একটি তুলসী গাছের কাহিনী

ছোটগল্প

প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর কালজয়ী সৃষ্টি একটি তুলসী গাছের কাহিনী[১][২]

একটি তুলসী গাছের কাহিনী
লেখকসৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
ধরনছোটগল্প

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

দেশভাগের সময়ে কলকাতা থেকে উদ্বাস্তুর মত একদল চাকরিজীবী পূর্ব বঙ্গে (বর্তমান : বাংলাদেশ) আসে। এসে একটি পরিত্যক্ত বাড়ি দখল করে। তারা ভাগ্যবান বলে একটি পরিত্যক্ত বাড়ি দখল করে। অন্যান্য উদ্বাস্তুরা এটা দেখে আফসোস করে। অতঃপর একদিন তাদের দখলকৃত বাড়ি উদ্ধারে পুলিশ আসে। তাদের বাড়ি ছাড়ার নোটিশ দেওয়া হয়। তারা সংকল্পবদ্ধ হয়, তারা বাড়ি ছাড়বে না।

একদিন তাদের একজনের চোখে একটি তুলসী গাছ পড়ে। তুলসী গাছকে 'হিন্দুয়ানী'র প্রতীক ধরা হয়। তুলসী গাছটি মূলোৎপাটন করার কথা বলে তাদের। কিন্তু, তারা মূলোৎপাটন করতে পারে না তারা। উপরন্তু, গোপনে গোপনে গাছটির যত্ন নেয় তাদেরই কেউ এক জন।

একদিন তাদের সবাইকে বাড়ি ছেলে চলে যেতে যায়, সরকার বাড়িটি রিকুইজিশন করে। আর,শুকিয়ে যাওয়া খয়েরি রঙের তুলসী গাছটি থেকে যায় বাড়িটিতে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা