ঈশ্বর গুপ্ত সেতু

ঈশ্বর গুপ্ত সেতু হল হুগলি ও নদীয়া জেলার মাঝে হুগলি নদী এর উপর নির্মিত একটি সেতু।এই সেতু ১.০৪ কিলোমিটার (০.৬৫ মা) দীর্ঘ এই সেতুর পশ্চিম প্রান্ত বাঁশবেড়িয়া শহরের সঙ্গে যুক্ত এবং পূর্ব প্রান্ত কল্যাণী শহরকে যুক্ত করেছে। এই সেতুর দ্বারা নদীয়া জেলাউত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার সঙ্গে বর্ধমান, হুগলি জেলাবীরভূম জেলা যুক্ত রয়েছে। সেতুটি কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে দ্বারা কলকাতা শহরের সঙ্গে যুক্ত। এই সেতু কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ের মাধ্যমে ৩৪ নং জাতীয় সড়ক-এর সঙ্গে ২ নং জাতীয় সড়ক কে যুক্ত করেছে।

ঈশ্বর গুপ্ত সেতু
স্থানাঙ্ক২২°৫৮′২″ উত্তর ৮৮°২৪′২৭″ পূর্ব / ২২.৯৬৭২২° উত্তর ৮৮.৪০৭৫০° পূর্ব / 22.96722; 88.40750স্থানাঙ্ক: ২২°৫৮′২″ উত্তর ৮৮°২৪′২৭″ পূর্ব / ২২.৯৬৭২২° উত্তর ৮৮.৪০৭৫০° পূর্ব / 22.96722; 88.40750
বহন করেযাত্রী ও পণ্যবাহী গাড়ি,বাইসাইকেল,
অতিক্রম করেহুগলি নদী
স্থানবাঁশবেড়িয়া, হুগলি জেলা, পশ্চিমবঙ্গ,  ভারত
এর নামে নামকরণঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
মালিকপশ্চিমবঙ্গ সরকার
বৈশিষ্ট্য
মোট দৈর্ঘ্য১.০৪ কিমি (৩,৪০০ ফু)
ইতিহাস
নির্মাণ শেষ১৯৮৯
চালু০৬-১০-১৯৮৯ (06-10-1989)
পরিসংখ্যান
টোলনা

সমস্যাসম্পাদনা

সেতুটি তৈরির ২৬ বছর পর, ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসের ১৭ তারিখ সেতুটির একটি গার্ডারের কিছু অংশ বসে যায় ফলে সেতুটিতে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়।[১] পরবর্তীতে পরীক্ষামূলক ভিত্তিতে ভারী যান ব্যতীত ছোট যানবাহন চলাচল করছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "গঙ্গায় ঝুলছে কল্যাণীর ঈশ্বর গুপ্ত সেতু, আজ থেকে শুরু মেরামতির কাজ"। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)

বহিঃসংযোগসম্পাদনা