কীর্তি কুলহারি

ভারতীয় অভিনেত্রী

কীর্তি কুলহারি একজন ভারতীয় মডেলঅভিনেত্রী, যাকে মূলত বলিউড চলচ্চিত্রগুলোতে দেখা যায়। সাংবাদিকতা ও গণসংযোগে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পর তিনি ২০০২ সালে উড়িয়া চলচ্চিত্র ধারিনির মধ্যমে অভিনয়ে অভিষেক করেন। বলিউডে তার প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে ২০১০ সালে খিচুড়ি: দ্য মুভি চলচ্চিত্রে তাকে দেখা যায়। এরপর তাকে ২০১১ সালের শয়তান চলচ্চিত্রে দেখা যায়।[১] এরপর তাকে সফল চলচ্চিত্র পিংক (২০১৬), উরি: দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইক (২০১৯) এবং মিশন মঙ্গল (২০১৯) চলচ্চিত্রে দেখা যায়। এদের মধ্যে শেষের দুইটি চলচ্চিত্র ভারতে সর্ব্বোচ্চ আয় করা বলিউড চলচ্চিত্রের তালিকায় জায়গা করে নেয়।[২]

কীর্তি কুলহারি
২০১৪ সালে কুলহারি
জন্ম
জাতীয়তাভারতীয়
পেশাচলচ্চিত্র অভিনেত্রী
কর্মজীবন২০০৯–বর্তমান

প্রারম্ভিক জীবন ও পরিচয়

সম্পাদনা

কুলহারি মুম্বাইয়ে জন্মগ্রহণ করেন এবং সেখানেই বেড়ে উঠেন। তার পরিবার রাজস্থানের ঝুনঝুনু জেলা থেকে এসেছে। [৩]

পেশাজীবন

সম্পাদনা

প্রারম্ভিক অভিনয়জীবন

সম্পাদনা

কুলহারি মঞ্চ ও টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তার পেশাজীবন শুরু করেন। যাত্রী নামে হিন্দি মঞ্চ দলের সাথে তিনি একমাসব্যাপী অভিনয় চর্চা করেন। এরপর তিনি তিনটি মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেন – যাত্রী দলের সাথে চিন্তা ছোড় চিন্তামনি, একে ভ্যারিয়াস প্রোডাকশনের সাথে শাহেনশাহ অব আজিমু এবং যাত্রী দলের সাথে সাখারাম বিন্দরের হিন্দি সংস্করণ। কুলহারিকে বহু টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে দেখা যায় যেমন– লোটাস মিউচুয়াল ফান্ড, ট্রাভেল গুরু, ভিডিওকন এয়ার কন্ডিশনার্স, প্যারাশ্যুট গর্জেস হামেসা প্রচারণা, আইসিআইসিআই ব্যাংক, কায়া স্কিন ক্লিনিক, তাজমহল টি (ভারতীয় অভিনেতা সাইফ আলী খানের সাথে), এভারইউথ ফেস ওয়াশ, ওয়ার্লপুল রেফ্রিজারেটর্স (ভারতীয় অভিনেতা অজয় দেবগনকাজলের সাথে), স্পাইস মোবাইল, ভার্জিন মোবাইলস (ভারতীয় অভিনেতা রণবীর কাপুরের সাথে), ক্লোজ-আপ, জেকে হোয়াইট সিমেন্ট এবং টিক ট্যাক মাউথ ফ্রেশেনার। কুলহারি দুই বছর ধরে প্রসাধনী ব্র্যান্ড নিভিয়া ভিসেজ স্পার্কলিং গ্লো-্এর সাথে যুক্ত ছিলেন। এছাড়াও কুলহারিকে গিপি গ্রিওয়ালের মিউজিক ভিডিও দেশী রকস্টার ২-এর হিক ভিচ জান, গায়ক অভিজিৎ সাওয়ান্তের জুনুন এবং মিত্রান দি ছাত্রি গানে দেখা যায়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

সফলতা (২০১০–২০১৫)

সম্পাদনা

২০১০ সালের অক্টোবরে মুক্তি পাওয়া খিচুড়ি: দ্য মুভি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে কুলহারি তার চলচ্চিত্রের অভিনয় জীবন শুরু করেন।[৪] চলচ্চিত্র অভিনেত্রী হিসেবে ২০১১ সালের জুনে মুক্তি পাওয়া তার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র শয়তান-এর জন্য কুলহারি পরিচিতি লাভ করেন।[৫]

২০১৩ সালে তাকে সুপার সে উপার চলচ্চিত্রে দেখা যায়, যা বক্স অফিসে তেমন একটা সফলতা পায়নি।

মূলধারার সফলতা (২০১৬—বর্তমান)

সম্পাদনা

২০১৬ সালে তাকে তাপসী পান্নুঅমিতাভ বচ্চনের সাথে পিংক চলচ্চিত্রে দেখা যায়, যেটিতে অভিনয়ের জন্য তিনি ব্যাপকভাবে প্রসংশিত হন। চলচ্চিত্রটি সমালোচক ও বাণিজ্যিক সফলতা লাভ করে। ২০১৭ সালে তাকে মধুর বান্দরকারের রাজনৈতিক থ্রিলার ইন্দু সরকার চলচ্চিত্রের নাম ভূমিকা 'ইন্দু' চরিত্রে দেখা যায়। ২০১৮ সালে তিনি ইরফান খানের সাথে ব্ল্যাকমেইল চলচ্চিত্রের শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন।

২০১৯ সালে তাকে সমালোচক ও বাণিজ্যিকভাবে সফল হওয়া সামরিক অ্যাকশনধর্মী উরি: দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইক চলচ্চিত্রে একজন ভারতী বিমানবাহিনীর অফিসার সিরাত কৌর চরিত্রে দেখা যায়। একই বছর তিনি অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওতে প্রকাশিত ওয়েব সিরিজ ফোর মোর শটস প্লিজ!- এ অভিনয় করেন। ২০১৯ সালের ১৫ই আগস্ট মুক্তি পাওয়া ভারতের মঙ্গল অভিযানকে ভিত্তি করে নির্মিত মিশন মঙ্গল চলচ্চিত্রেও তিনি অভিনয় করেছেন।

কুলহারিকে কে কে মেননের বিপরীতে পিরিয়ড থ্রিলার স্যান' ৭৫ পচাত্তর চলচ্চিত্রে দেখা যাবে, এই চলচ্চিত্রে ১৯৭৫ সালে, ভারতে যে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই বছরের একটি গল্প এবং ভারতে প্রথম মোবাইল ফোন কীভাবে এসেছিল তা বর্ণনা করা হয়েছে। [৬] ২০১৫ সালে যেটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে, ২০১৯ সালেও মুক্তি পায়নি।

চলচ্চিত্র তালিকা

সম্পাদনা
বছর শিটোনাম চরিত্র
২০২০ দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন আলিয়া শেরগিল
২০১৯ মিশন মঙ্গল নেহা সিদ্দিকী
উরি দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইক ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট সিরাত কৌর
স্যান' ৭৫ পচাত্তর
২০১৮ ব্ল্যাকমেইল রিনা কৌশল
২০১৭ ইন্দু সরকার ইন্দু সরকার
২০১৬ কিউট কামিনা অবন্তিকা
পিংক ফালাক আলি
২০১৪ জাল কিসার
২০১৩ সুপের সে উপের গালাবু (গুল)
রাইস অব দ্য জম্বি ভিনি
২০১১ শয়তান তানিয়া শর্মা
২০১০ খিচুড়ি: দ্য মুভি পরমেন্দর

ওয়েব সিরিজ

সম্পাদনা
বছর শিরোনাম চরিত্র
২০১৯ ফোর মোর শটস প্লিজ![৭] অঞ্জনা মেনন
বের্ড অব ব্লাড[৮] জান্নাত

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা
  1. "Eyes are the most important"Hindustan Times। ২ আগস্ট ২০১২। ৫ আগস্ট ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "Indu Sarkar first poster: Kirti Kulhari dons an intense look for the film on Emergency"Hindustan Times। ৫ জুন ২০১৭। ১২ মার্চ ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০১৮ 
  3. "Coming Soon: Aapno Zombie"। DNA। ১২ জুলাই ২০১২। ২৯ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  4. "Khichdi was fun: Kirti Kulhari"The Times of India। ৫ অক্টোবর ২০১০। ২৬ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  5. "Shaitan is not my first film: Kirti Kulhari"The Times of India। ৯ জুন ২০১১। ২৬ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  6. "San' 75 (Pachattar)"ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেস। সংগ্রহের তারিখ ১ মার্চ ২০২০ 
  7. Srivastava, Soumya (২৫ জানুয়ারি ২০১৯)। "Four More Shots Please review: Amazon's 'sex' comedy hurts at first but gets better with time"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। 
  8. IANS (১৫ মার্চ ২০১৯)। "Kirti Kulhari plays a Baluchi girl in Netflix's Bard of Blood"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা