গোর

গাজী রাকায়েত পরিচালিত চলচ্চিত্র

গোর বাংলাদেশে নির্মিত একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য নাট্য চলচ্চিত্রবাংলাদেশ সরকারের অনুদান ও ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য রচনা ও পরিচালনা করেছেন গাজী রাকায়েত। একজন গোরখোদকের গল্প নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রের মূল ভূমিকায় অভিনয় করেন গাজী রাকায়েত, মৌসুমী হামিদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, আশিউল ইসলাম, সুষমা সরকার, এ কে আজাদ সেতু, দীপান্বিতা মার্টিন, ওমর ফারুক প্রমুখ।[৫] ২০১৮ সালে অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে দোহারের গ্রামীণ পরিবেশে এটির চিত্রায়ন করা হয়। বাংলার পাশাপাশি একই চিত্রনাট্যে চলচ্চিত্রটি ইংরেজি ভাষায় দ্য গ্রেভ শিরোনামে সমান্তরালে নির্মিত হয়। এটি ইংরেজি ভাষায় নির্মিত বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র।[৪] গোর ২০২০ সালের ২৫ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। ৪৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে চলচ্চিত্রটি ১১টি বিভাগে পুরস্কার লাভ করে।[৬] চলচ্চিত্রটি ৯৪তম একাডেমি পুরস্কার বা অস্কারের সাধারণ বিভাগে প্রথম বাংলাদেশী চলচ্চিত্র হিসেবে প্রতিযোগিতা করার জন্যও জমা দেওয়া হয়েছিল।[৭] একই সাথে এটি অস্কারের অনুস্মারক তালিকায় এসেছিল।[৮]

গোর
গোর চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
পরিচালকগাজী রাকায়েত
প্রযোজকফরিদুর রেজা সাগর[১]
চিত্রনাট্যকারগাজী রাকায়েত
কাহিনিকারগাজী রাকায়েত
উৎসগোর (নাটক), ১৯৯৮
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারমোঃ ফজলে কাদের স্বাধীন
চিত্রগ্রাহক
  • পঙ্কজ পালিত
  • নিয়াজ মাহবুব
সম্পাদকমোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম রাসেল
প্রযোজনা
কোম্পানি
ইমপ্রেস টেলিফিল্ম
চারুনিরম অডিও ভিজুয়াল লিমিটেড
পরিবেশকইমপ্রেস টেলিফিল্ম (বাংলাদেশ)
ইলিয়ট ক্যানবার (যুক্তরাষ্ট্র)[৩]
মুক্তি
  • ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ (2020-12-25) (বাংলাদেশ)
  • ১৪ মে ২০২১ (2021-05-14) (লস এঞ্জেলেস)
দৈর্ঘ্য১৩২ মিনিট[৪]
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা, ইংরেজি
নির্মাণব্যয় ৬০ লাখ (প্রযোজনা)

কাহিনিসংক্ষেপসম্পাদনা

জোয়ারের জলোচ্ছ্বাসে পরিবার ও মেয়েকে হারানো শিরজা মিয়া (গাজী রাকায়েত), এখন একজন মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি। তিনি এখন ভিক্ষা করেন, তবে ভিক্ষাবৃত্তি তার জীবনধারণের মূল উদ্দেশ্য নয়। তিনি একজন গোরখোদক। ভিক্ষার মাধ্যমে মানুষের মৃত্যুসংবাদ অনুসন্ধান করেন। এভাবে তিনি ৯৭টি কবর খুড়েছেন। তার লক্ষ্য একশোটি কবর খোঁড়া। মৃত্যুর সংবাদের জন্য অপেক্ষা আর কবর খোঁড়ার জন্য তিনি গ্রামে গ্রামে ঘুরে বেড়ান। এ সংখ্যাটা ৯৮ পর্যন্ত ওঠে। এরপর শুরু হয় তার লক্ষ্য অর্জনের প্রতীক্ষা।

শিরজা যখন যুবক ছিলেন তখন তিনি একটি চরে আসেন এবং বিয়ে করেন। তাদের রাহেলা (গাজী আমাতুন নুর) নামে একটি সুন্দরী কন্যা ছিল। কাজের জন্য তাকে একবার শহরে যেতে হয়। রাহেলা শহর থেকে তাকে একটি পুতুল আনতে বলে। শহর থেকে চরে ফেরত আসার সময় শিরজা একটি পুতুল কিনেন, তবে খারাপ আবহাওয়ার কারণে তিনি সেদিন চরে ফিরে আসতে পারেননি। পরের দিন তিনি শুনতে পান যে জোয়ারের জলোচ্ছ্বাসে চরটি ভেসে গেছে। তিনি চরে ফিরে আসেন কিন্তু মেয়ে ও স্ত্রীকে কোথাও খুঁজে পান না। চরে চারদিকে মৃতদেহ পড়ে ছিল। এ সময় তিনি কবর খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করেন।

এখন তার জীবনে মাত্র দুটি সম্পত্তি রয়েছে। একটি হল পুতুল যেটি তিনি তার মেয়ের জন্য কিনেছিলেন এবং অন্যটি হল এমন একটি সংখ্যা যা তিনি তার পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে পেয়েছিলেন। তাঁর পূর্বপুরুষরা বিশ্বাস করত যে, কেউ যদি একশত কবর খনন করতে পারে তবে তাকে অবশ্যই স্বর্গ দেওয়া হবে। কিন্তু কেউই কখনও লক্ষ্যে পৌঁছতে পারেনি। তিনি বিশ্বাস করেন যে পরিত্রাণের একমাত্র উপায় হল একশত কবর খনন করা, যাতে তিনি সরাসরি স্বর্গে যেতে পারেন এবং তার পরিবারের সাথে দেখা করতে পারেন। এভাবে তিনি ৯৯টি কবর খনন করেন। তার লক্ষ্য শত শত কবর খনন করা। মানুষের মৃত্যুর সংবাদের অপেক্ষায় এবং কবর খোঁড়ার জন্য তিনি গ্রাম থেকে গ্রামে ঘুরে বেড়ান। তারপরে তার লক্ষ্য অর্জনের জন্য অপেক্ষা শুরু হয়, একই সাথে তার মৃত কন্যার মতো দেখতে একটি মেয়ের সাথে বড় সংকটে পড়েন।

কুশীলবসম্পাদনা

গোর চলচ্চিত্রের মূখ্য অভিনয়শিল্পীদের তালিকা (বাংলা ট্রিবিউন, দ্য ডেইলি স্টার ও সমাপনী দৃশ্য হতে অভিযোজিত)[৪][৫]

শিশুশিল্পী

  • রাহালা, সোবার মেয়ে চরিত্রে গাজী আমাতুন নূর দ্যুতি
  • রেহালা, শিরজার মেয়ে চরিত্রে জারিফা তাসনিম অবনি
  • ময়না চরিত্রে চিত্রপথ তেপান্তর

অন্যান্য অভিনয়শিল্পী

  • সুলতান চরিত্রে মাহমুদ আলম চঞ্চল
  • মুগদাম চরিত্রে হাসান মেহেদী লাল্টু
  • ১ম ভদ্রলোক চরিত্রে শামীম আল মামুন
  • ২য় ভদ্রলোক চরিত্রে মামুনুর রশিদ
  • ৩য় ভদ্রলোক চরিত্রে আখন্দ জাহিদ
  • গ্রামের মহিলা চরিত্রে নমিতা দাস
  • আঞ্চুর স্ত্রী চরিত্রে নুরুন নাহার বেগম
  • আঞ্চুর পুত্রবধূ চরিত্রে তাজকিয়া
  • ইমাম ১ চরিত্রে গাজী লিয়াকত আলী
  • ছোট ছেলে চরিত্রে রোমান শুভ
  • তরুণ ছেলের বন্ধু চরিত্রে সোহেল হাসান সনি
  • তরুণ মুরুব্বি চরিত্রে শাহিন আলম
  • ভদ্রলোক চরিত্রে রতন সিদ্দিক
  • তাঁত শ্রমিক চরিত্রে মুক্তার আহমেদ
  • কৃষক চরিত্রে এবিএম শহীদুল হক
  • মুন্সি চরিত্রে অভি আলামিন
  • ইমাম ২ চরিত্রে ফয়সুল রবিন
  • লিয়াকত রাহি রতন
  • জুলহাশ চরিত্রে শেখ তাহিয়াত
  • অর্চনার ভাই চরিত্রে আলমগীর সাগর

এছাড়া চারুনিরম অভিনয় বিদ্যালয়ের ছাত্ররা দোলযাত্রার দৃশ্যে অভিনয় করেছিল।

প্রযোজনাসম্পাদনা

১৯৯৭ সালে গাজী রাকায়েতের চিত্রনাট্য ও অভিনয়ে গোর নামে সালাহউদ্দিন লাভলু ৫৫ মিনিটের একটি নাটক নির্মাণ করেছিলেন। নাটকটি পরের বছর ১৯৯৮ সালে প্রচার হয়েছিল।[৯] গোর মূলত সেই চিত্রনাট্যের চলচ্চিত্র উপযোগী বর্ধিত সংস্করণ।[৫] ইংরেজি সংস্করণের জন্য চিত্রনাট্যটি আব্দুস সেলিম অনুবাদ করেন।[১] ২০১৮ সালে চলচ্চিত্রটি বাংলা ভাষায় নির্মাণের জন্য গাজী রাকায়েত বাংলাদেশ সরকারে হতে ৬০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছিলেন।[১০] পরবর্তীতে সহ-প্রযোজনা ও নির্মাণ সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশের ইমপ্রেস টেলিফিল্ম চলচ্চিত্রটির সাথে যুক্ত হয়।[১] চলচ্চিত্রের সম্পূর্ণ চিত্রায়ন হয়েছে দোহারের শাইনপুকুর গ্রামে। এই ছায়াছবির শিল্প নির্দেশক উত্তম গুহ চিত্রগ্রহণের জন্য একটি পরিত্যক্ত জঙ্গল পরিষ্কার করে সম্পূর্ণ নতুন গৃহস্থলী পরিবেশ তৈরী করেছিলেন।[১১][১২] ২০১৮ সালের অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে চিত্রগ্রহণ করা হয়েছিল।[১৩][টীকা ১] পৃথক চিত্রায়নের জন্য শিল্পীরা একই সাথে বাংলা ও ইংরেজিতে সংলাপ প্রক্ষেপণ করেছিলেন।[১][৫]

প্রচারণা ও মুক্তিসম্পাদনা

গোর ও "দ্য গ্রেভ" চলচ্চিত্রটির ইংরেজি ও বাংলাভাষার সমন্বিত ট্রেইলার প্রকাশিত হয় ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর।[৫] এছাড়া চলচ্চিত্রের প্রচার মূলত সংবাদ সম্মেলন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করা হয়।(#বহিঃসংযোগ) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড হতে বাংলা ও ইংরেজি ভাষার সংস্করণ দুইটি প্রদর্শনের জন্য পৃথক অনুমতি দেয়।[১] ২৫ ডিসেম্বর হতে একই সাথে বাংলা ও ইংরেজি সংস্করণ দুইটি বাংলাদেশের কতিপয় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়।[১৪] চলচ্চিত্রটি ২০২১ সালের ১৫ জানুয়ারি লস এঞ্জেলেসে আন্তর্জাতিক মুক্তির জন্য পরিকল্পিত ছিল।[১২] পরবর্তীতে ১৪ মে ইলিয়ট ক্যানবারের পরিবেশনায়[৪] লস এঞ্জেলেসের উত্তর হলিউড এলাকার লেমলে প্রেক্ষাগৃহে প্রথম বাংলাদেশী চলচ্চিত্র হিসেবে বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি পায়।[১৫][১৬]

মূল্যায়নসম্পাদনা

গোর মুক্তির পর বাংলা মুভি ডেটাবেজে-এ একটি আনুষ্ঠানিক সমালোচনা অর্জন করে। সমালোচক রহমান মতি, কলাকুশলীদের অভিনয়, নেপথ্য সঙ্গীতের পরিমিত ব্যবহার ও ছায়াছবির গল্পের সাহিত্যগুণ প্রশংসা করেন। তিনি চলচ্চিত্রটিকে সার্বিকভাবে            রেটিং দেন।[১৭]

পুরস্কারসম্পাদনা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

চলচ্চিত্রটি ৪৫তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ১১টি বিভাগে পুরস্কার লাভ করে।[৬]

পুরস্কারের নাম বিজয়ী চলচ্চিত্র
শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র গাজী রাকায়েত ও ফরিদুর রেজা সাগর গোর
বিশ্বসুন্দরী
শ্রেষ্ঠ পরিচালক গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী দীপান্বিতা মার্টিন গোর
শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার গাজী রাকায়েত গোর
শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক শরিফুল ইসলাম গোর
শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশক উত্তম গুহ গোর
শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক পঙ্কজ পালিতমাহবুব উল্লাহ নিয়াজ গোর
শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক কাজী সেলিম আহম্মেদ গোর
শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জা এনামতারা বেগম গোর
শ্রেষ্ঠ রূপসজ্জাকার মোহাম্মদ আলী বাবুল গোর

টীকাসম্পাদনা

  1. ২০১৮ সালের ১-১৬ অক্টোবর এবং নভেম্বরের ১-১০ তারিখ পর্যন্ত চলচ্চিত্রটির দৃশ্যধারণ করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "এবার ছাড়পত্র পেল 'দ্য গ্রেভ'"প্রথম আলো। ২০২০-০১-১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  2. "আবারও ছবিতে মৌসুমী হামিদ"দৈনিক যুগান্তর। ২০১৮-১০-১৫। ২০২১-০২-০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-২৯ 
  3. "যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পাচ্ছে গাজী রাকায়েতের সিনেমা"দৈনিক সমকাল। ২০২০-০৫-০৯। ২০২১-০৫-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৩ 
  4. "দেশের প্রথম ইংরেজি সিনেমা 'দ্য গ্রেভ'"দ্য ডেইলি স্টার। ২০২০-০১-১৬। ২০২১-০৫-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  5. "ট্রেলারে দেশের প্রথম ইংরেজি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র"বাংলা ট্রিবিউন। ২০২০-১২-১৮। ২০২২-০২-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  6. "১১টি পেল 'গোর', ৮টি 'বিশ্বসুন্দরী'"দৈনিক প্রথম আলো। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  7. Arts & Entertainment Desk (২০২১-১১-০৫)। "Gazi Rakayet's 'The Grave' headed to the Oscars"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-১১-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-১৬ 
  8. প্রতিবেদক, বিনোদন। "অস্কার রিমাইন্ডার লিস্টে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র!"Prothomalo। ২০২২-০১-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-১৬ 
  9. "শুক্রবার হলিউডের প্রেক্ষাগৃহে গাজী রাকায়েতের 'দ্য গ্রেভ'"চ্যানেল আই অনলাইন (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-১৩। ২০২১-০৫-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৩ 
  10. "পাঁচ নির্মাতা পাচ্ছেন ২ কোটি ৮০ লাখ টাকা"প্রথম আলো। ২০১৮-০৬-০৭। ২০২১-০৮-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  11. "মুজিব জন্মশতবর্ষে মুক্তি পাবে ‌'গোর' ও 'দ্য গ্রেভ'"বাংলা ট্রিবিউন। ২০২০-০১-১৬। ২০২০-০২-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  12. "বাংলাদেশি সিনেমাকে আমরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেখতে চাই"প্রথম আলো। ২০২০-১২-২৫। ২০২১-০১-০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-২৫ 
  13. "দুই ভাষায় গাজী রাকায়েতের 'গোর'"প্রথম আলো। ২০১৯-১০-২৬। ২০২২-০২-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  14. "দেশের প্রথম ইংরেজি চলচ্চিত্রের একঝলক (ভিডিও)"রাইজিংবিডি.কম। ২০২০-১২-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-১৮ 
  15. "শুক্রবার হলিউডের প্রেক্ষাগৃহে গাজী রাকায়েতের 'দ্য গ্রেভ'"চ্যানেল আই অনলাইন। ২০২১-০৫-১৩। ২০২১-০৫-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৩ 
  16. Shazu, Shah Alam (২০২১-০৫-০৭)। "Gazi Rakayet's "The Grave" to be released in Hollywood"দ্য ডেইলি স্টার (বাংলাদেশ) (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০২-২০ 
  17. মতি, রহমান (২০২১-০১-০৩)। "মৃত্যুচেতনায় জীবন দেখা"বাংলা মুভি ডেটাবেজ           । ২০২১-০১-২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা