কিউপিড (প্রাকৃতিক উপগ্রহ)

কিউপিড ইউরেনাসের অভ্যন্তরীণ একটি উপগ্রহ। ২০০৩ সালে মার্ক আর. শোয়াল্টার এবং জ্যাক জে. লিজার হাব
৭৬৩ কিউপিডো নামে একটি গ্রহাণুও রয়েছে।

কিউপিড (ইংরেজি: Cupid) হল ইউরেনাসের একটি অভ্যন্তরীণ প্রাকৃতিক উপগ্রহ। ২০০৩ সালে হাবল স্পেস টেলিস্কোপের সাহায্যে মার্ক আর. শোঅল্টারজ্যাক জে. লিসায়ার এই উপগ্রহটি আবিষ্কার করেন।[৩] এটির নামকরণ করা হয়েছে উইলিয়াম শেকসপিয়র রচিত টাইমন অফ এথেন্স নাটকের একটি চরিত্রের নামানুসারে।[৪]

কিউপিড
Cupidmoon.png
আবিষ্কার
আবিষ্কারকমার্ক আর. শোঅল্টারজ্যাক জে. লিসায়ার
আবিষ্কারের তারিখ২৫ অগস্ট, ২০০৩
বিবরণ
উচ্চারণ/ˈkjuːpɪd/
বিশেষণকিউপিডীয় (ইংরেজি: কিউপিডিয়ান; Cupidian /kjuːˈpɪdiən/[১])
কক্ষপথের বৈশিষ্ট্য
অর্ধ-মুখ্য অক্ষ৭৪,৩৯২ কিলোমিটার
উৎকেন্দ্রিকতা০.০০১৩
কক্ষীয় পর্যায়কাল০.৬১৮ দিন
নতি০.১° (ইউরেনাসের নিরক্ষরেখার প্রতি)
যার উপগ্রহইউরেনাস
ভৌত বৈশিষ্ট্যসমূহ
গড় ব্যাসার্ধ~৯ কিলোমিটার[২]
পৃষ্ঠের ক্ষেত্রফল~১,০০০ বর্গ কিলোমিটার
আয়তন~৩,০০০ ঘন কিলোমিটার
ভর~৩.৮×১০১৫ কিলোগ্রাম
গড় ঘনত্ব~১.৩ গ্রাম/ঘন সেন্টিমিটার
বিষুবীয় পৃষ্ঠের অভিকর্ষ~০.০০৩১ মিটার/বর্গ সেকেন্ড
মুক্তি বেগ~০.০০৭৬ কিলোমিটার/সেকেন্ড
ঘূর্ণনকালসমলয় আবর্তন
অক্ষীয় ঢাল
প্রতিফলন অনুপাত০.০৭ (অনুমিত)
তাপমাত্রা~৬৪ কেলভিন

এটি ইউরেনাসের ক্ষুদ্রতম অভ্যন্তরীণ উপগ্রহ, যার ব্যাস স্থূলভাবে পরিমাপ করে জানা গিয়েছে প্রায় ১৮ কিলোমিটার মাত্র। এই ক্ষুদ্র আকার এবং এটির অন্ধকারাচ্ছন্ন পৃষ্ঠভাগের কারণে উপগ্রহটি এতটাই অনুজ্জ্বল যে ১৯৮৬ সালে ইউরেনাস ফ্লাইবাইয়ের সময় ভয়েজার ২ এটিকে শনাক্ত করতে পারেনি।

কিউপিডের কক্ষপথের থেকে বৃহত্তম উপগ্রহ বেলিন্ডার কক্ষপথের পার্থক্য মাত্র ৮৬৩ কিলোমিটার। ২০০৩ সালে আবিষ্কৃত অপর দুই ইউরেনীয় প্রাকৃতিক উপগ্রহ ম্যাবপার্ডিটার কক্ষপথ বিঘ্নসংকুল হলেও কিউপিডের ক্ষেত্রে তা মনে হয় না।[২]

আবিষ্কারের পর কিউপিডের সাময়িক নামকরণ করা হয় এস/২০০৩ ইউ ২ (ইংরেজি: S/2003 U 2)।[৩] এটি ইউরেনাস ২৭ (ইংরেজি: Uranus XXVII) নামেও পরিচিত।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Tanner & Barnet (1995) Comedies
  2. Showalter, Mark R.; Lissauer, Jack J. (২০০৬-০২-১৭)। "The Second Ring-Moon System of Uranus: Discovery and Dynamics"। Science311 (5763): 973–977। ডিওআই:10.1126/science.1122882পিএমআইডি 16373533বিবকোড:2006Sci...311..973S 
  3. Showalter, Mark R.; Lissauer, Jack J. (সেপ্টেম্বর ২৫, ২০০৩)। "S/2003 U 1 and S/2003 U 2"IAU Circular8209আইএসএসএন 0081-0304। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-০২ 
  4. "Planet and Satellite Names and Discoverers"Gazetteer of Planetary Nomenclature। USGS Astrogeology। জুলাই ২১, ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-০৮-০৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা