গোলাম রব্বানী ছোটন

বাংলাদেশী পেশাদার ফুটবল কোচ ও সাবেক খেলোয়াড়

গোলাম রব্বানী ছোটন (জন্ম: ২ জুলাই ১৯৬৮; গোলাম রব্বানী নামে সুপরিচিত) হলেন একজন বাংলাদেশী সাবেক ফুটবল খেলোয়াড় এবং প্রশিক্ষক। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দল এবং বাংলাদেশের বয়সভিত্তিক নারী দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন।[১][২][৩][৪][৫] ছোটন তার খেলোয়াড়ি জীবনের অধিকাংশ সময় ফকিরেরপুল এবং আরামবাগের হয়ে একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন।

গোলাম রব্বানী
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম গোলাম রব্বানী ছোটন
জন্ম (1968-07-02) ২ জুলাই ১৯৬৮ (বয়স ৫৪)
জন্ম স্থান বগুড়া, বাংলাদেশ
মাঠে অবস্থান রক্ষণভাগের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান দল
বাংলাদেশ মহিলা (কোচ)
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
১৯৮৩–১৯৮৬ বাসাবো
১৯৮৭–১৯৯০ ফকিরেরপুল
১৯৯১–১৯৯৩ ওয়ারী
১৯৯৪ ফকিরেরপুল
১৯৯৫–২০০১ আরামবাগ
২০০২ বিআরটিসি
পরিচালিত দল
১৯৯৩–১৯৯৪ টিএন্ডটি
১৯৯৬–২০০৫ টিএন্ডটি
২০০৫ দিপালী
২০১৩– বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-১৪
২০১৩– বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-১৭
২০০৯– বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-২০
২০০৯– বাংলাদেশ মহিলা
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

১৯৮৩–৮৪ মৌসুমে, বাংলাদেশী ক্লাব বাসাবোর হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছিলেন, যেখানে তিনি ৩ মৌসুম অতিবাহিত করেছিলেন। অতঃপর ১৯৮৭–৮৮ মৌসুমে তিনি ফকিরেরপুলে যোগদান করেছিলেন। ফকিরেরপুলে ৩ মৌসুম অতিবাহিত করার পর ওয়ারীর সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন। পরবর্তীকালে, তিনি ফকিরেরপুল এবং আরামবাগের হয়ে খেলেছিলেন। সর্বশেষ ২০০১–০২ মৌসুমে, তিনি আরামবাগ হতে বিআরটিসিতে যোগদান করেছিলেন; বিআরটিসির হয়ে মাত্র ১ মৌসুম খেলার পর তিনি অবসর গ্রহণ করেছিলেন।

১৯৯৩ সালে, ছোটন বাংলাদেশী ফুটবল ক্লাব টিএন্ডটির ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করার মাধ্যমে ম্যানেজার হিসেবে ফুটবল জগতে অভিষেক করেন। টিএন্ডটির হয়ে মাত্র ১ মৌসুম ম্যানেজারের দায়িত্ব ছাড়ার পর ১৯৯৬–৯৭ মৌসুমে তিনি পুনরায় টিএন্ডটির ম্যানেজারের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন, দ্বিতীয় বার তিনি টিএন্ডটির ম্যানেজার হিসেবে প্রায় ১০ মৌসুম অতিবাহিত করেছেন। অতঃপর তিনি দিপালীতে ম্যানেজার হিসেবে যোগদান করেন। ২০০৯ সালে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দলের ম্যানেজারের দায়িত্বের পাশাপাশি বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-২০ দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।[৬] পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-১৪ এবং বাংলাদেশ মহিলা অনূর্ধ্ব-১৭ দলের ও ম্যানেজারের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। ম্যানেজার হিসেবে, ছোটন এপর্যন্ত ৭টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ২০১৮ সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপ এবং ২০২২ সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয় অন্যতম।[৭][৮]

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

গোলাম রব্বানী ছোটন ১৯৬৮ সালের ২রা জুলাই তারিখে বাংলাদেশের বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেছেন এবং তার শৈশব সেখানে অতিবাহিত করেছেন।

অর্জনসম্পাদনা

ম্যানেজারসম্পাদনা

বিজয়ী (১) : ২০২২
রানার-আপ (১) : ২০১৬
ব্রোঞ্জ পদক (২) : ২০১০, ২০১৬
বিজয়ী (১) : ২০২১
বিজয়ী (১) : ২০১৮
বিজয়ী (১) : ২০১৯
বিজয়ী (১) : ২০১৭
রানার-আপ (২) : ২০১৮, ২০১৯
  • এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ নারী আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপ – দক্ষিণ এবং মধ্য
বিজয়ী (২) : ২০১৫, ২০১৬

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Bangladesh women U-16 team leaves for Thailand today"The Independent। ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  2. "Our target is to go match by match: Choton"Bangladesh Football Federation। ২০১৭-০৯-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  3. "Bangladesh will relish the SAFF challenge: Choton"Bangladesh Football Federation। ২০১৯-০৩-১১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  4. FIFA.com। "Member Association - Bangladesh - FIFA.com"www.fifa.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০২০ 
  5. "Golam Robbani Choton"Global Sports Archive। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  6. "Championship to enhance women's football in South Asia"kuenselonline। ২০১৮-০৯-২৮। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  7. "Bangladesh win SAFF U-18 Women's title"Banglanews24.com। ৭ অক্টোবর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ 
  8. [নেপালকে ৩–১ গোলে হারিয়ে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ জিতল বাংলাদেশ "https://www.prothomalo.com/sports/3yydxnq8hw"] |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)দৈনিক প্রথম আলো। ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২  |title= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)

বহিঃসংযোগসম্পাদনা