এরিক ফ্রেড ব্রুক (ইংরেজি: Eric Brook; ২৭ নভেম্বর ১৯০৭ – ২৯ মার্চ ১৯৬৫; এরিক ব্রুক নামে সুপরিচিত) একজন ইংরেজ পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড় ছিলেন। তিনি তার খেলোয়াড়ি জীবনের অধিকাংশ সময় ম্যানচেস্টার সিটি এবং ইংল্যান্ডের হয়ে একজন আক্রমণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন।[২] তিনি মূলত একজন বাম পার্শ্বীয় খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন।

এরিক ব্রুক
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম এরিক ফ্রেড ব্রুক
জন্ম (১৯০৭-১১-২৭)২৭ নভেম্বর ১৯০৭
জন্ম স্থান মেক্সবোরো, ইয়র্কশায়ার, ইংল্যান্ড
মৃত্যু ২৯ মার্চ ১৯৬৫(1965-03-29) (বয়স ৫৭)
মৃত্যুর স্থান উইন্থেনশ, গ্রেটার ম্যানচেস্টার, ইংল্যান্ড
মাঠে অবস্থান আক্রমণভাগের খেলোয়াড়
যুব পর্যায়
১৯২৫–১৯২৬ ওয়াথ অ্যাথলেটিক
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
সাল দল ম্যাচ (গোল)
১৯২৬–১৯২৮ বার্নজলি ৭৮ (১৮)
১৯২৮–১৯৩৯ ম্যানচেস্টার সিটি ৪৫০ (১৫৮)
মোট ৫২৮ (১৭৬)
জাতীয় দল
১৯২৯–১৯৩৭ ইংল্যান্ড ১৮ (১০)
১৯৩৪–১৯৩৯ ফুটবল লীগ একাদশ[১] (?)
১৯৩৯ এফএ একাদশ[১] (?)
১৯৩৯ইংল্যান্ড (যুদ্ধকালীন) (০)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

১৯২৫–২৬ মৌসুমে, ইংরেজ ফুটবল ক্লাব ওয়াথ অ্যাথলেটিকের যুব পর্যায়ের হয়ে খেলার মাধ্যমে ব্রুক ফুটবল জগতে প্রবেশ করেন এবং এই ক্লাবের হয়ে খেলার মাধ্যমেই তিনি ফুটবল খেলায় বিকশিত হয়েছেন। ১৯২৬–২৭ মৌসুমে, ইংরেজ ফুটবল ক্লাব বার্নজলির হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেন; বার্নজলির হয়ে ২ মৌসুমে ৭৮ ম্যাচে ১৮টি করার পর তিনি আরেক ইংরেজ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগদান করেছিলেন; যেখানে তিনি ৪৫০ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ১৫৮টি গোল করেছিলেন। ম্যানচেস্টার সিটির সর্বমোট ১০ মৌসুম অতিবাহিত করে তিনি অবসর গ্রহণ করেছিলেন।

১৯২৯ সালে, ব্রুক ইংল্যান্ডের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছিলেন, যেখানে তিনি সর্বমোট ১৮ ম্যাচে ১০টি গোল করেছিলেন। এছাড়াও তিনি ফুটবল লীগ একাদশ, এফএ একাদশ এবং যুদ্ধকালীন ইংল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে খেলেছিলেন।

ব্যক্তিগতভাবে, ব্রুক বেশ কিছু পুরস্কার জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ২০০৪ ম্যানচেস্টার সিটি হল অফ ফেমে অন্তর্ভুক্তি অন্যতম। দলগতভাবে, ঘরোয়া ফুটবলে, ব্রুক সর্বমোট ৩টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে সবগুলো ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে জয়লাভ করেছিলেন। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়, সর্বমোট ৩টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Matthews, Tony (২০১৩)। Manchester City Player by Player। Amberley। আইএসবিএন 978-1445617251 
  2. Cuddon, Anthony (১৯৮০)। The Macmillan dictionary of sports and games। Macmillan। আইএসবিএন 0-333-19163-3  p45

বহিঃসংযোগসম্পাদনা