খুশবন্ত সিং

ভারতীয় ঔপন্যাসিক এবং সাংবাদিক

খুশবন্ত সিং ভারতের বিখ্যাত রম্যলেখক ও সাংবাদিকদের একজন। ১৯১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি তিনি অবিভক্ত ভারতের পাঞ্চাবের হাদালিতে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৪৭ সালে ভারত বিভক্তির পর অঞ্চলটি পাকিস্তানের অধীনে চলে যায়।

খুশবন্ত সিংহ
Khushwantsingh.jpg
Khushwant Singh at a reading in New Delhi.
জন্ম
খুশাল সিং

(১৯১৫-০২-০২)২ ফেব্রুয়ারি ১৯১৫
মৃত্যু২০ মার্চ ২০১৪(2014-03-20) (বয়স ৯৯)
নয়া দিল্লি ,ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
মাতৃশিক্ষায়তনসেন্ট স্টিফেন্স কলেজ দিল্লি
কিংস কলেজ লন্ডন
পেশাসাংবাদিক , লেখক, ঐতিহাসিক
দাম্পত্য সঙ্গীকাওয়াল মালিক
স্বাক্ষর
KhushwantSinghAutograph Eng.jpg

ক্যারিয়ারসম্পাদনা

তিনি সংবাদপত্র যোজনা’র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক। এছাড়াও ভারতের ‘দ্য ন্যাশনাল হেরাল্ড’ ও ‘দ্য হিন্দুস্তান টাইমস’ও সম্পাদনা করেছেন। ১৯৮০ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত তিনি ভারতের লোকসভার সদস্য ছিলেন।

গ্রন্থসম্পাদনা

তাঁর লেখা জনপ্রিয় বইগুলোর মধ্যে অন্যতম ট্রেন টু পাকিস্তান, আই শ্যাল নট হিয়ার দ্য নাইটিঙ্গেল এবং দিল্লি। খুশবন্ত ৯৫ বছর বয়সে ‘দ্য সানসেট ক্লাব’ উপন্যাস লেখেন। এছাড়াও তার ননফিকশন দুইখণ্ডের রচনা, ‘অ্যা হিস্টরি অব দ্য শিখস’ ছাড়াও অনুবাদ, সাম্প্রতিক ঘটনাবলী নিয়ে লেখা, উর্দু কবিতা সব মিলিয়ে তার লেখার পরিমাণ অনেক। ২০০২ সালে পেঙ্গুইন থেকে তার আত্মজীবনী ‘ট্রুথ, লাভ অ্যান্ড এ লিটল ম্যালিস’ প্রকাশিত হয়।

সম্মাননাসম্পাদনা

১৯৭৪ সালে খুশবন্ত ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় বেসামরিক পদক পদ্মভূষণ অর্জন করেন। কিন্তু অমৃতসরের স্বর্ণ মন্দিরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর অভিযানের প্রতিবাদে ১৯৮৪ সালে তিনি পদ্মভুষণ ফিরিয়ে দেন। ২০০৭ সালে তিনি দেশটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় বেসামরিক পদক পদ্মবিভূষণে সম্মানিত হন।