খাশাবা দাদাসাহেব যাদব (জানুয়ারী ১৫, ১৯২৬ - আগস্ট ১৪, ১৯৮৪) একজন ভারতীয় কুস্তিগীর ক্রীড়াবিদ ছিলেন । তিনি হেলসিঙ্কিতে আয়োজিত ১৯৫২ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে প্রথম ভারতীয় হিসেবে ব্রোঞ্জ পদক জয় করেন। তিনি অলিম্পিকে একক বিভাগে পদকজয়ী প্রথম ভারতীয় [৫]

খাসাবা দাদাসাহেব জাধব
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামখাসাবা দাদাসাহেব জাধব[১]
ডাকনামPocket Dynamo[২]
KD
জাতীয়তাভারত
জন্ম(১৯২৬-০১-১৫)১৫ জানুয়ারি ১৯২৬[৩]
Goleshwar (Satara district, Bombay Presidency, British India)
মৃত্যু১৪ আগস্ট ১৯৮৪(1984-08-14) (বয়স ৫৮)[৪]
করাদ, মহারাষ্ট্র, ভারত
উচ্চতা১.৬৭ মি (৫ ফু ৬ ইঞ্চি)
ওজন৫৪ কেজি (১১৯ পা)
ক্রীড়া
দেশভারত
ক্রীড়াকুস্তি
বিভাগফ্রিস্টাইল
প্রশিক্ষকRees Gardner
পদকের তথ্য

ঔপনিবেশিক ভারতের অধীনে ১৯০০ সালে অ্যাথলেটিকসে দু'টি রৌপ্য পদক অর্জনকারী নরম্যান প্রিচার্ডের পরে, খাসাবাই প্রথম অলিম্পিকে ব্যক্তিগত পদক জয় করেন [৬] এর আগের সংস্করণগুলিতে ভারত কেবলমাত্র দলগত খেলা ফিল্ড হকিতে পদক জিতত। তিনিই একমাত্র ভারতীয় অলিম্পিক পদকবিজয়ী যিনি কখনও পদ্ম পুরষ্কার পান নি। ইংরেজ কোচ রিস গার্ডনার তাকে ১৯৪৮ সালের অলিম্পিক গেমসের আগে থেকে প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন।

শৈশবকালসম্পাদনা

খাশাবার জন্ম ব্রিটিশ ভারতের বম্বে প্রেসিডেন্সির অন্তর্গত সাতারা জেলার করাদ তালুকে। তিনি ১৯৪০-১৯৪৭ সালের মধ্যে কারাড জেলার তিলক উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি এমন এক পরিবারে বেড়ে ওঠেন, যাঁরা কুস্তিময় জীবনযাপন করতেন। তিনি ভারত ছাড়ো আন্দোলনে বিপ্লবীদের আশ্রয় এবং একটি গোপন স্থান সরবরাহে অংশ নিয়েছিলেন, ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে চিঠি প্রচার করছিলেন ।

কুস্তি ক্যারিয়ারসম্পাদনা

তাঁর পিতা দাদাসাহেব একজন কুস্তিগীর প্রশিক্ষক ছিলেন এবং তিনি খশাবাকে পাঁচ বছর বয়সে কুস্তিতে প্রশিক্ষণ দিতে শুরু করেছিলেন। কলেজের তাঁর কুস্তি পরামর্শদাতা ছিলেন বাবুরাও বালাউদে এবং বেলাপুরি গুরুজী।

১৯৪৮ গ্রীষ্ম অলিম্পিকসম্পাদনা

Res. Opponent Score Date Event Location Notes
Win   Bert Harris 3–0 29 July 1948 Summer Olympics Men's Flyweight, Freestyle   London Rank 2T
Win   Billy Jernigan 3–0 30 July 1948 Summer Olympics Men's Flyweight, Freestyle   London Rank 3
Loss   Mansour Raeisi Tech. Fall; 5:31 30 July 1948 Summer Olympics Men's Flyweight, Freestyle   London Rank 6 (Eliminated)

পরিণতিসম্পাদনা

পরের চার বছর ধরে, খাশাবা আরও কঠিন প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন হেলসিঙ্কি অলিম্পিকের জন্যে এবং ওজন বাড়িয়ে তিনি ১২৫ পাউন্ড বিভাগটিতে অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। [৭]

১৯৫২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকসম্পাদনা

কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যারাথন লড়াইয়ের পরে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তাকে সেমিফাইনালে সোভিয়েত ইউনিয়নের রশিদ মাম্মাদবেইভের সাথে লড়াই করতে বলা হয়েছিল। নিয়ম অনুসারে কমপক্ষে ৩০ মিনিট বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ থাকলেও, কোনও ভারতীয় আধিকারিক তাঁর হয়ে কথা বলার সুযোগ না পাওয়ার কারণে, ক্লান্ত হয়ে পড়া খাশাবাকে সেমিফাইনালের লড়াইতে অংশ নিতে হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়না, তিনি ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হন। কানাডা, মেক্সিকো এবং জার্মানি থেকে কুস্তিগীরদের পরাজিত করে তিনি ১৯৫২ সালের ২৩ জুলাই ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন এবং এর মাধ্যমে স্বাধীন ভারতের প্রথম ব্যক্তিগত পদক বিজয়ী হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেন। খাসাবার সহকর্মী, কৃষ্ণা রাও মাঙ্গাভ নামে অন্য একজন ভারতীয় কুস্তিগীরও একই অলিম্পিকে অন্য বিভাগে অংশ নিয়েছিলেন, তবে মাত্র এক পয়েন্টেই তিনি ব্রোঞ্জ পদক লাভ করতে পারেননি।

Res. Opponent Score Date Event Location Notes
Win   Adrien Poliquin Tech. Fall; 14:25 1952-07-20 1952 Summer Olympics Men's Bantamweight, Freestyle   Helsinki Rank 1T
Win   Leonardo Basurto Tech. Fall; 5:20 1952-07-20 1952 Summer Olympics Men's Bantamweight, Freestyle   Helsinki Rank 1T
Win   Ferdinand Schmitz 2-1 1952-07-20 1952 Summer Olympics Men's Bantamweight, Freestyle   Helsinki Rank 2T
Loss   Rashid Mammadbeyov 3-0 1952-07-20 1952 Summer Olympics Men's Bantamweight, Freestyle   Helsinki Rank 1T
Loss   Shohachi Ishii 3-0 1952-07-20 1952 Summer Olympics Men's Bantamweight, Freestyle   Helsinki Rank 3 Bronze Medal

পুরষ্কার এবং সম্মানসম্পাদনা

  • ১৯৮২ সালে দিল্লির এশিয়ান গেমসে মশাল দৌড়ের অংশ হিসাবে তাকে সম্মানিত করা হয়েছিল
  • ১৯৯২-১৯৯৩ সালে মহারাষ্ট্র সরকার মরণোত্তর ছত্রপতি পুরস্কার প্রদান করেছিলেন। [৮]
  • ২০০১ সালে তিনি মরণোত্তর অর্জুন পুরস্কারে সম্মানিত হন। [৯]
  • ২০১০ সালে দিল্লি কমন ওয়েলথ গেমসের নবনির্মিত কুস্তির মঞ্চের নামকরণ করা হয় তার এই কৃতিত্বের প্রতি সম্মান জানিয়ে। [১০]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Khashaba Jhadav Bio, Stats, and Results"Olympics at Sports-Reference.com। ২৬ এপ্রিল ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  2. Rozario, Rayan (২৩ জুলাই ২০১৬)। "Khashaba Dadasaheb Jadhav: A forgotten hero"। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ – www.thehindu.com-এর মাধ্যমে। 
  3. "Google Translate"translate.google.co.in। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  4. "Khashaba Jadhav: Forgotten story of India's first individual Olympic medallist"। ৩১ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  5. India Ministry of Youth Affairs and Sports (YAS), "Proud Moments of Indian Sports," "Olympics Bronze Medal, Helsinki 1952"[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]; excerpt, "The victory procession at the Karad railway station was a see-it-to-believe scene.
  6. Shariff, Faisal."
  7. "The forgotten hero of Indian sports - KD Jadhav and his triumph over adversities"www.sportskeeda.com। ২২ জুলাই ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  8. Padmabandaru (২ জুলাই ২০১৫)। "Who is the first olympic medalist in India ?? He is unknown to many……."। 
  9. "Olympic Day 2017: KD Jadhav, a forgotten Indian hero - Times of India"The Times India। সংগ্রহের তারিখ ৩ মার্চ ২০১৯ 
  10. "CWG wrestling venue re-christened as K. D. Jhadav Stadium," The Hindu (India).