গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুল

গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুল স্কুল ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁওের একটি ঐতিহ্যবাহী বিদ্যালয়।

গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুল
অবস্থান
বাংলাদেশ
তথ্য
ধরনশিক্ষা
ধর্মীয় অন্তর্ভুক্তি১৯০৬ সালের ১০ আগস্ট

ইতিহাস সম্পাদনা

১৯০৬ সালের ১০ আগস্ট শিলাসী গ্রামের নাসির উদ্দিন নছু খাঁ ইসলামিয়া হাই স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন।[১] এটির পাশেই ছিল চরআলগীর কাজী হালিম উদ্দিন প্রতিষ্ঠিত আরও একটি বিদ্যালয় যা ১৮৯২ সালে মাদ্রাসা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় ও ১৯০৪ সালে মিডিল ইংলিশ স্কুলে রুপান্তিরত হয়। পরবর্তীতে ১৯০৮ সালে আনজুমানে ইসলামিয়া ও ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রট সেকসী সাহেবের মধ্যস্থতায় বিদ্যালয় দুইটি একত্রীকরন করা হয়।[২] একত্রীকরনের সময়ে মিডিল ইংলিশ স্কুলের ছাত্র সংখ্যা ছিল ১৯১ এবং ইসলামিয়া হাইস্কুলের ছাত্র সংখ্যা ছিল ১৭৫ জন। এই বিদ্যালয়ের প্রথম প্রধান শিক্ষক ছিলেন মৌঃ ছাবেত উল্লাহ। ঢাকার নবাব স্যার সলিমুল্লাহ ও নবাব নওয়াব আলী চৌধুরীর সাহায্য ও সহযোগিতা স্কুলটি গড়ে উঠতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে । মুসলিম জাগরনের এক ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বৃটিশ আমলে ইসলামিয়া হাইস্কুল গফরগাঁওসহ ময়মনসিংহ অঞ্চলে আলীগড় বিশ্বিদ্যালয়ের ন্যায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ১৯৮৫ সালের ১ জুন বিদ্যালয়টিকে সরকারিকরণ করা হয়।

ফলাফল সম্পাদনা

এন্ট্রেন্স তথা ম্যাট্রিক এবং বর্তমানের সেকেন্ডারি স্কুল সার্টিফিকেট বা এস এস সি পরীক্ষায় এ স্কুলের ছাত্ররা যথাক্রমে পূর্ববঙ্গ, পূর্ব পাকিস্তান এবং বাংলাদেশের জাতীয় পর্যায়ে কৃতিত্বের পরিচয় দিয়ে এসেছে। এ স্কুলের ফুটবল টিম ও কাবাডি দল বাংলাদেশের জাতীয় পর্যায়ে একাধিকবার চ্যাম্পিয়ান ও রানার্সআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

কৃতি শিক্ষার্থী সম্পাদনা

বাংলাদেশ এবং পশ্চিম বাংলার বহু ব্যক্তিত্ব এ স্কুলে পড়েছেন, শিক্ষকতা করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী সত্যপ্রিয় চক্রবর্তী, পূর্ব পাকিস্থানের মুখ্যমন্ত্রী নুরুল আমিন, পূর্ব পাকিস্থানের রাজস্ব মন্ত্রী ফখর উদ্দিন আহম্মেদ এই স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন। নবাব নওয়াব আলী, খা বাহাদুর ইসমাইল, পাকিস্থানের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিয়াস উদ্দিন পাঠান, পূর্ব পাকিস্থানের গর্ভনর আবুল মোনেম খান এ স্কুলের ম্যানেজিং কমিটিতে দায়িত্বে ছিলেন। গিয়াস উদ্দিন পাঠান, তফাজ্জল হোসেন, তাশারফ হোসেন, মোহাম্মদ আব্দুল মোমেন, মুসলেম উদ্দিন আহমেদ, ডা. এম এ হাদী, মোস্তফা এম এ মতিন এ বিদ্যালয়ের কৃতি শিক্ষার্থী।আমার নাম জোবাইর আমি এই স্কুলের একজন কৃতি শিক্ষার্থী। আমার নাম মাশরাফি হক কহন আমি এই স্কুলের কৃতি শিক্ষার্থি

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুলের ১১২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত"দৈনিক সংগ্রাম। ১১ আগস্ট ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০২২ 
  2. "১১৫ বছরে গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুল"রাইজিংবিডি.কম। ১৭ আগস্ট ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০২২