উইকিপিডিয়া আলোচনা:নিবন্ধ সৃষ্টিকরণ/ইকবাল সিদ্দিকী

সক্রিয় আলোচনা
ছবিটি ২০১৯ সনের ২৪ জানুয়ারি রাজেন্দ্রপুর ক্যান্টনমেন্ট সংলগ্ন নয়নপুর মাঠ থেকে তোলা

ইকবাল সিদ্দিকীসম্পাদনা

ইকবাল সিদ্দিকী। পরিচিত যে নামেঃ প্রিন্সিপাল ইকবাল সিদ্দিকী। পেশাঃশিক্ষকতা, রাজনীতি। জন্ম ২৫শে জুলাই ১৯৬৮। স্থায়ী নিবাস গাজীপুর সদর উপজেলাধীন নয়নপুর গ্রামে। পিতা আনিসুর রহমান সিদ্দিকী।মা নূরুন্নাহার সিদ্দিকী। পারিবারিক জীবনঃ স্ত্রী খালেদা সিদ্দিকী। একমাত্র সন্তান মাটি সিদ্দিকী।

তিনি ১৯৮৮ সনে কচিকাঁচার মেলায় সংগঠক হিসেবে যোগ দান। শিক্ষাগত জীবনে তিনি বাংলা ও শিক্ষায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেছেন।সাংবাদিকতা শুরু করেন ১৯৮৫ সনে সাপ্তাহিক গণমুখ পত্রিকার বার্তা সম্পাদক হিসেবে। গাজীপুর থেকে প্রকাশিত কিশোর মানস নামে কিশোরদের মাসিক পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ অবজারভার এর গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেছেন পত্রিকাটি চালু থাকা পর্যন্ত।

১৯৯০ সালে শিশুদের জন্যে আলাদা ধরনের স্কুল কচি-কাঁচা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন।

তাঁর হাতে ১৯৯৮ সনে তাজউদ্দীন শিশু পাঠাগার, ২০০৪ সনে ইকবাল সিদ্দিকী হাই স্কুল, ২০০৬ সনে নয়নপুর এনএস আদর্শ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৫ সনে এসে তিনি ইকবাল সিদ্দিকী কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। 

বর্তমানে আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম প্রতিষ্ঠিত কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটি ও নির্বাচনী ইশ্তেহার প্রণয়ন কমিটির একজন অন্যতম সদস্য। নবম এবং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি গাজীপুর-৩ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। তথ্য সুত্রঃ দৈনিক প্রথম আলো ১০ ডিসেম্বর,গুগল,

তথ্যসূত্র==== তথ্যসূত্রসম্পাদনা


"নিবন্ধ সৃষ্টিকরণ/ইকবাল সিদ্দিকী" প্রকল্প পাতায় ফিরুন।