কারেন মার্শ

নিউজিল্যান্ডীয় প্রমিলা ক্রিকেটার

কারেন অ্যান মার্শ (ইংরেজি: Karen Marsh; জন্ম: ২৬ ডিসেম্বর, ১৯৫১) হোয়াঙ্গারেই এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক নিউজিল্যান্ডীয় আন্তর্জাতিক প্রমিলা ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৭০-এর দশকের শেষদিকে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৯৭৮ সালের মহিলাদের ক্রিকেট বিশ্বকাপে একমাত্র খেলায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

কারেন মার্শ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকারেন অ্যান মার্শ
জন্ম (1951-12-26) ২৬ ডিসেম্বর ১৯৫১ (বয়স ৬৯)
হোয়াঙ্গারেই, নিউজিল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
সম্পর্করিচার্ড হ্যাডলি (স্বামী)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ২৫)
৮ জানুয়ারি ১৯৭৮ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা
রানের সংখ্যা
ব্যাটিং গড়
১০০/৫০
সর্বোচ্চ রান
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন কারেন মার্শ। বিখ্যাত ক্রিকেটার রিচার্ড হ্যাডলি’র সাথে পরিণয়সূত্র স্থাপন করায় তিনি বিবাহ পরবর্তীকালে কারেন হ্যাডলি নামে পরিচিত ছিলেন।

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের হোয়াঙ্গারেই এলাকায় কারেন মার্শের জন্ম। তবে, ক্যান্টারবারির পক্ষে ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন তিনি।[১] অল-রাউন্ডার হিসেবে পেস বোলিং করে থাকেন।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন কারেন মার্শ। ৮ জানুয়ারি, ১৯৭৮ তারিখে ডেকানের হায়দ্রাবাদে অনুষ্ঠিত মহিলাদের ক্রিকেট বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ ছিল। তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হয়নি।

ভারতে অনুষ্ঠিত ১৯৭৮ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের সদস্যরূপে একমাত্র ওডিআইয়ে অংশ নিয়েছেন।[২] ছয় নম্বরে ব্যাটিং নেমে ১৭ বল মোকাবেলান্তে ১৪ রান তুলেন। তবে, তাকে বোলিংয়ের জন্যে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।[৩] বিখ্যাত ক্রিকেটার স্যার রিচার্ড হ্যাডলি’র সাথে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হন। এ দম্পতির দুই পুত্র রয়েছে। তবে, পরবর্তীতে তারা বিবাহ-বিচ্ছেদ ঘটান।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Karen Marsh – CricketArchive. Retrieved 19 April 2016.
  2. Women's ODI matches played by Karen Marsh – CricketArchive. Retrieved 19 April 2016.
  3. England Women v New Zealand Women, Women's World Cup 1977/78 – CricketArchive. Retrieved 19 April 2016.
  4. Aroha Awarau (15 July 2015). "Sir Richard Hadlee’s look of love"Women's Weekly (New Zealand). Retrieved 19 April 2016.

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা