ছুটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কর্তৃক বাংলা ভাষায় রচিত একটি ছোটগল্প।[১][২][৩] এটি ১২৯৯ বঙ্গাব্দের পৌষ মাসে রচিত। এটি ১৮৯২ সালে 'সাধনা' পত্রিকায় প্রথম প্রকাশিত হয়। বিষাদকরুণ এই গল্পটি গল্পগুচ্ছে অন্তর্ভুক্ত আছে।[২][৪]

ফটিক নামে প্রকৃতি লালিত এক বালক স্বভূমিচ্যুত হয়ে নাগরিক পরিবেশে নিজেকে বিচ্ছিন্ন ভাবে। সেখানকার প্রতিকূল পরিস্থিতি ও প্রীতিহীন পরিবেশ তাকে অস্থির করে তোলে। সে সেখানে নিজেকে খাপ খাওয়াতে পারে না। অবশেষে এক বর্ষাস্নাত দিনে জ্বরাক্রান্ত শরীরে বাড়ি যাবে বলে বেরিয়ে পড়ে। প্রচন্ড জ্বর বিকার গ্রস্ত অবস্থায় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে আনে। সে মামার কাছে বাড়ি যাবার বায়না ধরলে তিনি জানান পূজার ছুটিতে বাড়ি যাবেন। বিকারের ঘোরে সে কথা বলতে থাকে। মা ছুটে এসে তাকে জড়িয়ে ধরলে সে বলে, "মা, এখন আমার ছুটি হয়েছে মা, এখন আমি বাড়ি যাচ্ছি।" এ ছুটি চিরকালের ছুটিতে পরিণত হয়।[৪][৩][৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "আইটি বিশ্ব | Jugantor | Most Popular Bangla News | Entertainment | Breaking News"Jugantor (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৭ 
  2. "রবীন্দ্র রচনাবলী | রবীন্দ্র রচনাবলী"rabindra-rachanabali.nltr.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৭ 
  3. Sufi, The Film। ""Chhooti", Stories by Rabindranath Tagore - Debatma Mandal (2015)" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০৪ 
  4. Foundation Guide Book, Part-I (B.A., B.Sc., B.Com), 3rd edition, Compiled by Das & Chakroborty (Under Tripura University)। Sreema Prakashani। ২০১১। 
  5. "Chhuti: short story by Rabindranath Tagore"Literature Analysis। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা