গঙ্গাপদ বসু

ভারতীয় অভিনেতা

গঙ্গাপদ বসু (ইংরেজি: Gangapada Basu) ( ১২ মার্চ, ১৯১০ - ২৩ মে ১৯৭১) ছিলেন বাংলা চলচ্চিত্রের ও মঞ্চের অভিনেতা। [১] তিনি কলকাতার গণনাট্য ও বহুরূপী  নাট্যসংস্থায় অভিনয় করতেন।

সংক্ষিপ্ত জীবনীসম্পাদনা

গঙ্গাপদ বসুর জন্ম অবিভক্ত বাংলার অধুনা বাংলাদেশের যশোহর জেলার খাসিয়ালে। পিতা নকুলচন্দ্র বসু। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরাজীতে এম.এ পাঠরত অবস্থায় দৈনিক বসুমতী পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত হন। তারপর বিভিন্ন সময়ে 'আনন্দবাজার পত্রিকা','কৃষক' প্রভৃতি পত্রিকায় কাজ করেন। 'স্বরাজ' ও 'সত্যযুগ' পত্রিকার তিনি বার্তা-সম্পাদক ছিলেন। কলেজ জীবন থেকেই নাটক ও অভিনয়ের প্রতি আকৃষ্ট হন। ১৯৪৪ খ্রিস্টাব্দে গণনাট্য সংঘের 'নবান্ন' নাটকে অভিনেতা হিসাবে রঙ্গমঞ্চে তার প্রথম আত্মপ্রকাশ। এরপর তার ও আরও কয়েকজনের চেষ্টায় ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে 'বহুরূপী নাট্যসংস্থা গঠিত হলে সংস্থার নাটকগুলিতে অংশগ্রহণ করতে থাকেন। সংস্থার সভাপতি মনোরঞ্জন ভট্টাচার্যের মৃত্যুর পর তিনি সভাপতি নির্বাচিত হয়ে আমৃত্যু ওই পদে আসীন ছিলেন। 'বহুরূপী'পত্রিকাও সম্পাদনা করেছেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য চরিত্র -

  • রক্তকরবীর 'অধ্যাপক',
  • ছেঁড়া তারের 'হাকিমুদ্দি',
  • পথিক নাটকে কুটিল ধনবান ব্যক্তির ভূমিকায়।

গঙ্গাপদ 'অংশীদার', 'সত্য মারা গেছে' প্রভৃতি বারোটি নাটক রচনা করেছেন। "নাটক ও নাট্য-আন্দোলন" তার উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ। মঞ্চ ছাড়াও তিনি প্রায় ১০০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। [২]

চলচ্চিত্রসম্পাদনা

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Gangapada Basu"। IMDb। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০১২ 
  2. সুবোধ সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত, সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, প্রথম খণ্ড, সাহিত্য সংসদ, কলকাতা, আগস্ট ২০১৬, পৃষ্ঠা 179, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৭৯৫৫-১৩৫-৬
  3. Satyajit Ray; Bert Cardullo (১ মার্চ ২০০৭)। Satyajit Ray: Interviews। Univ. Press of Mississippi। পৃষ্ঠা 22–। আইএসবিএন 978-1-57806-937-8। সংগ্রহের তারিখ ১ অক্টোবর ২০১২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা