কেসরী (সংবাদপত্র)

কেসরী (মারাঠি: केसरी) একটি মারাঠি সংবাদপত্র যা ১৮৮১ সালে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের বিশিষ্ট নেতা লোকমান্য বাল গঙ্গাধর তিলক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। সংবাদপত্রটি ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের মুখপাত্র হিসাবে ব্যবহৃত হয়েছিল। বর্তমানে কেসারি মারাঠা ট্রাস্ট এবং তিলকের বংশধরদের দ্বারা আজও প্রকাশিত হয়ে আসছে। [১][২]

কেসরী
কেসরী (সংবাদপত্র) লোগো.jpg
কেসরী (সংবাদপত্র) প্রচ্ছদ.jpg
ধরনদৈনিক সংবাদপত্র
ফরম্যাটপ্রিন্ট, অনলাইন
মালিককেসরী মারাঠা ট্রাস্ট
প্রতিষ্ঠাকাল৪ জানুয়ারি ১৮৮১; ১৪০ বছর আগে (4 January 1881)
রাজনৈতিক মতাদর্শমধ্য-দক্ষিণপন্থী
ভাষামারাঠি
দাপ্তরিক ওয়েবসাইটwww.dailykesari.com
পত্রিকার সম্পাদকীয়

বাল গঙ্গাধর তিলক দুইটি সংবাদপত্র চালাতেন, এদের মধ্যে মারাঠি কেসরী এবং ইংরেজি মাহরাত্ত (কেসরি-মারাঠা ট্রাস্ট দ্বারা পরিচালিত), [৩][৪] কেসরি ওয়াদা, নারায়ণ পেথ এবং পুনে থেকে প্রকাশিত। পত্রিকাগুলি মূলত চিপলুঙ্কার, আগরকর এবং তিলকের সমবায় প্রচেষ্টায় শুরু হয়েছিল।

প্রাথমিক বছর, সম্পাদক এবং লেখকসম্পাদনা

কেসরীর সম্পাদকদের মধ্যে অনেক মুক্তিযোদ্ধা ও সামাজিক কর্মী/সমাজ সংস্কারক অন্তর্ভুক্ত। এদের মধ্যে আছেন গোপাল গনেশ আগারকার (প্রথম সম্পাদক), চিপলুঙ্কার এবং তিলক। ১৮৮৭ আগারকার কেসরী ছেড়ে চলে যান, তাঁর নিজের পত্রিকা সুধারক (সংস্কারক) শুরু করার জন্য। তারপরে তিলক নিজেই এই কাগজটি চালিয়ে যান। তিলকের ঘনিষ্ঠ সহকর্মী নরসিংহ চিন্তামণ কেলকার, ১৮৯৭ এবং ১৯০৮ সালে তিলক কারাগারে বন্দী থাকাবস্থায় সম্পাদক হিসাবে দু'বার দায়িত্ব পালন করেছিলেন। [৫]

১৮৯৭ সালে কেসরীর প্রসিকিউশনসম্পাদনা

বাল গঙ্গাধর তিলক উল্লেখ করেছেন যে, স্বামী বিবেকানন্দের কাছ থেকে প্রাপ্ত চিঠিটি ১৮৯৭ সালে কেসরীর প্রসিকিউশন বন্ধ হওয়ার পরে নিশ্চয়ই অনেকের সাথেই ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। [৬]

পত্রিকার বর্তমান অবস্থাসম্পাদনা

দ্য ডেইলি কেসরী নামে একটি অনলাইন মারাঠি সাময়িকী প্রকাশিত হচ্ছে, লোকমান্য বাল গঙ্গাধর তিলকের নাতি দীপক তিলক বর্তমানে এটি সম্পাদনা করছেন। [৭]

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "About the Vice Chancellor - Deepak J.Tilak"tmv.edu.in। Tilak Maharashtra Vidyapeeth। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৪ 
  2. Inamdar, Siddhesh (৪ জানুয়ারি ২০১০)। "Tendency to dumb down journalism disturbing: N. Ram"The Hindu। Pune। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০১৩ 
  3. "During the independence movement, newspaper 'Kesari' was published by_: - General Knowledge Today"www.gktoday.in 
  4. Mone (Tilak), Mrs. Geetali Hrishikesh। "The Role of Free Circulation in Optimum Newspaper Development - Ph.D. thesis submission"shodhganga.inflibnet.ac.in। Preface - Shodhganga। ২০ জুন ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৪ 
  5. Watve, K.N. (১৯৪৭)। "Sri Narasimha Chintaman "Alias" Tatyasaheb Kelkar": 156–158। জেস্টোর 44028058 
  6. "Reminiscences of Swami Vivekananda"www.ramakrishnavivekananda.info 
  7. "Know your city - Pune"Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৪