময় জর্জিয়ায় প্রারম্ভিক ধাতুবিদ্যা শুরু হয়েছিল, যা শুলাভেরি-শোমু সংস্কৃতির সাথে যুক্ত ছিল।

প্রাচীনত্বসম্পাদনা

শাস্ত্রীয় যুগটি বেশ কয়েকটি জর্জিয়ার রাজ্যের উত্থান ঘটেছিল, এর প্রধান ছিল পশ্চিমে কোলচিস এবং পূর্বে ইবেরিয়া। চতুর্থ শতাব্দীর বিংশ শতাব্দীতে, জর্জিয়ার একটি একীভূত রাজ্য - একটি রাজ্যের অধীন উন্নত রাষ্ট্র সংগঠনের একটি প্রাথমিক উদাহরণ এবং একটি অভিজাত শ্রেণীকরণ - প্রতিষ্ঠিত হয়।

গ্রিক পৌরাণিক কাহিনীতে, কোলচিস ছিলেন অ্যাপোলোনিয়াস রডিয়াসের মহাকাব্য কাহিনী আর্গনটিকাতে জেসন এবং আর্গনোটস দ্বারা পরিচালিত গোল্ডেন ফ্লাইয়ের অবস্থান। পুরাণে গোল্ডেন ফ্লাই এর অন্তর্ভুক্তি নদী থেকে সূর্যের ধূলিকণা ছিটানোর জন্য স্থানীয় অভ্যাস থেকে উদ্ভূত হতে পারে। ইগ্রিসি বা ল্যাজিকা হিসাবে তার স্থানীয়দের পরিচিত, কোলচিস এছাড়াও বেজান্তানি সাম্রাজ্য এবং সাসানিদ পার্সিয়া মধ্যে যুদ্ধ ল্যাজিক যুদ্ধের যুদ্ধক্ষেত্র ছিল।

রোমান প্রজাতন্ত্রের ৬৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দে জর্জিয়া যা এখন তার সংক্ষিপ্ত বিজয় সম্পন্ন হওয়ার পরে, এই এলাকাটি ৭০০ বছর ধরে দীর্ঘস্থায়ী ইরানো-রোমান ভূ-রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও যুদ্ধের শেষ প্রান্তের একটি প্রাথমিক লক্ষ্য হয়ে ওঠে।

প্রথম শতাব্দী থেকে এ.ডি., মিথুন, বৌদ্ধ বিশ্বাস এবং জোরেস্টিয়ানিজমের ধর্মাবলম্বী জর্জিয়াতে সাধারণত প্রচলিত ছিল। ৩৩৭ খ্রিষ্টাব্দে রাজা মিরিয়ান তৃতীয় খ্রিস্টধর্মকে রাষ্ট্র ধর্ম হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন, সাহিত্য, শিল্পের উন্নয়নে একটি মহান উদ্দীপনা প্রদান করে এবং পরিশেষে ঐক্যবদ্ধ জর্জিয়ার জাতি গঠনে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে স্বীকৃতিস্বরূপ সাম্রাজ্যবাদী ধর্মের ধীর কিন্তু নিশ্চিতভাবে হ্রাস, যা ৫ম শতাব্দী পর্যন্ত আইবারিয়ায় (পূর্ব জর্জিয়া) একটি দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠিত ধর্মের মত হয়ে উঠেছিল এবং সেখানে ব্যাপকভাবে প্রচলিত ছিল। আসন্ন সময়ের মধ্যে, ৭ম শতাব্দীর পথ পর্যন্ত, এখন কি জর্জিয়া রোমানস ং Sasanians দ্বারা প্রভাবিত ছিল।

সরকার ও রাজনীতিসম্পাদনা

জর্জিয়ার রাজনীতি একটি অর্ধ-রাষ্ট্রপতিশাসিত প্রতিনিধিত্বমূলক বহুদলীয় গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কাঠামোয় সংঘটিত হয়। রাষ্ট্রপতি হলেন রাষ্ট্রের প্রধান। সরকারপ্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রের নির্বাহী ক্ষমতা সরকারের উপর ন্যস্ত। আইন প্রণয়নের ক্ষমতা সরকার এবং আইনসভা উভয়ের উপর ন্যস্ত।

প্রশাসনিক অঞ্চলসম্পাদনা

অর্থনীতিসম্পাদনা

যোগাযোগ ব্যবস্থাসম্পাদনা

সংস্কৃতিসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Circle। "Population and Demography - National Statistics Office of Georgia"www.geostat.ge (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-০৪ 
  2. "Article 8", Constitution of Georgia . In Abkhazia, also আবখাজিয়ান.
  3. "CIA Factbook Georgia"। Cia.gov। অক্টোবর ১৬, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১২ 
  4. Moved in 2013 from a president-parliamentary system to a premier-presidential system.
  5. "Number of Population as of January 1, 2015 — National Statistics Office of Georgia" (পিডিএফ)। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. "Preliminary Results of 2014 General Population Census of Georgia — National Statistics Office of Georgia" (পিডিএফ)। ১ মে ২০১৫ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৫ 
  7. "Georgia"। International Monetary Fund। সংগ্রহের তারিখ জুন ৫, ২০১৫ 
  8. "Gini Index"। World Bank। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২১, ২০১৫ 
  9. "2015 Human Development Report" (পিডিএফ)। United Nations Development Programme। ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  10. Jones, Stephen (১৯৮৮-১০-০১)। "The establishment of Soviet power in Transcaucasia: The case of Georgia 1921–1928"Soviet Studies40 (4): 616–639। আইএসএসএন 0038-5859ডিওআই:10.1080/09668138808411783 
  11. "Consolidating Parliamentary Democracy in Georgia | UNDP in Georgia"web.archive.org। ২০২১-০৬-১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-০৪ 
  12. "CONSTITUTION OF GEORGIA"სსიპ ”საქართველოს საკანონმდებლო მაცნე” (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-০৪ 
  13. Rouben Galichian (2007) Countries South of the Caucasus in Medieval Maps: Armenia, Georgia and Azerbaijan. pp. 188—189.
  14. Boeder; et al. (2002). Philology, typology and language structure. Peter Lang. p. 65. ISBN 978-0820459912
  15.  Peradze, Gregory. "The Pilgrims' derivation of the name Georgia". Georgica, Autumn, 1937, nos. 4 & 5, 208–209
  16. Hock, Hans Henrich; Zgusta, Ladislav (1997). Historical, Indo-European, and Lexicographical Studies. Walter de Gruyter.page-  211. ISBN 978-3-11-012884-
  17. Mikaberidze, Alexander (২০১৫-০২-০৬)। Historical Dictionary of Georgia (ইংরেজি ভাষায়)। Rowman & Littlefield। আইএসবিএন 978-1-4422-4146-6 
  18. Boeder, Winfried; Bublitz, Wolfram; von Roncador, Manfred; Vater, Heinz (2002). Philology, typology and language structure. Peter Lang. p. 65. ISBN 978-0-8204-5991-2. The Russian designation of Georgia (Gruziya) also derives from the Persian gurg.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

সরকার