ইসলামি উন্নয়ন ব্যাংক

ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক (আইডিবি) (ইংরেজি: Islamic Development Bank - IDB) (আরবি: البنك الإسلامي للتنمية ‎‎) একটি বহুমুখী উন্নয়ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান যা সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থিত। এটি ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার অর্থমন্ত্রী ১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত করেন।

ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক
ধরনউন্নয়ন ব্যাংক
শিল্পআর্থিক
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৭৫
সদরদপ্তরজেদ্দা, সৌদি আরব
প্রধান ব্যক্তি
ড. বন্দর এম. এইচ হাজ্জার, সভাপতি
কর্মীসংখ্যা
৯৩২
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

ব্যাংকটি ১৯৭৫ সালের ২০ অগাস্ট বাদশাহ ফয়সালের বিশেষ অণুপ্রেরণায় আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যক্রম শুরু করে।[১] ৫৬টি সদস্য রাষ্ট্র এই ব্যাংকের অংশীদার।[২] মুহাম্মদ বিন ফয়সাল আল সৌদ আইডিবির প্রাক্তন সভাপতি ছিলেন।[৩]

মুসলিম সদস্য রাষ্ট্র ও অসদস্য রাষ্ট্রগুলোকে আরো বেশি সহযোগিতা করার জন্য আইডিবি ২২শে মে, ২০১৩ এর অণুমোদিত মূলধন তিনগুণ বাড়িয়ে প্রায় ১৫০ বিলিয়ন ডলার করে।[৪] ব্যাংকটি ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন রেটিং সংস্থার দ্বারা সর্বোচ্চ ক্রেডিট রেটিং এএএ অর্জন করে চলেছে।

পরিশোধিত মূলধনের উপর ভিত্তি করে প্রধান অংশীদারগণ হলঃ[৫]

  1. সৌদি আরব (২৬.৫%)
  2. লিবিয়া (১০.৭%)
  3. ইরান (৯.৩২%)
  4. মিশর (৯.২২%)
  5. তুরস্ক (৮.৪১%)
  6. সংযুক্ত আরব আমিরাত (৭.৫৪%)
  7. কুয়েত (৭.১১%)
  8. পাকিস্তান (৩.৩১%)
  9. আলজেরিয়া (৩.৩১%)
  10. ইন্দোনেশিয়া (২.৯৩%)

আইডিবি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের একটি পর্যবেক্ষক সংস্থাও।

সদস্যপদসম্পাদনা

বর্তমানে ৫৭টি দেশ ব্যাংকটির সদস্য। ব্যাংকটির সদস্য হওয়ার মূল শর্ত হল সদস্যপদপ্রার্থী দেশটিকে ইসলামী সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) সদস্য হতে হবে। এছাড়াও ব্যাংকটির মূলধনের যোগানে অবদান রাখতে হবে এবং আইডিবির নীতি-নির্ধারক বোর্ডের সমস্ত শর্ত গ্রহণ করতে হবে।

আইডিবি গ্রুপসম্পাদনা

আইডিবি গ্রুপ ৫টি সংস্থার সমন্বয়ে গঠিত। সংস্থাগুলো হল - ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংক (আইডিবি), ইসলামী গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান (আইআরটিআই), বেসরকারি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য ইসলামী সহযোগিতা (আইসিডি), বিনিয়োগ ও রপ্তানি সক্ষমতায় ইন্স্যুরেন্সের জন্য ইসলামী সহযোগিতা (আইসিআইইসি) এবং আন্তর্জাতিক ইসলামী ব্যবসা ও অর্থনৈতিক কর্পোরেশন (আইটিএফসি)।

কিছু সফল কার্যক্রমসম্পাদনা

  • মালির গাও সেতু: কিছু বছর আগে, গাওয়ে নাইজার নদী অতিক্রম করার অর্থই ছিল ফেরীর জন্য অপেক্ষা করা যা সচল থাকতে পারে আবার নাও থাকতে পারে। এটি অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করত এবং ব্যবসা-বাণিজ্য নিরুৎসাহিত করত। বর্তমানে, একটি নতুন সেতু পূর্ব মালির বিচ্ছিন্ন গাও অঞ্চলকে একটি নতুন জীবন-যাত্রা দিয়েছে।[৬]
  • উত্তর-পূর্ব আজারবাইজানে খানার্ক খাল কৃষিতে পরিবর্তন এনেছে: ৭০ বছর আগে নির্মিত সামুর-আবশেরন খালের মাধ্যমে উত্তর-পূর্ব আজারবাইজানের কৃষিতে সেচের কাজ হয়ে থাকে এবং এই খালের পানির মাধ্যমেই রাজধানী বাকুর খাবার পানির সরবরাহ করা হয়। বহু বছরের অপহেলায় খালটির পানি সরবরাহ অপর্যাপ্ত হয়ে পড়েছে এবং সেচ ও খাবার পানির চাহিদা পূরণ করতে ব্যর্থ হচ্ছে। খালটির পূণর্খনন আজারবাইজান সরকারের জন্য ছিল সবচেয়ে প্রধান কাজ[৭]
  • ইয়েমেনে সড়কের আধুনিকরণের পরিকল্পনা ও ডিজাইন: ইয়েমেন ও এর জনগণের উন্নয়নের জন্য সড়ক উন্নয়ন প্রধান কাজ। মরুভূমিপর্বতের কারণে সড়ক নির্মাণ ও ব্যবস্থাপনা করা খুবই কঠিন কাজ। পাকা সড়কের সংযোগ অনেক কম এবং এখনো অনেক দূরবর্তী জায়গা বিচ্ছিন্ন রয়েছে। উপযুক্ত সড়ক যোগাযোগ এইসব বিচ্ছিন্ন এলাকাগুলোকে মূল জনগোষ্ঠীর সাথে নিয়ে আসতে এবং জাতীয় উন্নয়নের জন্য খুবই জরুরী।[৮]

চলমান কার্যক্রমসম্পাদনা

  • বৃত্তিমূলক কার্যক্রম: ব্যাংকের সদস্য রাষ্ট্র ও অ-মুসলিম দেশগুলোর মুসলিম সম্প্রদায়ের মানব-সম্পদ উন্নয়নের জন্য ব্যাংকের ফান্ডের মাধ্যমে বৃত্তির ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। আইডিবি মূলত তিন ধরনের বৃত্তিমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।[৯]
  1. অ-মুসলিম দেশগুলোর মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য বৃত্তিমূলক কার্যক্রম
  2. আইডিবির কম-উন্নত সদস্য দেশগুলোর জন্য বিজ্ঞানপ্রযুক্তিতে এম.এসসি বৃত্তিমূলক কার্যক্রম
  3. উচ্চ প্রযুক্তিতে মেধা বৃত্তিমূলক কার্যক্রম

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. এপ্স্টেইন, ম্যাথিউ (সেপ্টেম্বর ২০১৩)। "যুক্তরাষ্টের ইসলামী চরমপ্ন্থায় সৌদি সহায়তা" (PDF)। ইসলাম ডেইলি। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  2. টেইলর & ফ্রাঞ্চিজ গ্রুপ; ডিন, লুসি (২০০৩), মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা: ২০০৪ (বর্ণামূলক সংস্করণ), রুটলেজ, আইএসবিএন 1-85743-184-7 
  3. Traute Scharf (১৯৮৩)। আরব এবং ইসলামী ব্যাংক: উন্নয়নশীল দেশসমূহের জন্য নতুন ব্যবসায়িক অংশীদার। অইসিডি পাবলিশিং। পৃষ্ঠা ৮১। আইএসবিএন 978-92-64-12562-9। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  4. "আইডিবি এর অণুমোদিত মূলধন তিনগুণ বাড়িয়েছে"। রয়টার্স। ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  5. "সংক্ষেপে আইডিবি গ্রুপ" (PDF)। ৩ মার্চ ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  6. "মালির গাও সেতু" (PDF)। আইডিবি। ২০ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  7. "উত্তর-পূর্ব আজারবাইজানে খানার্ক খাল কৃষিতে পরিবর্তন এনেছে" (PDF)। আইডিবি। ২০ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  8. "ইয়েমেনে সড়কের আধুনিকরণের পরিকল্পনা ও ডিজাইন" (PDF)। আইডিবি। ২০ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 
  9. "বৃত্তি ও বিশেষ অণুদান"। আইডিবি। ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা