প্রধান মেনু খুলুন

কবরী সারোয়ার

বাংলাদেশী অভিনেত্রী

কবরী সারোয়ার (অন্য নাম: সারাহ বেগম কবরী)[২] হলেন একজন বাংলাদেশী অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র পরিচালক ও রাজনীতিবিদ। তিনি বিংশ শতাব্দীর ষাট ও সত্তরের দশকের বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের নায়িকা ছিলেন।

কবরী সারোয়ার
জন্ম
মিনা পাল

(1950-07-19) ১৯ জুলাই ১৯৫০ (বয়স ৬৯)[১]
বোয়ালখালী, চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
অন্য নামসারাহ বেগম কবরী, কবরী
জাতিসত্তাবাঙালি
পেশাঅভিনেত্রী, রাজনীতিবিদ
কার্যকাল১৯৬৪ – বর্তমান
সন্তান
পিতা-মাতাশ্রীকৃষ্ণ দাস পাল
শ্রীমতি লাবণ্য প্রভা পাল

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলাতে জন্মগ্রহণ করেন অভিনেত্রী কবরী সারোয়ার৷ জন্মস্থান বোয়ালখালী হলেও শৈশব ও কৈশোর বেড়ে ওঠা চট্টগ্রাম নগরীতে।। তার আসল নাম মিনা পাল৷ পিতা শ্রীকৃষ্ণ দাস পাল এবং মা শ্রীমতি লাবণ্য প্রভা পাল৷ ১৯৬৩ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নৃত্যশিল্পী হিসেবে মঞ্চে আবির্ভাব কবরীর৷[৩]

অভিনয় জীবনসম্পাদনা

 
সুতরাং চলচ্চিত্রে সুভাষ দত্তের সাথে কবরী (১৯৬৪)

১৯৬৪ সালে সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ‘সুতরাং' [৪] ছবির নায়িকা হিসেবে অভিনয় জীবনের শুরু৷ এরপর অভিনয় করেছেন হীরামন, ময়নামতি, চোরাবালি, পারুলের সংসার, বিনিময়, আগন্তুক -সহ জহির রায়হানের তৈরি উর্দু ছবি ‘বাহানা' এবং ভারতের চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋত্বিক ঘটকের ছবি ‘তিতাস একটি নদীর নাম' উল্লেখযোগ্য ৷[৫]

চলচ্চিত্র তালিকাসম্পাদনা

বছর চলচ্চিত্র চরিত্র পরিচালক সহ-শিল্পী টীকা
১৯৬৪ সুতরাং জরিনা সুভাষ দত্ত সুভাষ দত্ত, বেবি জামান প্রথম চলচ্চিত্র
১৯৬৫ জলছবি ফারুক ফারুকের প্রথম চলচ্চিত্র
বাহানা
১৯৬৮ সাত ভাই চম্পা চম্পা
আবির্ভাব রাজ্জাক
বাঁশরি রাজ্জাক
যে আগুনে পুড়ি রাজ্জাক
১৯৭০ দ্বীপ নেভে নাই রাজ্জাক
দর্প চূর্ণ রাজ্জাক
ক খ গ ঘ ঙ
বিনিময় মাসুমা উজ্জ্বল উজ্জ্বলের প্রথম চলচ্চিত্র
১৯৭৩ লালন ফকির
তিতাস একটি নদীর নাম ঋত্বিক ঘটক
রংবাজ চিনি রাজ্জাক
১৯৭৪ মাসুদ রানা সবিতা সোহেল রানা সোহেল রানার প্রথম চলচ্চিত্র
১৯৭৫ সুজন সখী সখী ফারুক, খান আতা
সাধারন মেয়ে নীলা জাফর ইকবাল
১৯৭৬ গুন্ডা বিনা রাজ্জাক, খলিল
নীল আকাশের নীচে রাজ্জাক
ময়নামতি রাজ্জাক
আগন্তুক রাজ্জাক
আঁকাবাঁকা রাজ্জাক
কত যে মিনতি রাজ্জাক
অধিকার রাজ্জাক
স্মৃতিটুকু থাক রাজ্জাক
১৯৭৮ সারেং বৌ নবিতুন ফারুক
বধু বিদায় মায়া বুলবুল আহমেদ
১৯৭৯ আরাধনা রুপা বুলবুল আহমেদ
বেইমান রাজ্জাক
অবাক পৃথিবী রাজ্জাক
কাচ কাঁটা হীরা রাজ্জাক
উপহার রাজ্জাক
আমাদের সন্তান রাজ্জাক
মতিমহল
পারুলের সংসার
অরুন বরুন কিরণমালা
হীরামন
দেবদাস বুলবুল আহমেদ
আমার জন্মভুমি আলমগীর আলমগীরের প্রথম চলচ্চিত্র
১৯৮৭ দুই জীবন তাহমিনা বুলবুল আহমেদ

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

২০০৮ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি৷[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা