ক্যাসল এভিনিউ, ডাবলিন

ক্লোনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাব মাঠ আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনের শহরতলি ক্লোনটার্ফে অবস্থিত একটি ক্রিকেট মাঠ। এ মাঠটি ক্যাসল অ্যাভিনিউ নামে পরিচিত। ক্লোনটার্ফ ক্যাসলের কাছেই এ স্টেডিয়ামের অবস্থান। ক্লোনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাবের নিজস্ব মাঠ এটি।[১] ১৯৫৮ সালে এ মাঠ প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০০৮ সালে এ মাঠের ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বা সূবর্ণ জয়ন্তী অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়।

ক্লোনটার্ফ
ক্যাসল অ্যাভিনিউ
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলী
অবস্থানক্লোনটার্ফ, ডাবলিন, আয়ারল্যান্ড
স্থানাঙ্কস্থানাঙ্ক: ৫৩°২২′০৪.৯৭″ উত্তর ৬°১২′২৫.৭৫″ পশ্চিম / ৫৩.৩৬৮০৪৭২° উত্তর ৬.২০৭১৫২৮° পশ্চিম / 53.3680472; -6.2071528
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৫৮
ধারন ক্ষমতা৩,২০০
প্রান্ত
সিটি এন্ড
কাইলস্টার এন্ড
প্রথম ওডিআই২১ মে ১৯৯৯: বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ ওডিআই২৪ মে ২০১৭: বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ড
একমাত্র টি২০ আন্তর্জাতিক২৫ জুলাই ২০১৫: আফগানিস্তান বনাম ওমান
ঘরোয়া দলের তথ্য
ক্লোনটার্ফ (১৯৬৪ – বর্তমান)
১৬ জুন ২০১৭ অনুযায়ী
উৎস: CricketArchive

ক্লোনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাব গ্রাউন্ডটি আয়ারল্যান্ডে অবস্থিত তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক মাঠের একটি। অন্য দু’টি হচ্ছে - বেলফাস্টের স্টরমন্ট ও ডাবলিনের মালাহাইড। ৩,২০০ দর্শক আসনবিশিষ্ট ক্লোনটার্ফে প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার আয়োজন করা হয় ২১ মে, ১৯৯৯ তারিখ। ঐদিন ১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের খেলায় বাংলাদেশ- ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। তবে, আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দল তাদের প্রথম ওডিআই খেলে ১৪, ২০০৭ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চারদেশীয় সিরিজে। পরবর্তী তে ২০১৫ আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্বের ম্যাচকিছু এখানে খেলা হয়।২০১৭ আয়ারল্যান্ড ত্রি-দেশীয় সিরিজে প্রথমবারের মতো দুটি পূর্নসদস্য(বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড) এই মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে(১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ পূর্নসদস্য ছিলো না)।

রেকর্ডসসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা