গুড়ি পড়ওয়া হল ভারতীয় বসন্তউৎসব এবং মারাঠী ও কোঙ্কনী হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পারম্পরিক নববর্ষ।[১] গুড়ি পড়ওয়া প্রধানত মহারাষ্ট্র এবং গোয়াতে চৈত্র মাসের শুক্লা প্রতিপদ তিথিতে পালন করা হয়। চৈত্র মাসের শুক্লা প্রতিপদ তিথি সৌরচন্দ্র হিন্দী দিনপঞ্জীর প্রথম দিন। পড়ওয়া শব্দটি সংস্কৃত শব্দ প্রতিপদার থেকে এসেছে। চন্দ্রমাসের প্রথম দিনকে প্রতিপদ বলা হয়। কয়েকদিনের মধ্যে বিভিন্ন সুন্দর নক্সার রঙ্গোলী তৈরি করা হয়, ফুলের মালা, আম এবং নিম পাতায় রূপা বা তামার পাত্র সাজানো হয়, বিশেষ গুড়ি পতাকা প্রদর্শন করা হয়; এর সঙ্গে শোভাযাত্রা নৃত্য-গীত এবং প্রীতিভোজের আয়োজন করা হয়।[১][২]

গুড়ি পড়ওয়া
A new year procession on Gudi Padwa festival, Dombivli Maharashtra.jpg
গুড়ি পড়ওয়া নববর্ষ উপলক্ষে মহারাষ্ট্রে আয়োজিত শোভাযাত্রা
অন্য নামমারাঠী নববর্ষ
পালনকারীমারাঠী এবং কোঙ্কনী হিন্দু ধর্মাবলম্বীগণ
ধরনধর্মীয়, সাংস্কৃতিক, সামাজিক
উদযাপনএদিন
শুরুচৈত্র মাসের শুক্লা প্রতিপদ
তারিখমার্চ / এপ্রিল
সংঘটনবার্ষিক
সম্পর্কিতমেষ সংক্রান্তি, উগাদি, এবং অন্যান্য আঞ্চলিক হিন্দু নববর্ষ

এইদিন তেলেগু এবং কানাড়া হিন্দুরা উগাদি পালন করে। এর সঙ্গে কিছু অঞ্চল এইদিন আলাদা আলাদা নামে নববর্ষ পালন করে। সিন্ধী সম্প্রদায়ের লোকরা এইদিন চেতি চান্দ হিসাবে ভগবান ঝুলেলালের আবির্ভাব তিথি পালন করে। চেতি চান্দে ঝুলেলালের পূজা-অর্চনা করা হয় এবং টেহরী (মিষ্টি ভাত) এবং শাই ভাজা (ডালে দেওয়া পালং শাক) প্রস্তুত করা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Roshen Dalal (২০১০)। Hinduism: An Alphabetical Guide। Penguin Books। পৃষ্ঠা 150। আইএসবিএন 978-0-14-341421-6 
  2. Gudi Padwa, Government of Maharashtra (2016)