প্রধান মেনু খুলুন

খাঁচা আকরাম খান পরিচালিত ২০১৭ সালের বাংলাদেশী ঐতিহাসিক নাট্য চলচ্চিত্র। কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক রচিত ছোটগল্প খাঁচা অবলম্বনে চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন আকরাম খান ও আজাদ আবুল কালাম। ছবিটি ২০১১-১২ অর্থবছরে বাংলাদেশ সরকার থেকে অনুদান লাভ করে। এছাড়া ছবিটি প্রযোজনা ও পরিবেশনা করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। ভারত বিভাগের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান, আজাদ আবুল কালাম, মামুনুর রশীদ, মেহবুবা মাহনূর চাঁদনী, আরমান পারভেজ মুরাদ, রানী সরকার প্রমুখ।[১]

খাঁচা
খাঁচা চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
চলচ্চিত্রের বাণিজ্যিক ব্যবহারের পোস্টার
পরিচালকআকরাম খান
প্রযোজক
রচয়িতা
  • আকরাম খান
  • আজাদ আবুল কালাম
চিত্রনাট্যকার
উৎসহাসান আজিজুল হক কর্তৃক 
খাঁচা
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারবিনোদ রায়
চিত্রগ্রাহকতানভীর খন্দকার
সম্পাদকসামির আহমেদ
প্রযোজনা
কোম্পানি
পরিবেশকইমপ্রেস টেলিফিল্ম
মুক্তি২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
দৈর্ঘ্য১৭০ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা

চলচ্চিত্রটি ২০১৭ সালের ২২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে ৬টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়।[২]

পরিচ্ছেদসমূহ

কুশীলবসম্পাদনা

নির্মাণসম্পাদনা

চিত্রনাট্য উন্নয়নসম্পাদনা

কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক রচিত গল্প অবলম্বনে পূর্বে বেশ কিছু মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটক নির্মিত হয়। খাঁচা হকের কোন কাজ অবলম্বনে নির্মিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। খাঁচা ছোটগল্পটি ১৯৬৭ বা ’৬৮ সালের দিকে কামাল বিন মাহতাব সম্পাদিত ছোটগল্প নামক সংকলনে প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল। ভারত বিভাগ উত্তর এদেশের এক সম্ভ্রান্ত ব্রাহ্মণ পরিবারের ভারতের এক মুসলমান পরিবারের সাথে বাড়ি বদল করার চেষ্টা এবং ব্যর্থতার গল্প তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে।[৫] প্রাথমিকভাবে ছবিটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন আকরাম খান। পরে তিনি ও আজাদ আবুল কালাম দুজলে সম্মিলিতভাবে চিত্রনাট্য ও সংলাপে রচনার কাজ করেন।[৬]

অভিনয়শিল্পী নির্বাচনসম্পাদনা

খাঁচা চলচ্চিত্রের প্রধান পুরুষ চরিত্র আম্বুজাক্ষের ভূমিকার জন্য আজাদ আবুল কালামকে নির্বাচন করা হয়। দুটি প্রবীণ ও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের জন্য নির্বাচন করা হয় মামুনুর রশীদরানী সরকারকে[৫] ২০১৬ সালের শুরুর দিকে এই ছবির প্রধান নারী চরিত্র সরোজিনীর ভূমিকার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন জয়া আহসান[৭]

চিত্রগ্রহণসম্পাদনা

চলচ্চিত্রটির প্রায় সম্পূর্ণ অংশের শুটিং হয় নড়াইল জেলার লোহাগড়ার ইতনায়। এছাড়া মুন্সিগঞ্জ জেলার দোহার ও নাটোর জেলার রানীভবানীর জমিদার বাড়িতে কিছু অংশের শুটিং হয়।[৫]

নির্মাণ-উত্তরসম্পাদনা

সম্পাদনা, শব্দ সম্পাদনা ও আনুষঙ্গিক কাজের পর ছবিটি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হয় এবং ২০১৭ সালের ৩১ আগস্ট ছবিটি সেন্সর সনদপত্র লাভ করে।[৮]

সঙ্গীতসম্পাদনা

চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন বিনোদ রায়। এতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের রচিত গান ব্যবহার করা হয়েছে। দুটি গানে খালি গলায় কণ্ঠ দিয়েছেন সাগরিকা জাহান।[৮]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "'খাঁচা' মুক্তি পাচ্ছে শুক্রবার"দৈনিক সমকাল। ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. "৬টি হলে মুক্তি পাচ্ছে 'খাঁচা'"দৈনিক ইত্তেফাক। ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  3. "'খাঁচা'র সরোজিনী জয়া আহসান"চ্যানেল আই অনলাইন। ১ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "এবার জয়া'র 'খাঁচা'"দ্য ডেইলি স্টার। সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  5. "হাসান আজিজুল হকের গল্প নিয়ে সিনেমা"দৈনিক প্রথম আলো। ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  6. "শেষ হয়েছে 'খাঁচা'র কাজ, অপেক্ষা মুক্তির"দৈনিক প্রথম আলো। ১৮ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  7. ইবনে সারওয়ার, ফাহিম (৭ জানুয়ারি ২০১৬)। "আকরামের 'খাঁচা'য় জয়া আহসান"এনটিভি অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  8. "মুক্তির অপেক্ষায় 'খাঁচা'"দৈনিক মানবজমিন। ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা