এম কোরবান আলী

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ ও জাতীয় সংসদের ৩য় ডেপুটি স্পিকার

মোঃ কোরবান আলী (১৯২৪-২৩ জুলাই ১৯৯০) যিনি এম কোরবান আলী নামেও পরিচিত। ছিলেন বাংলাদেশের একজন খ্যাতনামা রাজনীতিবিদ। তিনি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩য় ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১][২]

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

তিনি ১৯২৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৪৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএল ডিগ্রি লাভের পর তিনি ঢাকা জেলা আদালতে আইন ব্যবসা শুরু করেন।

কর্মজীবনসম্পাদনা

তিনি প্রথমে হাই কোর্ট এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ্য আইন ব্যবস্থা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন।

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

এম কোরবান আলী ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলনবাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। তিনি যুক্তফ্রন্টের মনোনয়নে তিনি পূর্ববঙ্গ পরিষদের সদস্য ছিলেন। ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন ঢাকা-৬ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩] বাকশালের তথ্য ও বেতার মন্ত্রী ছিলেন।[৪]

৭ মে ১৯৮৬ সালের তৃতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে মুন্সিগঞ্জ-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৫] পরবর্তীতে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সময়ে ডেপুটি স্পিকার ও বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী।

মৃত্যুসম্পাদনা

কোরবান আলী ২৩ জুলাই ১৯৯০ সালে ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. মৃত ব্যক্তিরাও গোয়েন্দা নজরদারিতে!
  2. "আলী, এম কোরবান - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-২৯ 
  3. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. এমরান হোসাইন শেখ (১৫ আগস্ট ২০২০)। "মোশতাকের কেবিনেট সদস্যদের পরিণতি"বাংলা ট্রিবিউন। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০২১ 
  5. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা।