কাসাব্লাঙ্কা (আরবি: الدَّار الْبَيْضَاء‎, প্রতিবর্ণী. al-Dār al-Baydāʾ‎, [adˈdaːru ɫbajdˤaːʔ], বার্বার: ⴰⵏⴼⴰ) মরক্কোর উত্তরাঞ্চলে আটলান্টিক মহাসাগরের তীরে অবস্থিত একটি শহর। এটি একই সাথে দেশটির প্রধান বন্দর এবং বাণিজ্যিক কেন্দ্র

কাসাব্লাঙ্কা
الدار البيضاء
ⴰⵏⴼⴰ
শহর
কাসাব্লাঙ্কা মরক্কো-এ অবস্থিত
কাসাব্লাঙ্কা
কাসাব্লাঙ্কা
স্থানাঙ্ক: ৩৩°৩২′ উত্তর ০৭°৩৫′ পূর্ব / ৩৩.৫৩৩° উত্তর ৭.৫৮৩° পূর্ব / 33.533; 7.583
দেশ মরক্কো
প্রশাসনিক অঞ্চলবৃহত্তর কাসাব্লাঙ্কা
প্রথম মীমাংসা করেছিল৭ম শতাব্দী
পূণর স্থাপিত১৭৫৬
সরকার
 • ধরনরাজতন্ত্র
 • শাসকমোহাম্মেদ VI
 • প্রধানMohammed Sajid
আয়তন
 • শহর৩২৪ বর্গকিমি (১২৫ বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা১,৬১৫ বর্গকিমি (৬২৪ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০০৯)
 • শহর৩৬,৭২,৯০০
 • জনঘনত্ব৯,১৩২/বর্গকিমি (২৩,৬৫০/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৩৮,৫০,০০০ (Grand Casablanca)
 • পৌর এলাকার জনঘনত্ব২,৩৮৩/বর্গকিমি (৬,১৭০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলসিইটি (ইউটিসি+১)
পোষ্ট কোড২০০০০-২০২০০
ওয়েবসাইটকাসাব্লাংকা শহরের সরকারি ওয়েবসাইট

জনসংখ্যাসম্পাদনা

৩.৭ মিলিয়ন (২০০৫ সালের হিসাব অনুসারে)।

আয়তনসম্পাদনা

১,৬১৫ বর্গ কিলোমিটার।

অর্থনীতিসম্পাদনা

এর অর্থনীতির মূল অংশ হচ্ছে ফসফেট রপ্তানি করা। এই ক্ষেত্রে ক্যাসাব্লাঙ্কা হচ্ছে প্রশাসনিক কেন্দ্র। তাছাড়া মরক্কোর সবচেয়ে বেশি শিল্প-কারখানা গড়ে উঠেছে এই এলাকায়। ক্যাসাব্লাঙ্কার মূল শিল্প কারখানার মধ্যে আছে মৎস্য জাত দ্রব্য, গৃহনির্মাণ সামগ্রী, কাঠ চেরার কারখানা, আসবাবপত্র তৈরি, কাচের সামগ্রী, টেক্সটাইলস,চামড়া কারখানা প্রভৃতি।

দর্শনীয় স্থানসম্পাদনা

কাসাব্লাঙ্কার সবচেয়ে দর্শনীয় স্থান বাদশাহ ২য় হাসান এর মসজিদ। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় মসজিদ।

ইতিহাসসম্পাদনা

আধুনিক কাসাব্লাঙ্কা শহর গড়ে উঠেছে একজন ফ্রেঞ্চ স্থপতির হাত ধরে। তিনি হলেন হেনরি প্রস্ট। তার পরিকল্পনাতেই প্রথম এই শহর গড়ে উঠে।পরে ১৯৪৬ এবং আরো পরে ১৯৮৪ এ নতুন করে অতিরিক্ত শহর পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়।

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা