এন্টামিবা

এন্টমিবার আক্রমণে এমিবিক আমাশয় হয়ে থাকে।

এন্টমিবা হলো প্রোটিস্টা রাজ্যভুক্ত এক ধরনের এককোষী জীব। খালি চোখে এদের দেখা যায় না। এদের দেহের কোন নির্দিষ্ট আকৃতি নেই কারণ এরা সর্বদাই অ্যামিবার মতো আকারআকৃতি পরিবর্তন করতে পারে। এদের দেহ স্বচ্ছ জেলির ন্যায়। তবে কখনো কখনো প্রতিকুল পরিবেশে এরা গোলাকার শক্ত আবরণে এদের দেহ ঢেকে ফেলে। এ অবস্থায় একে সিস্ট বলে। [১]

Entamoeba histolytica.jpg

রোগ বিস্তারসম্পাদনা

ভাইরাস বাতাসে জড় কিন্তু অপরদিকে কোষকের দেহে জীবের মতো আচরণ করে।পোষকের দেহে ভাইরাস বংশবৃদ্ধি করে।তাই এন্টামিবাকে প্রকৃত পরজীবি বলা হয়।এন্টামিবা প্রোটিস্টা রাজ্যের সাবকোমাস্টিগোফোরা পর্বের এককোষী জীব।মানবদেহে ৭ প্রজাতির এন্টামিবা বসবাস করে।তার মধ্যে এন্টামিবা হিস্টোলাইটিকা বৃহদান্ত্রে এমিবিক আমাশয় সৃষ্টি করে।

বংশবৃদ্ধিসম্পাদনা

এন্টমিবা কোষ বিভাজন ও অণুবীজ (স্পোর) সৃষ্টির মাধ্যমে বংশবৃদ্ধি করে।স্পোরুলেশন পদ্ধতিতে একটি কোষের প্রোটোপ্লাজম বহুখন্ডে বিভক্ত হয়ে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অণুবীজ বা স্পোর গঠন করে।অণুকূল পরিবেশে এরা প্রত্যেকে একটি নূতন অ্যামিবা হিসেবে বড় হয়। [১]

এন্টমিবা'র বিভিন্ন অংশসম্পাদনা

এন্টামিবা ৮টি অংশে বিভক্ত। যথা -

নিউক্লিয়াস

ব্যাকটেরিয়া

খাদ্য গহ্বর

লোহিত রক্ত কণিকা

ক্ষণপদ

প্লাজমালেমা

এক্টোপ্লাজম

এণ্ডোপ্লাজম

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. সপ্তম শ্রেণীর বিজ্ঞান বই