এনটিভি

বাংলাদেশের টেলিভিশন চ্যানেল
(এনটিভি (বাংলাদেশ) থেকে পুনর্নির্দেশিত)

এনটিভি একটি উপগ্রহ-ভিত্তিক বাংলাদেশী এবং বাংলা ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল। এটি ২০০৩ সালে যাত্রা শুরু করে। চ্যানেলটির চেয়ারম্যান ও দয়িত্বাধীন ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোসাদ্দেক আলী ফালু[১]

এনটিভি
এনটিভির লোগো
এনটিভি লোগো
মালিকানামোসাদ্দেক আলী ফালু
চিত্রের বিন্যাস৪:৩ (576i, SDTV)
স্লোগানসময়ের সাথে আগামীর পথে
দেশ বাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
প্রধান কার্যালয়ঢাকা, বাংলাদেশ
ভ্রাতৃপ্রতিম
চ্যানেল(সমূহ)
আরটিভি
ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট
প্রাপ্তিস্থান
কৃত্রিম উপগ্রহ
আকাশ ডিটিএইচচ্যানেল ১১৯
টেলিস্টার ১০
(প্যান এশিয়া)
৪১৭৫H MHz
ডিশ নেটওয়ার্ক (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)চ্যানেল ৮০৪
স্কাই (যুক্তরাজ্যআয়ারল্যান্ডচ্যানেল ৮৫২
ক্যাবল
ইউসিএস (বাংলাদেশ)চ্যানেল ২
প্রিসমা ডিজিটাল (বাংলাদেশ)চ্যানেল ৫
রজার্স ক্যাবল (কানাডা)চ্যানেল ৮৬৩
আইপিটিভি

চ্যানেলটি সংবাদ, শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান, নাটক, রাজনৈকিত অনুষ্ঠান দেখিয়ে থাকে। সেপ্টেম্বর ২০১১ সালে এনটিভি বাংলাদেশের প্রথম টিভি চ্যানেল হিসেবে আইএসও সনদ লাভ করে।

ইতিহাসসম্পাদনা

 
২০১৫ সালে এনটিভির একযুগ পূর্তী উৎসব পালিত হয়।

২০০৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে এনটিভি চালুর ঘোষণা আসে, প্রাথমিকভাবে একই বছরের এপ্রিলে কার্যক্রম শুরু হয়। আগস্ট ২০০৬ সালে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একটি বাংলাদেশী টিভি চ্যানেল স্কাই চ্যানেল ৮২৬-এর মাধ্যমে ইউকে এবং ইউরোপ জুড়ে এনটিভির অনুষ্ঠানগুলি দেখানোর অধিকার অর্জন করে, তবে এক বছর পর সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যায়।

২০০৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ১০ টায় এনটিভি ভবনে আগুন লেগে তিনজন মারা যান এবং শতাধিক আহত হন। আগুনের কারণে চ্যানেলটির সম্প্রচার সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়। ভবনটিতে একই মালিকানাধীন আরটিভি নামক চ্যানলটিও অগ্নিকান্ডের শিকার হয়। ২০০৮ সালের আগস্টে এনটিভি স্কাই চ্যানেল ৮৩৩-এর মাধ্যমে ১ বছর পর আবার যুক্তরাজ্যে সম্প্রচার করা শুরু করে। সেপ্টেম্বর ২০১১ সালে এনটিভি প্রথম বাংলাদেশি টিভি চ্যানেল হিসাবে আইএসও প্রশংসা অর্জন করে।

২০১৫ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি এনটিভি ওয়েবে অনলাইন সংস্করণ চালু করে। এর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন খন্দকার ফকরউদ্দীন আহমেদ (ফকরউদ্দীন জুয়েল)।[২]

অনুষ্ঠানসম্পাদনা

এনটিবি সংবাদ, সমসাময়িক ঘটনা, আলোচনা অনুষ্ঠান, প্রামাণ্যচিত্র, খেলাধুলার খবর, ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুষ্ঠান, বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান, নাটক, টেলিফিল্ম, সংগীতানুষ্ঠান, ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা