খালেদ মিশাল

ফিলিস্তিনীয় রাজনীতিবিদ

খালেদ মিশাল একজন শীর্ষস্তানীয় হামাস নেতা যিনি ১৯৯৬ সাল থেকে হামাসের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। ১৯৬৭ সালের ৬ দিনের যুদ্ধের সময় থেকে তিনি নির্বাসনে রয়েছেন। তিনি আন্দোলনকে শক্তিশালী বাহিনীতে পরিণত করতে সহায়তা করেন। ইসরাইল, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই গ্রুপকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যায়িত করে। ১৯৯৭ সালে জর্দানে এক ইসরাইলী হত্যা প্রচেষ্টা থেকে এই হামাস নেতা বেঁচে যান।[১]

খালেদ মিশাল
خالد مشعل
Khaled Meshaal 01.jpg
হামাস পলিটিকাল ব্যুরোর চেয়ারম্যান
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৯৯৬
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1956-05-28) ২৮ মে ১৯৫৬ (বয়স ৬৫)
সিল্বাদ, পশ্চিম তীর
জাতীয়তাফিলিস্তিনি
রাজনৈতিক দলহামাস
বাসস্থানদোহা এবং কায়রো
প্রাক্তন শিক্ষার্থীকুয়েত বিশ্ববিদ্যালয়
ধর্মইসলাম

কার্যক্রমসম্পাদনা

খালেদ মিশাল ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর দেশ ছেড়ে জর্ডানে বসবাস করছেন এবং সেখান থেকেই রাজনৈতিক কার্যক্রম শুরু করেন। ২০০৪ সালে ইসরাইলি হামলায় শেখ আহমেদ ইয়াসিন নিহত হওয়ার পর হামাসের দায়িত্ব নেন খালেদ মিশাল।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. প্রথমবারের মতো গাজায় যাচ্ছেন হামাস নেতা খালেদ মিশাল ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৫ মার্চ ২০১৬ তারিখে,আল জাজিরা, দৈনিক সংগ্রাম।ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০৩-১২-২০১২ খ্রিস্টাব্দ।
  2. গাজায় হামাস নেতা খালেদ মিশাল,ফাস্টনিউজ।ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ০৭-১২-২০১২ খ্রিস্টাব্দ।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা