(মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়া থেকে) এই লেখাটি কানাডার উইনিপেগ শহর সম্পর্কে। অন্য কোন ক্ষেত্রে এখানে দেখুন, Winnipeg (disambiguation).

উইনিপেগ
প্রাদেশিক রাজধানী
সিটি অফ উইনিপেগ
উপরে থেকে বাম থেকে ডান: কানাডিয়ান মানবাধিকার যাদুঘর, উইনিপেইগ বিশ্ববিদ্যালয়ের উইসলে হল, ডাউনটাউন উইনিপেইগ, সেন্ট বোনিফেস ক্যাথেড্রাল, এসপ্ল্যানেড রিয়েল সেতু এবং ম্যানিটোবা আইনসভা বিল্ডিং
উপরে থেকে বাম থেকে ডান: কানাডিয়ান মানবাধিকার যাদুঘর, উইনিপেইগ বিশ্ববিদ্যালয়ের উইসলে হল, ডাউনটাউন উইনিপেইগ, সেন্ট বোনিফেস ক্যাথেড্রাল, এসপ্ল্যানেড রিয়েল সেতু এবং ম্যানিটোবা আইনসভা বিল্ডিং
দেশকানাডা
অঙ্গরাজ্য ম্যানিটোবা
অঞ্চলউইনিপেগ মেট্রো অঞ্চল
এলাকা কোড২০৪ এবং ৪৩১
ওয়েবসাইটwww.winnipeg.ca

উইনিপেগ (/ˈwɪnɪpɛɡ/ (listen)) কানাডার ম্যানিটোবা অঙ্গরাজ্য বা প্রদেশের সবথেকে বড় শহর ও এর রাজধানী। এটি উত্তর আমেরিকাদ্রাঘিমাংশ কেন্দ্রের কাছে, উত্তরের রেডআসসিনিবয়েন নদী দুটির সঙ্গম স্থলের একেবারে কেন্দ্রে অবস্থিত।

শহরটির নামকরণ করা হয়েছে নিকটবর্তী লেক উইনিপেগের নামে; যা পশ্চিমী ক্রি উপভাষায় "কাদা জল" শব্দের প্রতিশব্দ থেকে এসেছে। ইউরোপিয়ানদের আসার অনেক আগে থেকেই এই অঞ্চলটি আদিবাসী মানুষদের বাণিজ্যের কেন্দ্র রুপে ব্যবহার হত। ফরাসী ব্যবসায়ীরা ১৭৩৮ সালে এখানে প্রথম দুর্গ তৈরি করেছিলেন। এরপর ১৮১২ সালে রেড রিভার কলোনির সেল্কির্ক বসতি স্থাপনকারীরা এখানে একটি বসতি স্থাপন করে আর ওই বসতিকে কেন্দ্র করেই ১৮৭৩ সালে উইনিপেগ শহরের সূচনা হয়। ২০১৬ সালের হিসাবে, উইনিপেগ কানাডার সপ্তম সর্বাধিক জনবহুল মিউনিসিপালিটি বা পৌরসভা যার স্থানীয় বাসিন্দা সংখ্যা প্রায় ৭,৭৭,৭৮,৫০০ জন[১]। এর অবস্থান বেশ অভ্যন্তরীণ হওয়ায় স্থানীয় জলবায়ু অত্যন্ত মৌসুমী, এমনকি কানাডিয়ান মানদণ্ডেও, তাপমাত্রা জানুয়ারিতে গড়ে সর্বনিম্ন প্রায় -২২ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড (−৬ ° ফাঃ) এবং জুলাইয়ের গড়ে সর্বোচ্চ ২৬ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড (°৯ ডিগ্রি ফারেনহাইট)[২] থাকে।

"পশ্চিমের প্রবেশদ্বার" নামে খ্যাত, বহুমুখী অর্থনীতি বিশিষ্ট উইনিপেগ হ'ল কানাডার অন্যতম রেল ও পরিবহন কেন্দ্র। এই বহুসংস্কৃতির শহরটিতে ফেস্টিভাল ডু ভয়েজেয়ার, উইনিপেগ ফোক ফেস্টিভাল, জাজ উইনিপেইগ ফেস্টিভাল, উইনিপেগ ফ্রিঞ্জ থিয়েটার ফেস্টিভাল এবং ফোকলোরোমাসহ অসংখ্য বার্ষিক উত্সব আয়োজিত হয়। প্যান আমেরিকান গেমসের প্রথম কানাডিয়ান আয়োজক ছিল উইনিপেগ। এখানে বেশ কয়েকটি পেশাদার স্পোর্টস ফ্র্যাঞ্চাইজি রয়েছে যার মধ্যে রয়েছে উইনিপেগ ব্লু বোম্বার্স (কানাডিয়ান ফুটবল), উইনিপেগ জেটস (আইস ​​হকি), ম্যানিটোবা মুস (আইস ​​হকি), ভ্যালোর এফসি (সকার) এবং উইনিপেগ গোল্ডিয়েস (বেসবল) অন্যতম।

ইতিহাসসম্পাদনা

আরও তথ্যের জন্য: উইনিপেগের ইতিহাস এবং উইনিপেগের ইতিহাসের সময়রেখা

প্রাথমিক ইতিহাসসম্পাদনা

উইনিপেগ আসসিনিবয়েন এবং উত্তরের রেড নদীর সঙ্গমে অবস্থিত, যা অবস্থানগত ভাবে "দ্য ফোরকস" নামে পরিচিত। ইউরোপীয়রা আসার আগে এই অবস্থান বিন্দুটি ছিল ফার্স্ট নেশনস বা আদিম আদিবাসীদের ক্যানো নৌপথে একটি অংশ। [৩] উইনিপেগের নামকরণ করা হয়েছে নিকটবর্তী লেক উইনিপেগের নামে; নামটি কাদা বা ঝাঁকানো পানির জন্য ওয়েস্টার্ন ক্রি শব্দের একটি প্রতিলিপি। প্রত্নতত্ত্ব, পেট্রোগ্লাইফস, রক আর্ট এবং মৌখিক ইতিহাসের দ্বারা প্রমাণিত প্রমাণগুলি প্রমাণ করে যে আদিবাসীরা কৃষিকাজের জন্য ক্যাম্পিং, ফসল, শিকার, সরঞ্জাম তৈরি, মাছ ধরা, ব্যবসা বাণিজ্য এবং আরও উত্তরে যেতে প্রাগৈতিহাসিক সময়ে এই অঞ্চলটি ব্যবহার করত।

বর্তমান শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমে এখানে প্রথম বসতি গড়ে ওঠে আনুমানিক ১১,৫০০ বছর আগে এবং "দ্য ফোরকস" নামক অংশের কাছে প্রায় ৬,০০০ বছর আগে। ১৮০৫ সালে, কানাডিয়ান উপনিবেশবাদীরা প্রথম ফার্স্ট নেশনস বা আদিম আদিবাসী লোকেদেরকে রেড নদীর তীরে কৃষিকাজ করতে দেখে। ব্যবসায়ীদের খাদ্য চাহিদা জন্য পরবর্তীতে কৃষিকাজ দ্রুত প্রসারিত হয়। দক্ষিণের সাথে উত্তর ফার্স্ট পিপলসদের সংযোগকারী একটি বিস্তৃত পরিবহন নেটওয়ার্ক হিসেবে এই নদী ও সাথে সাথে মিসৌরি এবং মিসিসিপি এই নদী গুলো দারুণ ভাবে কাজ করেছিল। ওজিবওয়ে রা বার্চের ছালের ওপর প্রথম কয়েকটি মানচিত্র তৈরি করেছিল যা পশম ব্যবসায়ীদের সেই অঞ্চলের নৌপথগুলিতে চলাচল করতে অনেক সহায়তা করে[৪]

সিয়ের দে লা ভেরেনড্রিয়ে ১৭৩৮ সালে ফোর্ট রুজ নামে এখানে প্রথম পশম ব্যবসার ঘাঁটি তৈরি করেছিলেন। ব্রিটিশ হাডসনের বে কোম্পানির আগমনের পূর্ব পর্যন্ত কয়েক যুগ এখানে ফরাসী বাণিজ্য চলতে থেকে যা অবশেষে সাত বছরের যুদ্ধে ফ্রান্সের পরাজয়ের ফলে ফ্রান্স এই অঞ্চলটি সমর্পণ করলে সমাপ্ত হয়। [১৯] অনেক ফরাসি পুরুষ যারা ট্র্যাপার ছিল তারা ফার্স্ট নেশন মহিলাদের বিয়ে করেছিল; পরবর্তীতে তাদের মিশ্র-প্রজন্মের শিশুরা শিকার, ব্যবসা এবং এ অঞ্চলে বাস করেছে। তারা নিজেদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি একে অপরের সাথে ভাগ করে নেওয়ার মাধ্যমে ধীরে ধীরে মাটিস নামে পরিচিত একটি জাতি হিসাবে আবির্ভূত হয়।[৫]

লর্ড সেল্কির্ক প্রথম স্থায়ী বসতি (রেড রিভার কলোনি নামে পরিচিত) স্থাপনে ভূমিকা রাখেন তথা হডসনের বে কোম্পানির কাছ থেকে জমি কেনা, এবং ১৯ শতকের গোড়ার দিকে নদী লটের জরিপের সাথেও জড়িত ছিলেন। নর্থ ওয়েস্ট কোম্পানি ১৮০৯ সালে ফোর্ট জিব্রাল্টার এবং হাডসনস বে কোম্পানি ১৮১২ সালে ফোর্ট ডগলাস নির্মাণ করেছিল, উভয়ই বর্তমান উইনিপেগ অঞ্চলের মধ্যে পড়েছে। দুটি সংস্থাই বাণিজ্য নিয়ে তীব্র প্রতিযোগিতা করেছিল। মাটিস এবং লর্ড সেল্কির্কের বসতি স্থাপনকারীরা ১৮১৬ সালে সেভেন ওকসের যুদ্ধে লড়াই করেছিলেন। হাডসনস বে এবং নর্থ ওয়েস্ট কোম্পানি ১৮২১ সালে একত্রিত হয়ে তাদের দীর্ঘ বিদ্বেষের অবসান ঘটায়।[৬] ১৮২২ সালে ফোর্ট জিব্রাল্টারের নাম পরিবর্তন করে ফোর্ট গ্যারি করা হয় এবং হাডসন বে কোম্পানির পক্ষে এই অঞ্চলে শীর্ষস্থানীয় বাণিজ্য কেন্দ্রে পরিণত হয়। ১৮২৬ সালে একটি বন্যায় দুর্গটি ধ্বংস প্রাপ্ত এবং এটি পুনঃনির্মাণে ১৮৩৫ পর্যন্ত লেগে যায়। দুর্গের একটি পুননির্মিত অংশ, যা সামনের গেট এবং প্রাচীরের একটি অংশ নিয়ে গঠিত, তা এখনও উইনিপেগের শহরতলীর মেইন স্ট্রিট এবং ব্রডওয়ের কোণার কাছে দৃশ্যমান।[৭]

তথ্যসূত্র ও পাদটীকাসম্পাদনা

  1. Government of Canada, Statistics Canada (২০১৭-০২-০৮)। "Census Profile, 2016 Census - Winnipeg [Census metropolitan area], Manitoba and Canada [Country]"www12.statcan.gc.ca। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-২২ 
  2. Canada, Environment and Climate Change (২০১৩-০৯-২৫)। "Canadian Climate Normals 1981-2010 Station Data - Climate - Environment and Climate Change Canada"climate.weather.gc.ca (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-২৩ 
  3. Giles, Ernest। Australia Twice Traversed। Cambridge: Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 201–222। আইএসবিএন 978-1-139-10747-1 
  4. Ristic, Jovanka R. (১৯৯৮-০৯-০১)। "Cartographic Encounters: Perspectives on Native American Mapmaking and Map Use"Cartographic Perspectives (31): 40–44। আইএসএসএন 1048-9053ডিওআই:10.14714/cp31.650 
  5. LORTIE-LUSSIER, MONIQUE (1978-10)। "Social Influence Is Given Another Chance"Contemporary Psychology: A Journal of Reviews23 (10): 759–760। আইএসএসএন 0010-7549ডিওআই:10.1037/016573  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  6. The Battle of Petersburg, June 15-18, 1864। Potomac Books। পৃষ্ঠা 9–51। আইএসবিএন 978-1-61234-739-4 
  7. Selwyn, A R C (১৮৭৩)। "Notes of a preliminary geological reconnaissance from Lake Superior, by the English and Winnipeg rivers, to Fort Garry"